মাডা ৯: মধ্য এশিয়ার প্রথম সুপারকারের দেশ আফগানিস্তান
আন্তর্জাতিক
মাডা ৯: মধ্য এশিয়ার প্রথম সুপারকারের দেশ আফগানিস্তান
মধ্য এশিয়ায় প্রথম সুপারকার তৈরি করে গোটা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে আফগানিস্তান। চোখধাঁধানো অত্যাধুনিক এই সুপারকার দেশীয় প্রযুক্তিতে বানানোর ঘোষণা দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। 
সুপারকারটির নাম ‘মাডা ৯’। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই গাড়িটির মূল মডেল তৈরির কাজ সম্পন্ন হবে। কাতারে একটি প্রদর্শনীতে এই সুপারকার আত্মপ্রকাশ করবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। গত ৫ বছর ধরে এই গাড়িটি তৈরির কাজ চলছে। ‘এনটোপ’ নামে এক সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে গাড়িটি তৈরি করছে কাবুলের ‘আফগানিস্তান টেকনিক্যাল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট’ (এটিভিআই)। এই গাড়ির হাত ধরেই দুনিয়ার কাছে নিজেদের উন্নয়নের ছাপ রাখতে চায় আফগানিস্তান। 
সুপারকারটির বৈশিষ্ট্য
‘মাডা ৯’ একটি ‘মিড-ইঞ্জিন সুপারকার’। এতে ব্যবহার করা হয়েছে টয়োটা করোলার ইঞ্জিন। তীব্র গতির জন্য এই ধরনের ইঞ্জিন বানানো হয়েছে। এটিভিআই’র প্রধান গুলাম হায়দার শাহামত জানিয়েছেন, ইঞ্জিনটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে গাড়িটি তীব্র গতিতে ছুটতে পারে। সুপারকারটির চেসিস (গাড়ির নিম্নাংশের কাঠামো) টিউবের আকারের। চেসিসটি খুব একটা ভারী নয়। গাড়িটি তৈরি করতে যেসব যন্ত্রাংশ ব্যবহার করা হয়েছে, তা হালকা। ফর্মুলা-১ রেসের গাড়িগুলোয় যেমন টিউবুলার চেসিস থাকে, তেমনভাবেই এই সুপারকারের কাঠামো তৈরি করা হয়েছে। পাহাড়ি এলাকাতেও ছুটতে পারবে এই সুপারকার। আফগানিস্তানের পার্বত্য এলাকায় পরীক্ষামূলকভাবে মহড়া হয়েছে ‘মাডা ৯’ সুপারকারের। গাড়িটি পরীক্ষামূলকভাবে চালিয়েছেন ইঞ্জিনিয়াররা। তবে সেই মুহূর্তের কোনও ভিডিও এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।

আফগানিস্তানের প্রথম সুপারকারের দামও আকাশছোঁয়া। ‘ল্যাম্বারগিনি হুরাকেন’, ‘অডি আর৮’-এর মতো সুপারকারগুলোর দাম কোটি টাকার উপরে। ‘মাডা ৯’ সুপারকারের দামও কোটি টাকার বেশি। মনে করা হচ্ছে, এই সুপারকারের দাম হতে পারে ২-৪ কোটি টাকা। এনটোপ সংস্থার সিইও মুহাম্মদ রিজা আহমদি জানিয়েছেন, এই গাড়ির হাত ধরে আন্তর্জাতিক আঙিনায় ছাপ ফেলবে আফগানিস্তান। তবে কবে এই গাড়িটির উদ্বোধন করা হবে, তা এখনও ধার্য করা হয়নি। প্রথমে আফগানিস্তানেই কেবল মাত্র এই গাড়ি পাওয়া যাবে। আগামী দিনে বিশ্বের অন্য দেশেও পৌঁছে যাবে এই সুপারকার। গাড়িটি তৈরির কাজে রয়েছেন এনটোপ সংস্থার কমপক্ষে ৩০ জন ইঞ্জিনিয়ার। গাড়ির হেডলাইটে এলইডি আলো ব্যবহার করা হয়েছে। আগামী দিনে বৈদ্যুতিক সুপারকার হিসেবে তৈরি করা হতে পারে ‘মাডা ৯’। সুপারকারটির ছবি প্রথম প্রকাশ্যে আনেন দেশটির উচ্চশিক্ষামন্ত্রী আব্দুল বাকি হাক্কানি। গাড়িটির রং কালো। সুপারকারের ছবি ও ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে। 
তথ্যসূত্র: ডেইলি টেলিগ্রাফ
আন্তর্জাতিকবিশেষ প্রতিবেদনআফগানিস্তান
আরো পড়ুন