কোরআনে আগুন: সুইডেন-ফিনল্যান্ডের ন্যাটোতে যোগদান আটকে দিল তুরস্ক
আন্তর্জাতিক
কোরআনে আগুন: সুইডেন-ফিনল্যান্ডের ন্যাটোতে যোগদান আটকে দিল তুরস্ক
ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের ন্যাটো সদস্য হওয়ার ক্ষেত্রে ত্রিপক্ষীয় আলোচনা অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল করা হয়েছে। মঙ্গলবার তুরস্কের অনুরোধে এ আলোচনা বাতিল করা হয় বলে খবর দিয়েছে ডেইলি  সাবাহ। 
ছবি: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত
সুইডেনে পবিত্র কুরআন পোড়ানো এবং তুরস্কভিত্তিক পিকেকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন দেওয়া কেন্দ্র করে আলোচনা বাতিল করল আঙ্কারা। গত বছরের আগস্টে শুরু হয়েছিল তিন দেশের এ আলোচনা। খবরে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে তুরস্ক ও সুইডেনের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে। কারণ আঙ্কারা ঘোষিত সন্ত্রাসবাদী সংগঠন পিকেকের সমর্থকদের তুর্কিবিরোধী সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া এবং সম্প্রতি স্টকহোমে তুর্কি দূতাবাসের সামনে কুরআনের একটি অনুলিপি পোড়ানোর ঘটনায় সুইডেনের তীব্র সমালোচনা করেছে তুরস্ক। গত শনিবার উগ্র ডানপন্থি রাজনীতিক রাসমুস পালুদান কুরআনের একটি কপিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। সুইডেন সরকারের অনুমতি নিয়ে এবং দেশটির পুলিশের নিরাপত্তাবলয়ে থেকেই এ ন্যক্কারজনক কাজটি করে সে। এ ছাড়া চলতি জানুয়ারি মাসেই স্টকহোমে সন্ত্রাসীদের সমর্থকদের একটি সমাবেশের অনুমতি দেয় সুইডিশ সরকার। যেখানে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের একটি কুশপুত্তলিকা ঝুলিয়ে ফাঁসি দেওয়া হয়। অথচ মাদ্রিদে ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনে স্বাক্ষরিত একটি সমঝোতা স্মারকের (এমওইউ) শর্তানুসারে তুরস্কের উদ্বেগ দূর করতে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা সুইডেনের। 
প্রসঙ্গত, গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর ন্যাটোর সদস্য হওয়ার আবেদন করে দুই নরডিক রাষ্ট্র সুইডেন ও ফিনল্যান্ড। কিন্তু সামরিক জোট ন্যাটোর দ্বিতীয় বৃহত্তম সদস্য তুরস্কের অনুমোদন ছাড়া সদস্যপদ লাভ করতে পারবে না দেশ দুটি। তুরস্কের পক্ষ থেকে বারবার অভিযোগ করা হচ্ছিল যে, সমঝোতা স্মারকের শর্ত অনুযায়ী সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে না সুইডেন। তার মধ্যেই সম্প্রতি তুর্কির নেতার প্রতীকী ফাঁসি কার্যকর বরং কুরআন পোড়ানোর ঘটনা ঘটল। এতে স্টকহোমের সঙ্গে আঙ্কারার উত্তেজনা আরও বেড়ে যাওয়ার পেক্ষাপটে আলোচনা বাতিল করল তুরস্ক। এদিকে তুরস্ক আলোচনা বাতিল করার পর সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী উল্ফ ক্রিস্টারসন নতুন করে আঙ্কারার সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন। মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমাদের সম্মিলিত বার্তা হলো, আমরা শান্তির পথে অগ্রসর হতে চাই। আমরা শান্তিকে উৎসাহিত করতে চাই। যাতে আমাদের ন্যাটোতে যোগদানের বিষয়ে আলোচনা এগিয়ে নিতে পারি। 
আন্তর্জাতিকতুরস্ক
আরো পড়ুন