Link copied.
অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ২০২২: চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের সম্ভাবনা ও শক্তিমত্তা
writer
অনুসরণকারী
cover
ওয়েস্ট ইন্ডিজে ২০২২ সালের ১৪ জানুয়ারি শুরু হবে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের চতুর্দশতম আসর। এবারই প্রথম ওয়েস্ট ইন্ডিজ যুবাদের বিশ্বকাপ আয়োজনের দ্বায়িত্ব পালন করছে। চারটি ক্যারিবিয়ান দেশ- অ্যান্টিগুয়া অ্যান্ড বারবুডা, গায়ানা, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস এবং ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর দশটি ভেন্যুতে এই টুর্নামেন্টের ৪৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ১৪ জানুয়ারি শুরু হওয়া গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলো চলবে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত। এরপর ২৬ জানুয়ারি শুরু হবে কোয়ার্টার ফাইনাল, ১-২ ফেব্রুয়ারি সেমিফাইনালের পর ফাইনাল ৫ ফেব্রুয়ারি। উদ্বোধনী খেলা হবে ২ টি ম্যাচ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, অন্য ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে স্কটল্যান্ড।

এই আসরে খেলবে ১৬টি দেশ। চারটি গ্রুপে ভাগ হয়ে নিজেদের মধ্যে খেলবে গ্রুপ পর্বে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে দুইটি করে দল যাবে কোয়ার্টার ফাইনালে, এরপর সেমিফাইনাল ও ফাইনাল। মূল টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ৯-১২ জানুয়ারি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে দলগুলো।
যে দল গুলো অংশগ্রহণ করছে এই আসরে-

টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর সবাই অংশগ্রহণের কথা ছিল। কিন্তু কোভিড সংক্রান্ত জটিলতার কারণে নিউজিল্যান্ড এই আসর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। করোনা পরিস্থিতি সামলাতে সে দেশে কোয়ারেন্টাইনে পালনে বেশ কড়াকড়ি আরোপ করেছে সরকার। যুবাদের সে ধকল থেকে মুক্তি দিতেই বিশ্বকাপ থেকে নাম প্রত্যাহার করেছে দেশটি৷ তাদের জায়গায় সুযোগ পেয়েছে স্কটল্যান্ড। আফ্রিকা অঞ্চল থেকে সর্বশেষ ২০০৪ বিশ্বকাপে খেলা উগান্ডা এই আসরে অংশগ্রহণ করছে। পাপুয়া নিউগিনি থাকছে ইস্ট-প্যাসিফিক অঞ্চল থেকে, আমেরিকার অঞ্চল থেকে আছে কানাডা। এর বাইরে সহযোগী দেশের মধ্যে আছে আরব আমিরাত। 

বাংলাদেশ আছে গ্রুপ 'এ'তে, এই গ্রুপের বাকি তিন দল ইংল্যান্ড, কানাডা এবং আরব আমিরাত। ভারতের গ্রুপে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা। পাকিস্তান ও আফগানিস্তান পড়েছে একই গ্রুপে। গ্রুপ 'ডি' কে বলা যায় গ্রুপ অফ ডেথ। এই গ্রুপে আছে অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও স্কটল্যান্ড।

গ্রুপ বিভাজন-

এ-গ্রুপ: বাংলাদেশ, কানাডা, ইংল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত।
বি-গ্রুপ: ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, আয়ারল্যান্ড, উগান্ডা।
সি-গ্রুপ: পাকিস্তান, আফগানিস্তান, পাপুয়া নিউগিনি, জিম্বাবুয়ে।
ডি-গ্রুপ: অস্ট্রেলিয়া, স্কটল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 
cover
বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা ও শক্তিমত্তা-

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ এইবারও বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার। গত বিশ্বকাপের পর করোনার মহামারী প্রাদুর্ভাবে তেমন প্রস্তুতি সারতে পারেনি যুবারা। তবে আত্নবিশ্বাসী তারা। সাম্প্রতিক তাদের পারফরম্যান্স আত্নবিশ্বাসী করেছে সবাইকে। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে সেপ্টেম্বর থেকে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার জন্য খেলেছে আফগানিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও ভারতের বিপক্ষে সিরিজ। ভারতে ত্রিদলীয় সিরিজেতো ভারতের দুইটি দলকে হারিয়ে হয়েছে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন। শ্রীলঙ্কা সফরে ৫ ম্যাচ সিরিজে ধবল ধোলাই হলেও, ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে ৩-২ ব্যবধানে।

বিশ্বকাপের আগে ফাইনাল এসাইনমেন্ট ছিল যুবা এশিয়া কাপ। সেখানে গ্রুপ পর্বে দাপটের সাথে খেলেও সেমিতে ভারতের বিপক্ষে হেরেছে বড় ব্যবধানে। গ্রুপ পর্বে নেপাল ও কুয়েতকে উড়িয়ে দিয়েছিল তারা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ মাঝ পথে পন্ড হয়ে যায়। অনফিল্ড আম্পায়ারের করোনা পজিটিভ হওয়ায়, এই ম্যাচ বাতিল হয়। ফলে, রান রেটে এগিয়ে থেকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিতে জায়গা করে নেয় ছোট টাইগাররা। তবে ভারত বাধা উতরিয়ে জয় আনতে পারেনি। যার কারনে এশিয়া কাপের সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয় জুনিয়রদের। মিশনটা এখন বিশ্বকাপের। বড় মঞ্চে যারা নিজেরদের আধিপত্য দেখাবে তারাই চ্যাম্পিয়ন হবে। পরিসংখ্যান কেবলই তথ্য উপাত্তের মেলা।
cover
এই সংস্করণে সর্বশেষ আসরে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। অধিনায়ক ছিলেন আকবর আলী। সেই দলের শরিফুল, শামীমরা ইতোমধ্যে খেলে ফেলেছেন জাতীয় দলের হয়ে। বিশ্বকাপ জয়ী সেই দলের তিনজনকে এই আসরের স্কোয়াডে রাখা হয়েছে । বাঁহাতি স্পিনার রাকিবুল হাসান ও পেসার তানজিম হাসান সাকিবের সাথে আছেন গত বিশ্বকাপে কোন ম্যাচ খেলার সুযোগ না পাওয়া প্রান্তিক নওরোজ নাবিল। এই বিশ্বকাপে দলের অধিনায়ক করা হয়েছে অভিজ্ঞ রকিবুলকে আর সহ অধিনায়কের ভূমিকায় পালন করবেন নাবিল।

২০২০ অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে রকিবুলের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে চাপে পড়েছিল ভারত। এক মেইডেন ওভারে ২.৯০ ইকোনমি রেটে ১০ ওভারে দিয়েছিলেন ২৯ রান। শিকার করেছিলেন একটি উইকেট। সেমিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন। গ্রুপ পর্বের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে করেছিলেন নিজের সেরা বোলিং। ৯.৩ ওভার বল করে ১৯ রানের বিনিময়ে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। সে আসরে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি হয়েছিলেন রকিবুল। ৬ ম্যাচে শিকার করেছিলেন ১২ উইকেট। তার বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো, প্রতিপক্ষকে চাপে রাখতে পারেন, লাইন ল্যান্থ ঠিক রেখে নিয়মিত উইকেট আদায় করে নিতে পারেন। এই আসরেও তার ঘূর্ণিজাদু বাংলাদেশের জন্য প্লাস পয়েন্ট হবে।
cover
পেসার তানজিম হাসান সাকিবও বল হাতে গত আসরে দারুন ফর্মে ছিলেন। ৫ ইনিংসে বল হাতে ২৫.৭১ গড়ে উইকেট নিয়েছিলেন ৭টি। এছাড়া এই বিশ্বকাপের স্কোয়াডে বোলিং লাইনআপকে সামলানোর মতো আছেন বামহাতি আর্থোডক্স বোলার নাইমুর রহমান, মিডিয়াম ফাস্ট বোলার রিপন মন্ডল, আশিকুর জামান ও মুশফিক হাসানরা। গত বিশ্বকাপের পর থেকে বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাফল্যর দেখা পেয়েছেন নাইমুর রহমান। এই সময়ে ১১ ম্যাচে ১৯.২২ গড়ে উইকেট নিয়েছেন ১৮টি। এই সময়ে তারচেয়ে বেশি উইকেট নিয়েছেন কেবল শ্রীলঙ্কার ওয়াল্লালেজ। তার উইকেট সংখ্যা ২৫টি। এই সময়ে রিপন মন্ডল ৬ ম্যাচে ১৬ উইকেট, মুশকিল ৫ ম্যাচে ১১ উইকেট, আশিকুর জামান ৮ ম্যাচে ৯ উইকেট শিকার করেছেন। নিজেরদের সবটুকু দিতে পারলে তাদের হাত ধরেই ঘরে উঠবে আরেকটি শিরোপা!

ব্যাট হাতে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভরষা আইচ মোল্লা, মাহফিজুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, মেহেরব, নওরোজ নাবিলরা। ২০২০ বিশ্বকাপের পর থেকে এশিয়াকাপ পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকের তালিকায় ১২ ম্যাচে ৩৭৫ রান নিয়ে ২ নম্বরে আছেন আইচ মোল্লা। হাঁকিয়েছেন এক শতক আর দুই অর্ধশতক। এইছাড়া ৪র্থ স্থানে আছেন ১২ ম্যাচে ৩১০ রান করেছেন মাহফিজুল ইসলাম। আরিফুল ইসলামের ব্যাট এই সময়ে ১১ ম্যাচে ২১৪ রান, নাবিল ৮ ম্যাচে ১৬৭ রান ও মেহেরব হাসান ১১ ইনিংসে ১৭৩ রান করেছেন। ব্যাটাদের ধৈর্য্যর পরিক্ষাই বাংলাদেশকে শিরোপা জয়ের অন্তরায়ে কাজ করবে।
cover
যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খেলার সূচি

১৬ জানুয়ারি ২০২২ – বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড
২০ জানুয়ারি ২০২২ – বাংলাদেশ বনাম কানাডা
২২ জানুয়ারি ২০২২ – বাংলাদেশ বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত

এক নজরে সব দলের স্কোয়াড দেখে নেওয়া যাক-

বাংলাদেশ-

রাকিবুল হাসান(অধিনায়ক), প্রান্তিক নওরোজ নাবিল(সহ-অধিনায়ক), মাহফিজুল ইসলাম, ইফতেখার হোসেন ইফতি, এসএম মেহেরব হাসান, আইচ মোল্লা, আবদুল্লা আল মামুন, গাজী মোহাম্মদ তাহজিবুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, মোহাম্মদ ফাহিম, মোহাম্মদ মুশফিক হাসান, রিপন মণ্ডল, মোহাম্মদ আশিকুর জামান, তানজিম হাসান সাকিব ও নাইমুর রহমান নয়ন।

রিজার্ভ- আহসান হাবীব লিওন, জিশান আলম। 
cover
রাকিবুল হাসান
ভারত

ইয়াশ ধুল (অধিনায়ক), হারানুর সিং, এ রাঘুভানশি, এসকে রাশেদ (সহ অধিনায়ক), নিশান্ত সিন্ধু, সিদ্ধার্থ যাদব, আনেশ্বর গৌতম, দীনেশ বানা (উইকেটরক্ষক), আরাধ্য যাদব (উইকেটরক্ষক), রাজ আঙ্গার বাওয়া, মানব পারাখ, কুশল তাম্বে, আরএস হাঙ্গারেগেকার, বসু ভাটস, ভিকি ওস্তোয়াল, রবিকুমার ও গার্ভ সাংওয়ান।

রিজার্ভ- রিশিত রেড্ডি, উদয় সাহারান, আনশ গোসাই, আমরিত রাজ উপাধ্যায় ও পিএম সিং রাথোড়।


আফগানিস্তান

সুলিমান সাফি(অধিনায়ক), ইজাজ আহমেদজাই(সহ অধিনায়ক), মোহাম্মদ ইসহাক(উইকেটরক্ষক), সুলিমান আরবজাই, বিলাল সায়েদী, আল্লাহনুর, মোহাম্মদউল্লাহ, খায়বের ওয়ালি, ইজাজ আহমেদ, ইজহারউল্লাহ নাভিদ, নুর আহমেদ, ফয়সাল খান, নাওঈদ যাদরান, বিলাল সামি, নানগেয়ালিয়া খান, খালিল আহমেদ, আবদুল হাদি, বিলাল আহমেদ তারিন, শহীদ হাসানি ও ইউনুস।

অস্ট্রেলিয়া

হরকিরাত বাজওয়া, এইডেন কাহিল, কুপার ক্যানোলি, জোশুয়া গার্নার, আইজ্যাক হিগিন্স, ক্যাপবেল কেলাওয়ে, কোরি মিলার, জ্যাক নিসবেট, নিভেথান রাধাকৃষ্ণান, উইলিয়াম সালজম্যান, লাচলান শ, জ্যাকসন সিনফেল্ড, টোবাস স্নেল, টম হুইটনি এবং টিগ উইলি।

রিজার্ভ- লিয়াম ব্ল্যাকফোর্ড, লিয়াম ডডারেল, জোয়েল ডেভিস, স্যাম রাহেলি, আবরে স্টকডেল। 
cover
কানাডা

মিহির প্যাটেল(অধিনায়ক), অনুপ চিমা, অর্জুন সুখু, ইথান গিবসন, গ্যাবিন নিব্লক, গুর্নেক জোহাল সিং, হারজাপ সাইনি, জশ সাহ, কৈরব শর্মা, মোহিত প্রসার, পরমবীর খারৌদ, সাহিল বাদিন, শীল প্যাটেল, সিদ্ধি লাভ, ইয়াসির মাহমুদ

রিজার্ভ- আইয়ুশ সিং, ইরান মালিদুয়া পাথিরান , রামনবীর ধালিওয়াল, যশ মন্ডকার।

ইংল্যান্ড

টম পার্স্ট (অধিনায়ক), রেহান আহমেদ, টম অ্যাসপিনওয়াল, সনি বেকার, নাথান বার্নওয়েল, জর্জ বেল, জ্যাকব বেথেল, জোশ বয়েডেন, জেমস কোলস, অ্যালেক্স হর্টন, উইল লুক্সটন, জেমস রিউ, জেমস সেলস, ফতেহ সিং, জর্জ থমাস।

রিজার্ভ- জোশ বেকার, বেন ক্লিফ।

আয়ারল্যান্ড


টিম টেক্টর(অধিনায়ক), যশুয়া কক্স, জ্যাক ডিক্সন, লিয়াম ডোহার্টি, জমিয়ে ফোর্বস, ড্যানিয়াল ফরকিন, ম্যাথু হামপ্রেস, ফিলিপ লেরোক্স, স্কট ম্যাকবেথ, নাথান ম্যাকগুয়ার, মুজামিল শেরজাদ, ডেবিড ভিনসেন্ট, লুক হুয়েলান, রিউবেন উইলসন, ডিয়ারমুড বুরকে।

রিজার্ভ- রবি মিলার।

পাকিস্তান


কাসিম আকরাম (অধিনায়ক), আব্দুল ফাসিহ, আব্দুল ওয়াহিদ বাঙ্গালজাই, আহমেদ খান, আলি আফসান্দ, আরহাম নওয়াব, আসিম আলি, ফয়সাল আকরাম, হাসিবউল্লাহ, মোহাম্মদ ইরফান নিয়াজি, মাজ সাদাকাত, মোহাম্মদ শেহজাদ, রিজওয়ান মেহমুদ, জিসান জামির,মেহরান মুমতাজ।

রিজার্ভ- মোহাম্মদ জিসান, গাজি গৌরি। 
cover
পাপুয়ানিউগিনি

বার্নাবাস মাহা(অধিনায়ক), বোইও রে, সিগো কেলি, ম্যালকম আপোরো, তোয়া বো, রায়ান আনি, আউ ওরু, কাতেনালাকি সিঙ্গি, ক্রিস্টোফার কিলাপাট, জুনিয়র মোরিয়া, পিটার করোহো, প্যাট্রিক নউ, রাসান কেভাউ, করোহো কেভাউ, জন করিকো।

রিজার্ভ- ভেলে করিকো, গাতা মিকা, অপি ইলা।

স্কটল্যান্ড

চার্লি পিট (অধিনায়ক), জেমি কেয়ার্নস, ক্রিস্টোফার কোল, আয়ুষ দশমহাপাত্র, অলি ডেভিডসন, স্যাম এলস্টোন, শন ফিশার-কিওগ, গ্যাব্রিয়েল গ্যালম্যান-ফিন্ডলে, জ্যাক জার্ভিস, রাফায় খান, টম ম্যাকিনটোশ, মুহেমেন মাজিদ, রুয়ারিদ ম্যাকইনটায়ার, লাইল রবার্টসন, চার্লি টিয়ার।

দক্ষিণ আফ্রিকা

জর্জ ভ্যান হীরেন(অধিনায়ক), লিয়াম এল্ডার, ম্যাথু বোস্ট, ডিওয়াল্ড ব্রেভিস, মাইকেল কোপল্যান্ড, ইথান কানিংহাম, ভ্যালেন্টাইন কিটাইম, কুয়েনা মাফাকা, গেরহার্ড মারি, আফিওয়ে মায়ান্ডা, অ্যান্ডিল সিমেলেন, জেড স্মিথ, ক্যাডেন সলোমনস, জোশুয়া স্টিফেনসন, আসাখে শাকা।

রিজার্ভ- হার্ডাস কোয়েৎজার, রোনান হারম্যান, কালেব সেলেকা।
cover
উগান্ডা

প্যাসকেল মুরুঙ্গি(অধিনায়ক), মুনির ইসমাইল (সহ-অধিনায়ক), আকরাম নুবুগা, ক্রিস্টোফার কিডেগা, পিয়াস ওলোকা, জোসেফ বাগুমা, ম্যাথিউ মুসিঙ্গুজি, রোনাল্ড ওমারা, সাইরাস কাকুরু, আসাবা ব্রায়ান, আইজ্যাক সানিউ আতেগেকা, রোনাল্ড ওপিও, রোনাল্ড লুতায়া, এডউইন নুগাবা, জুয়াবা মিয়াগি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ

আক্কিম অগাস্টে(অধিনায়ক), জিওভন্তে দেপেইজা (সহ-অধিনায়ক), ওনাজে আমরি, টেডি বিশপ, কার্লন বোয়েন-টাকেট, জ্যাডেন কারমাইকেল, ম্যাককেনি ক্লার্ক, রিভালডো ক্লার্ক, জর্ডান জনসন, জোহান লেইন, অ্যান্ডারসন মাহাসে ম্যাথিউ নান্দু, শাক্কের প্যারিস, ইশিকাই থর্ন।

রিজার্ভ- অ্যান্ডারসন আমুরডান, নাথান এডওয়ার্ড, অ্যান্ডেল গর্ডন, বসন্ত সিং, কেভিন উইকহ্যাম।

জিম্বাবুয়ে

ইমানুয়েল বাওয়া(অধিনায়ক), ব্রায়ান বেনেট, ডেভিড বেনেট, ভিক্টর চিরওয়া, গার্ডিয়ান দুবে, অ্যালেক্স ফালাও, টেন্ডেকাই মাতারানিকা, তাশিঙ্গা মাকোনি, কনর মিচেল, স্টিভেন শৌল, ম্যাথু শোঙ্কেন, পানশে তারুভিঙ্গা, ম্যাথিউ ওয়েলচ, রোগান ওলহুটার, নেগেন্যাশা হোলি। 

Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021