তীব্র যানজটে অচল এয়ারপোর্ট-টঙ্গী সড়ক, চরম দুর্ভোগে অফিসগামীরা
জাতীয়
তীব্র যানজটে অচল এয়ারপোর্ট-টঙ্গী সড়ক, চরম দুর্ভোগে অফিসগামীরা
আজ সকাল থেকে রাজধানীর উত্তর ঢাকায় প্রচন্ড যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ সময়ের যানজটে অচল হয়ে পড়েছে এয়ারপোর্ট-টঙ্গী সড়ক। ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়িতে বসে থেকে অফিসগামী যাত্রীরা পায়ে হেঁটেই অফিসে রওনা দিয়েছেন। যাত্রীরা জানান, টঙ্গী থেকে জসিম উদ্দীন পর্যন্ত আসতে সময় লেগেছে ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা। রাতে বৃষ্টি হওয়ার কারণে এমনটা হয়েছে বলে জানা গেছে। 
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
সরেজমিনে দেখা যায়, টঙ্গী থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত গাড়ির দীর্ঘ সারি। ঘণ্টার পর ঘন্টা গাড়ি আটকে থাকায় সড়কে যাত্রীদের পা ফেলার জায়গা নেই। গাড়ির অপেক্ষা না করে অধিকাংশ যাত্রীকে পায়ে হেঁটে অফিসে যেতে দেখা গেছে। সদরঘাটের যাত্রী ইয়াসির আরাফাত বলেন, চেরাগালি থেকে সকাল ৬টায় গাড়িতে উঠেছি। এখন জসিম উদ্দীন মোড়ে। বাজে সাড়ে ১০টা। যানজটের ভয়াবহতা দেখে হেঁটেই সদরঘাটে যাচ্ছি। ঘটনাস্থলে দেখা যায়, ইয়াসির আরাফাতের মতো শত শত যাত্রী টঙ্গী- এয়ারপোর্ট সড়ক অচল হয়ে পড়ায় পায়ে হেঁটে গন্তব্যস্থলে রওনা দেন। 
রোববার সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস। এদিন সকাল থেকেই বিমানবন্দর-গাজীপর সড়কে যানবাহনের জটলার কারণে তীব্র যানজট দেখা দেয়। গণপরিবহনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত প্রােইভেটকারসহ সব ধরনের যানবাহনের জটলা দেখা দেয়। তবে যানজটের তীব্রতা দেখা দিয়েছে এই সড়কের জসিমউদ্দিন এলাকায়। বৃষ্টির কারণে রাস্তার বিভিন্ন স্থানে পানি জমে থাকার কারণে গাড়ি স্বাভাবিক গতিতে চলতে পারছে না। তাই এই অংশে যানজটের তীব্রতা বেড়েছে। তবে স্থানীয় লোকজন ও গাড়ির যাত্রীরা বলছেন, ট্রাফিক পুলিশ সক্রিয় না থাকায় এমন যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। কেননা জসিমউদ্দীন ফুটওভার ব্রিজের পর বিশ্ব রোড বন্ধ করে দিয়ে প্রাইভেটকার পারাপারের জন্য ইউটার্ন চালু রাখায় মূলত যানজটের সৃষ্টি বলে জানা গেছে। 
জাতীয়ডিএনসিসিরাজধানীযানজট
আরো পড়ুন