চলতি মাসেই বিদ্যুতের নতুন দাম ঘোষণা
জাতীয়
চলতি মাসেই বিদ্যুতের নতুন দাম ঘোষণা
দেশের রাষ্ট্রচালিত বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী সংস্থার প্রস্তাবের পর কর্তৃপক্ষ ১৪ অক্টোবরের আগে যেকোনো সময় সরবরাহকৃত বিদ্যুতের পাইকারি (বাল্ক) দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিতে পারে। তবে, বাল্ক বিদ্যুতের শুল্কের কোনো সমন্বয় বিদ্যুতের বর্তমান খুচরা মূল্যের ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলবে না।
রোববার (২ অক্টোবর) বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল এক ভার্চুয়াল মিডিয়া ব্রিফিংয়ে অক্টোবর মাসের জন্য এলপিজির নতুন দাম কমানোর বিষয়ে একথা বলেন। এক প্রশ্নের জবাবে বিইআরসির চেয়ারম্যান বলেন, ‘বিইআরসি আইন অনুযায়ী বিদ্যুৎ বা জ্বালানি সংক্রান্ত বিষয়ে গণশুনানির পর ৯০ দিনের মধ্যে কমিশনের সিদ্ধান্ত ঘোষণার বিধান রয়েছে।’ রাষ্ট্রায়ত্ত বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) বাল্ক বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর একটি প্রস্তাবের ওপর সর্বশেষ গণশুনানি হয় ১৮ মে। গণশুনানির সময় বিপিডিবি বাল্ক বিদ্যুতের শুল্ক ৬৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব করেছিল, যখন বিইআরসির একটি প্রযুক্তিগত মূল্যায়ন কমিটি (টিইসি) ৫৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ বৃদ্ধির সুপারিশ করেছিল। কিন্তু, গণশুনানির পর বিইআরসি অংশীজনদের শুনানির প্রক্রিয়া শেষ করার জন্য প্রাসঙ্গিক নথি জমা দেয়ার জন্য অতিরিক্ত দিন বাড়িয়েছে।
জাতীয়অর্থনীতি
আরো পড়ুন