মিথ্যা বলা ও বানানোর কারখানা বিএনপি: প্রধানমন্ত্রী
জাতীয়
মিথ্যা বলা ও বানানোর কারখানা বিএনপি: প্রধানমন্ত্রী
বিএনপি মিথ্যা কথা বলা ও বানানোর কারখানা বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বঙ্গভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বন্যায় বিএনপি নেতারা কাউকে সহায়তা দেয়নি। ঢাকায় বসে বসে কথা বলছে। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা দুর্গম এলাকায় গিয়ে খাদ্য বিতরণ করছে। এটা নিয়েও তারা সমালোচনা করছে। এটাই তাদের চরিত্র। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কাছে ‘আর রাজনীতি করবে না’ মুচলেকা দিয়ে তারেক জিয়া বিদেশে গেছেন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির এক নেতা বলেছেন তারেক রহমানকে দেশে ফিরতে দেয়া হয় না। সে তো সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা বলেছে। ২০০৭ সালে তারেক জিয়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কাছে মুচলেকা দিয়েছিল, একেবারে লিখিত দলিল যে সে আর রাজনীতি করবে না। এই শর্তে সে কারাগার থেকে মুক্তি নিয়ে বিদেশে পাড়ি জমায়। এটা তো বিএনপির নেতাদের ভুলে যাওয়ার কথা না। তাকে তো কেউ বিতাড়িত করেনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি শুনলাম, খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক জিয়া স্লোগান দেয়- পঁচাত্তরের পরাজিত শক্তি। এর মধ্যে দিয়ে এটাই প্রমাণ করেছে, তার বাপ যে পাকিস্তানের দালাল ছিল, তার মা-ও যে পাকিস্তানি দালাল হিসেবেই ছিল এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে সম্পূর্ণ নস্যাৎ করতে চেয়েছিল, আদর্শগুলো একে একে মুছে ফেলেছিল, ইতিহাস মুছে ফেলেছিল, জাতির পিতার নামটা মুছে ফেলেছিল। এটা তো খুব স্বাভাবিক যে এই স্লোগান দেবে। পাকিস্তানি সেনাদের পদলেহন করে চলাটাইতো তাদের অভ্যাস। তারা তো স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে না।
জাতীয়রাজনীতিশেখ হাসিনাপ্রধানমন্ত্রীআওয়ামী লীগ
আরো পড়ুন