রবীন্দ্রসরোবরে দোকান কর্মচারীদের হামলায় ঢাবির ৮ শিক্ষার্থী আহত
শিক্ষা
রবীন্দ্রসরোবরে দোকান কর্মচারীদের হামলায় ঢাবির ৮ শিক্ষার্থী আহত
রাজধানীর ধানমন্ডি রবীন্দ্রসরোবরে দোকান কর্মচারীদের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ঢাবির অন্তত ৮ শিক্ষার্থী আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন। 
শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন: ঢাবির অমর একুশে হলের রোবটিকস অ্যান্ড মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মাহফুজুর রহমান আলিফ (২১), ফার্মেসি বিভাগের বায়োজিদ (১৯), নাসিফ (১৯), ইতিহাস বিভাগের আজিম মাহমুদ তৌহিদ(২০), সিফাতুল ইসলাম (২০), আজহা (১৯), মাহিন (১৮) ও জুনায়েদ (২০)। আহতরা এবং তাদের সহপাঠীরা জানান, সন্ধ্যায় তাদের এক মেয়ে ও এক ছেলেবন্ধু রবীন্দ্রসরোবরে ঘুরতে যান। সেখানে বসে তারা কার্ড গেম ‘উনো’ খেলছিলেন। এ সময় সেখানকার এক দোকান কর্মচারী এসে তাদের সেখান থেকে উঠে যেতে বলেন এবং সেখানে কোনো ধরনের তাস খেলা যাবে না বলে জানান। তখন ওই দুই শিক্ষার্থী তাকে জানান, এটি তাস খেলা নয়; তারা কেন উঠবেন।
এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ওই কর্মচারী ঢাবির মেয়ে শিক্ষার্থীকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন। পরে ওই দুই শিক্ষার্থী তাদের সহপাঠীদের খবর দিলে তারা সবাই মিলে ঘটনাটি জানতে সেখানে যান। একপর্যায়ে দোকান কর্মচারীরা একত্রিত হয়ে তাদের ওপর আক্রমণ করেন। লাঠিসোঁটা, রড, বাঁশ দিয়ে তাদের মারধর করেন। এতে অন্তত ৮ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া জানান, আটজনের মধ্যে আলিফের মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত রয়েছে। 
শিক্ষাঢাবি
আরো পড়ুন