আটলান্টিক পাড়ি দিয়ে আমেরিকায় পৌঁছালো এই পায়রা!
আন্তর্জাতিক
আটলান্টিক পাড়ি দিয়ে আমেরিকায় পৌঁছালো এই পায়রা!
তিন সপ্তাহ আগে ব্রিটেনের চ্যানেল দ্বীপপুঞ্জের গার্নজ়ি থেকে দেশটির উত্তর পূর্বে উইনলাটনে পৌঁছনোর কথা ছিল ববের। লক্ষ্য ছিল বাড়ি ফেরার, কিন্তু বাস্তবে ছাঁকনির বদলে তেলবাহী জাহাজে চেপে সে পাড়ি দিল আটলান্টিক মহাসাগর। অথচ সে ‌একটি পায়রা!
তার নাম বব। সে একটি 'রেসিং পিজিয়ন'। তার এই অ্যাডভেঞ্চারের তেলবাহী জাহাজের অংশটুকু তার মালিক অ্যালান টডের অনুমান হলেও ববের ৬৪৩৭ কিলোমিটার পাড়ি দেয়ার ঘটনায় বিস্মিত নেট দুনিয়া। তিন সপ্তাহ আগে ব্রিটেনের চ্যানেল দ্বীপপুঞ্জের গার্নজ়ি থেকে দেশটির উত্তর পূর্বে উইনলাটনে পৌঁছনোর কথা ছিল ববের। সময় লাগার কথা ছিল ১০ ঘণ্টা। কিন্তু রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে যায় সে। অবশেষে, ৬ জুলাই আমেরিকার অ্যালাবামা প্রদেশে খোঁজ মেলে তার। অ্যালাবামার মনরো কাউন্টির মেক্সিয়ার এক ব্যক্তি নিজের বাগানে খুঁজে পান ববকে। তিনি দেখেই বুঝতে পেরেছিলেন, পায়রাটি বহুদূর যাত্রা করে এসেছে। প্রসঙ্গত পিজিয়ন রেসিং একটি বিশেষ ধরনের খেলা। এই খেলায় একটি নির্দিষ্ট জায়গা থেকে একাধিক পায়রাকে ছেড়ে দেয়া হয়। তাদের লক্ষ্য থাকে কত কম সময়ে বাড়িতে, নিজের মালিকের কাছে ফেরা যায়।
ববের মালিক অ্যালানের ধারণা, রাস্তা ভুল করে একটি তেলবাহী জাহাজে পৌঁছেছিল বব। এতে করেই সমুদ্র পার হয়েছে সে। ববের গায়ে মিলেছে তেলের ছোপও, যা জানতে পারার পরেই অ্যালান এই ধারণায় পৌঁছেছেন। তিনি জানিয়েছেন, এত দূর উড়ে যাওয়া কার্যত অসম্ভব। সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির বাগানে একটি গাছের ডালে গ্যাঁট হয়ে বসেছিল পায়রাটি। তাকে কোনোভাবে ঘরে আনতে না পেরে স্থানীয় প্রাণী সংরক্ষণ সংস্থাকে ফোন করেন ওই ভদ্রলোক। সংস্থার কর্মীরা এসে ববের পায়ে থাকা বিশেষ ব্যান্ড থেকে চিহ্নিত করে যে তার আসলে সাগরের ওই পারে থাকার কথা। সংস্থা সূত্রে জানা যায়, এতটা রাস্তা পার হয়ে এলেও ববের শরীর ঠিকঠাকই রয়েছে। চিকিৎসকেরা পরীক্ষা করেছেন তাকে। অ্যালানের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেখাও হয়েছে তার। খুব শিগগিরই দেখা হবে দু'জনের, তাকে নিয়ে যেতে অ্যালান আসছেন অ্যালাবামায়।
আন্তর্জাতিকএক্সক্লুসিভযুক্তরাষ্ট্রযুক্তরাজ্য
আরো পড়ুন