Link copied.
রহস্যেঘেরা ‘ন্যাট্রন’ হ্রদ: যে হ্রদ প্রাণীদের পরিণত করে পাথরে!
writer
৩১ অনুসরণকারী
cover
কেমন যেন বিভীষিকাময় রূপকথার কাহিনীর মত শোনাচ্ছে না? কেননা কীভাবে একটি প্রাকৃতিক জলাশয়ে প্রাণীরা পাথরে পরিণত হয়ে যায়! তবে রুপকথা মনে হলেও বিষয়টি সত্যি। আমাদের প্রকৃতির রহস্য রুপকথার চেয়ে কম কিছু নয়!

 তানজানিয়ায় লেক ন্যাট্রন আফ্রিকার অন্যতম নির্ঝর হ্রদ। এখন পর্যন্ত এটিই সবচে বেশী অকল্পনীয় অদ্ভুত আলোকচিত্র ধারণের উৎস- এমন চিত্র যা দেখে মনে হয় জীবিত প্রাণী তৎক্ষণাত পাথর হয়ে গেছে। আলোকচিত্রী নিক ব্র্যান্ড্ট তানজানিয়ার নাট্রন লেকের চরম জলে জমে যাওয়া প্রাণিদের ভূতুড়ে অসংখ্য চিত্র ধারণ করেন তার ক্যামেরায়।

২০১১ সালে যখন তিনি পূর্ব আফ্রিকার অদৃশ্য বন্যজীবনের উপর লিখা "অ্যাক্রোস দ্য রাভেজড ল্যান্ড" (আব্রামস বুকস, ২০১৩) শীর্ষক একটি বইয়ের জন্য ফটো শ্যুট করতে যাচ্ছিলেন, ফটোগ্রাফার নিক ব্র্যান্ড্ট এক সত্যিকার বিস্ময়কর জায়গায় এসে পড়েন: একটি প্রাকৃতিক হ্রদ যা আপাতদৃষ্টিতে সমস্ত প্রজাতির প্রানীদেরকে পাথরে পরিণত করে রেখছে! 
cover
যখন আমি প্রথমবারের মতো এই প্রাণীগুলিকে হ্রদের পানিতে এবং হ্রদের পাশে দেখলাম, তখন আমি পুরোপুরি হতবাক হয়ে গেলাম; তাত্ক্ষণিকভাবে আমার মাথায় আসে এই প্রাণীগুলোর চিত্র তুলে রাখি, মনে হচ্ছিল যেন এরা জীবন্ত প্রতিকৃতি।
আলোকচিত্রী নিক ব্র্যান্ড্ট
ন্যাট্রন হ্রদের রহস্য
উত্তর তানজানিয়ার আরুশা অঞ্চলে অবস্থিত, আফ্রিকার গ্রেট রিফট ভ্যালির হ্রদটি বিশ্বের সর্বাধিক কস্টিক বা ক্ষারীয় হ্রদ। ভয়াবহ এই হ্রদ ন্যাট্রন হ'ল একটি লবণের হ্রদ-যেখানে জল প্রবাহিত হয়ে প্রবেশ করে, কিন্তু প্রবাহিত হয়ে বের হয়ে যেতে পারে না, সুতরাং কেবল বাষ্পীভবনের মাধ্যমেই শোষিত হতে পারে। সময়ের সাথে, জল বাষ্পীভূত হওয়ার সাথে সাথে এখানে ডেড সি এবং উথা'র গ্রেট সল্টলেকের মতো উচ্চ ঘনত্বের লবণ এবং অন্যান্য খনিজ জমা হতে থাকে।

অন্যান্য সাধারণ হ্রদের মত নয়,ন্যাট্রন হ্রদের জলে ন্যাট্রোন (সোডিয়াম কার্বনেট এবং বেকিং সোডার মিশ্রণ) প্রচুর পরিমাণে হওয়ায় ন্যাট্রন লেক অত্যন্ত ক্ষারীয়। এই অত্যন্ত ক্ষারীয় পানিতে প্রায় ১০.৫ ( ১২ পিএইচও হতে পারে) উচ্চমাত্রার পিএইচ রয়েছে এবং এতটা কস্টিক বা ক্ষয়কারক যে আক্ষরিক অর্থেই এখানে অভিযোজিত নয় এমন প্রাণীর ত্বক এবং চোখ পুড়ে যেতে পারে।

আফ্রিকা মহাদেশের বেশিরভাগ প্রাণীজ প্রাণীর জন্য লেক ন্যাট্রন সর্বাধিক দূষিত স্থান হিসাবে পরিচিত। ৬০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড বা ১৪০ ডিগ্রী ফারেনহাইট তাপমাত্রার ফুটন্ত পানির অতি ক্ষারকীয় হ্রদ অবশ্যই সকল প্রাণির জন্য ভয়ঙ্কর ও বিভীষিকাময়। হ্রদে এক উজ্জ্বল লাল রঙ বিকশিত থাকে, যা বেশিরভাগ জীবকে দূরে থাকতে সাবধান করে এমন একটি সতর্কতা সংকেত হিসাবে কাজ করে। 
cover
এর পানি এত বেশি ক্ষয়কারক যে এটি আমার কোডাক ফিল্ম বাক্সগুলোকে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে পুড়িয়ে ফেলতে পারবে
Brandt
জলের ক্ষারত্ব সোডিয়াম কার্বনেট এবং অন্যান্য খনিজ থেকে আসে যা পার্শ্ববর্তী পাহাড়গুলো থেকে হ্রদে প্রবাহিত হয়। এবং সোডিয়াম কার্বোনেট - যা এককালে মিশরীয় মমি তৈরিতে ব্যবহৃত হত, সেগুলো এই হ্রদে এত পরিমাণে জমা থাকার ফলে দুর্ভাগ্যবশত যে প্রাণিগুলো এই হ্রদে মারা যায় সেই প্রাণীগুলিকে দুর্দান্তভাবে সংরক্ষণের কাজ হয়ে যায়। 
cover
হ্রদের পানি প্রাণিগুলোকে সাথে সাথেই পাথর বানিয়ে দেয়?
কিছু মিডিয়ায় রিপোর্ট থাকা সত্ত্বেও প্রাণীগুলো হ্রদের পানির সংস্পর্শে আসার সাথে সাথেই কেবল পাথরে পরিণত হয়ে যায় এবং পরে মারা যায়, এমন বলা যায় না। চকযুক্ত সোডিয়াম কার্বোনেটে জমে যাওয়া ফ্লেমিংগো এবং অন্যান্য প্রাণীর দেহের তীব্র রূপরেখার অবশেষ আবিষ্কার করেন ব্র্যান্ড্ট।  
আমি অপ্রত্যাশিতভাবে প্রাণীগুলোকে দেখতে পাই - সব ধরণের পাখি এবং বাদুড় - নেট্রন লেকের উপকূলে মরে পড়ে আছে। এগুলো কীভাবে মারা পড়ে তা সঠিকভাবে কেউ জানে না, তবে পানিতে অত্যন্ত উচ্চ মাত্রার সোডার উপস্থিতি এবং লবণের পরিমাণ এত বেশি যে এটি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে আমার কোডাক ফিল্ম বাক্সগুলোর কালি শোষে নিতে পারে।
Brandt
এই প্রাণীগুলিকে আমি উপকূলরেখায় মৃত দেখতে পেয়ে সেগুলোকে 'জীবিত' অবস্থায় যেমন থাকতে পারত সেরকম অবস্থানে রাখি; এতে আমার অনুভূতি হয় যেন তাদের 'জীবন্ত' অবস্থায় ফিরিয়ে এনেছি,” ব্র্যান্ড্ট লিখেন, তিনি যেভাবে প্রাণিগুলোকে সেখানে স্থান দিয়েছেন তার উল্লেখ করে। "পুনর্জীবিত, মৃত্যুর মধ্যে আবার জীবিত।"
cover
বৈরী এবং উপকারী উভয় দিকই রয়েছে ন্যাট্রন হ্রদের
প্রকৃতপক্ষে, সর্বাধিক ক্ষারীয় জলের জলাভূমি হওয়া সত্ত্বেও, লেক ন্যাট্রনের ক্ষারীয় জলাগুলি অন্যান্য লবণাক্ত জলাভূমি, মিঠা পানির জলাভূমি, ফ্লেমিংগো এবং অন্যান্য জলাভূমি পাখি, তেলাপিয়া, শৈবাল সম্রৃদ্ধ একটি বাস্তুতন্ত্রকে সমর্থন করে। ক্ষারীয় তেলাপিয়া একটি ক্ষুদ্র প্রজাতির মাছ যা হ্রদের সাথে খাপ খাইয়ে নিয়েছে এবং এগুলো হ্রদের গরম বসন্তের খাঁজের কিনারায় বাস করে।

লেক ন্যাট্রন হ'ল লেজার ফ্লেমিংগোদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রজনন ক্ষেত্র। কারণ প্রজনন মৌসুমে আফ্রিকায় প্রায় ২ মিলিয়ন লেজার ফ্ল্যামিংগো (Phoenicopterus minor) অগভীর হ্রদটিকে তাদের প্রাথমিক প্রজনন ক্ষেত্র হিসাবে ব্যবহার করে। এই ফ্ল্যামিংগোগুলির মোট জনসংখ্যার ৫ শতাংশ এই হ্রদে জড়ো হয়। লেকের উচ্চ লবণাক্ততা এই পাখিদের সর্বাধিক খাবার নিশ্চিত করে কারণ তারা তেলাপিয়া এবং শেত্তলা খায় এবং শুকনো মরসুমে হ্রদে তৈরি হওয়া ছোট ছোট দ্বীপগুলিতে তারা তাদের বাসা তৈরি করে। 
cover
পূর্ব আফ্রিকার সেই অঞ্চলের দুটি ক্ষারীয় হ্রদের একটি হ্রদ ন্যাট্রন; এবং অন্যটি হ'ল বাহী হ্রদ। উভয়টিই টার্মিনাল হ্রদ যা কোনও নদী বা সমুদ্রে গিয়ে পতিত হয় না; গরম জলের ঝর্ণা এবং ছোট নদীই এগুলোকে ভরপুর করে। উষ্ণ জলবায়ুর অগভীর হ্রদ হিসাবে এগুলোর পানির তাপমাত্রা ১০৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট (৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস) পর্যন্ত পৌঁছতে পারে।

আপনি যেমনটা ভাবতে পারেন, খুবই অল্প কিছু প্রাণী এমন কঠোর জলে, যা ১৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে পৌঁছতে পারে, বাস করতে পারে; তো এই সকল প্রাণিদের জন্য এটিই তাদের আশ্রয়, এবং এখানে কেবলমাত্র একটি একক প্রজাতির মাছ (Alcolapia latilabris), কিছু শেত্তলা এবং এক কলোনি ফ্ল্যামিঙ্গো যারা এই শেওলা ভক্ষণ করে এবং উপকূলে বাসা বাধে ও বংশবৃদ্ধি করা এই সকল প্রাণিদের আশ্রয়স্থল এই হ্রদ।  
cover
ব্র্যান্ডটের বিচিত্র অভিজ্ঞতা
প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে ব্র্যান্ড্ট স্থানীয়দের সাথে কাজ করেন সর্বাধিক সূক্ষ্মভাবে-সংরক্ষিত কয়েকটি নমুনা সংগ্রহের জন্য। 

তারা ভেবেছিল আমি একেবারে উন্মাদ — কোন পাগল শ্বেতাঙ্গ লোক, যে অর্থের বিনিময়ে স্থানীয় মানুষকে নিয়ে মৃত পাখিদের হ্রদের চারপাশে মূলত গুপ্তধন খোঁজার জন্য এসেছি। একবার, একজন যখন খুব ভালভাবে সংরক্ষিত আফ্রিকান ফিশ ইগল এনে দেখিয়েছিল, এটি আমার কাছে খুব অসাধারণ ছিল।
Brandt
শুধুমাত্র জলের সংস্পর্শে আসা বিপজ্জনক। এটি এত ক্ষারীয় যে আপনার যদি একদম সূক্ষ্ম কোন কাটা থাকে তাহলেও এটি অত্যন্ত কষ্টদায়ক হয়ে পড়বে। এবং এই হ্রদের জলে কেউ কখনও সাঁতার কাটতে পারে না - যদি তা করতে যায় তবে এটি হবে সম্পূর্ণ উন্মাদনা।
Brandt
অতিথি পাখিরা স্থানান্তরের সময় ঘন ঘন এই হ্রদের পৃষ্ঠে এসে চুরমার হয়। ব্র্যান্ডেট ধারণা করেন যে উচ্চ-প্রতিবিম্বিত, রাসায়নিকে ভরপুর এই হ্রদের জল অনেকটা কাঁচের দরজার মতো কাজ করে, এতে পাখিগুলো মনে করে যে তারা ফাঁকা জায়গার মধ্য দিয়ে উড়ে যাচ্ছে। আর এটাই তাদের বোকা বানায়। (খুব বেশিদিন আগে নয়, একটি হেলিকপ্টারের পাইলট করুণভাবে একই বিভ্রমের শিকার হয়েছিলেন, এবং তার বিধ্বস্ত বিমানটি হ্রদের জলে অতি দ্রুত সংক্ষুব্ধ হয়ে যায়)। ব্র্যান্ডেট আরও আবিষ্কার করেন যে,শুকনো মৌসুমে যখন জল কমতে থাকে, তখন সেখানে মারা পরা পাখিদের নির্বাসিত, রাসায়নিকভাবে সংরক্ষিত শবদেহ ধুয়ে উপকূলরেখার উপর পরে থাকে। 
cover
এটা বেশ বিস্ময়কর ছিল আমার কাছে, আমি দেখেছি লেমিং-জাতীয় মরা পাখির গোটা ঝাঁক সবগুলো একসাথে ধুয়ে উপত্যকায় এসে জমেছে; আক্ষরিক অর্থেই আপনি দেখতে পাবেন যে তীরে প্রায় একশত ফিঞ্চ মরে পরে আছে ৫০ গজ প্রসারিত জায়গা জুড়ে।
Brandt
“The Calcified” শিরোনামের ফটো সিরিজের জন্য এবং নিউ সায়েন্টিস্ট ম্যাগাজিনের সংখ্যায় প্রদর্শিত হওয়ার জন্য ব্র্যান্ড্ট শবদেহগুলোকে জীবন্ত অবস্থানে বসিয়েছিলেন।  
তবে পাখিদের মৃতদেহগুলোকে ঠিক এইভাবেই পেয়েছিলাম,আমি কেবল সেগুলোকে গাছের শাখাগুলোয় ঠিক করে অবস্থান করিয়েছিলাম এবং তাদের শক্ত টালুনের মাধ্যমে তাদের সে অবস্থায় টিকিয়ে রাখা হয়েছিল
Brandt
cover
লেক ন্যাট্রনের অনন্যতা
এক বিশেষ ধরণের অণুজীব থেকে হ্রদটি তার লালচে আভা পায়। হ্যালোফিলস নামক লবণপ্রেমী অনুজীব যেগুলো হ্রদের ক্ষারীয় জলে বেড়ে উঠে এবং লালচে রঙের রঞ্জক পদার্থ উৎপাদন করে যা হ্রদের নুনের ক্রাস্টকে লাল রঙ করে। নোনতা ক্রাস্টগুলি সময়ের সাথে সাথে পরিবর্তিত হয় এবং একেক সময় হ্রদকে আলাদা আলাদা রূপ দেয়। 
cover
শুষ্ক অঞ্চলে অবস্থিত যেখানে বৃষ্টিপাত অনিয়মিত,তাই টার্মিনাল হ্রদটি গরম ঝর্ণা এবং ছোট নদী দ্বারা পোষণ হয়। হ্রদের পানিও কোনও নদী বা সমুদ্রের দিকে প্রবাহিত হয়ে বের হতে পারে না। গ্রেট রিফ্ট ভ্যালি থেকে আগ্নেয় ছাই তার বেসিনে জমা হয়, যা হ্রদটিকে বেশিরভাগ প্রাণীর জন্য বিপজ্জনক ও বিরূপ করে তোলে।

উচ্চ মাত্রায় বাষ্পীভবনের কারণে হ্রদে ন্যাট্রনের পলি জমে। নেট্রন, যার থেকে এই হ্রদটির নামকরণ করা হয়েছে, এটি একটি খনিজ নুন যা প্রাচীন মিশরীয়রা মমিকরণ প্রক্রিয়াটির জন্য ব্যবহার করত। এটি শুকানোর পাশাপাশি অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট, এবং জীবাণু যা শবদেহ পচিয়ে ফেলতে পারে সেগুলোর আক্রমণ থেকে ন্যাট্রোনে নিমজ্জিত মৃতদেহগুলো তাই সংরক্ষিত থাকে।    

এখানে যে প্রাণীরা মারা যায় তারা সময়ের সাথে সাথে চূর্ণ মূর্তিতে রূপান্তরিত হয়, কারণ হ্রদের অনন্য রাসায়নিক গঠন রয়েছে, যা মৃতদেহগুলিকে নুন, সোডিয়াম কার্বনেট এবং সোডিয়াম বাইকার্বনেটের স্তরযুক্ত করে দেয়। 
cover
লেক ন্যাট্রন তার অনন্য জীববৈচিত্রের কারণে জলাভূমির আন্তর্জাতিক জলের রামসার (the Ramsar List of Wetlands of International Importance) তালিকায় তালিকাভুক্ত হয়েছে এবং বিশ্ব বন্যপ্রাণী তহবিল দ্বারা এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বাস্তু অঞ্চল হিসাবেও স্বীকৃত হয়েছে। এই হ্রদটি অবশ্যই বিশ্বের সবচেয়ে অনন্য স্থানের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে!

হ্রদটি মূল যে নদীর পানির উপর টিকে আছে সেই ইভাসো নাইগ্রো নদীতে একটি প্রস্তাবিত জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য হ্রদ ন্যাট্রনের নির্মলতা এবং এর উপর নির্ভরশীল বিশাল ফ্ল্যামিঙ্গো জনগোষ্ঠী হুমকির সম্মুখীন হয়েছে। ১৯৫৪ সালের আগে পর্যন্ত এই হ্রদটি ইউরোপীয়রা আবিষ্কারও করতে পারেনি, তাই হ্রদটি যেমন বিচ্ছিন্ন তেমনি বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্পকালে এই হ্রদ বা এর উপর নির্ভরশীল ফ্লেমিংগো জনগোষ্ঠী যে ঝুঁকির মুখে তার পক্ষে কোনও সুরক্ষা ব্যবস্থাও নেই। 
cover
তথ্যসূত্র

  1. https://www.britannica.com/place/Lake-Natron
  2.  https://www.smithsonianmag.com/science-nature/this-alkaline-african-lake-turns-animals-into-stone-445359/
  3.  https://www.livescience.com/40135-photographer-rick-brandt-lake-natron.html
  4. https://curlytales.com/lake-natron-in-tanzania-is-a-deadly-alkaline-lake-that-also-gives-life-to-flamingoes/

Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021