জেলে পল্লী দুবাইয়ের কিছু দুর্লভ ছবি
আন্তর্জাতিক
জেলে পল্লী দুবাইয়ের কিছু দুর্লভ ছবি
ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের দূরবর্তী ছবি
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
ছবিতে দেখা যাচ্ছেন, পোর্ট রশিদে একটি আকাশচুম্বী ভবন নির্মাণ হচ্ছে। ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের আদলে ভবনটি নির্মাণ করেন কর্তৃপক্ষ। ছবিটি সংগ্রহ করা হয়েছে ব্রিটিশ স্থপতি স্টিফেন ফিঞ্চ ও মার্ক হারিসের ব্যক্তিগত সংগ্রহ থেকে। ১৯৭৬ থেকে ১৯৭৯ সালের মাঝে দুবাইয়ের অনেকগুলো ছবি তুলেছিলেন তারা। ধারণা করা হয়, এটিই মেগাসিটি দুবাইয়ের সব থেকে পুরোনো ভবন নির্মাণের ছবি। 
ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার
১৯৭৭ সালে ছবিটি তোলেন ব্রিটিশ স্থপতি স্টিফেন ফিঞ্চ। দুবাইয়ে নির্মিত ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সবচেয়ে পুরোনো ও নিকট দূরত্বের ছবি এটি। মজার বিষয় হলো, ছবিটির মালিক ফিঞ্চ নিজেই ভবনের স্থপতি। দুবাই প্রদর্শনীর কিউরেটর টড রেইস ছবিটি সম্পর্কে বলেন, 'ছবিটি আমাদের বোঝায় লোকেরা কিভাবে প্রথমবারের মতো ভবনের দিকি তাকিয়েছিল।'
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
বানিয়াস রোড
ফটোগ্রাফার: মার্ক হারিস
ফটোগ্রাফার: মার্ক হারিস
বানিয়াস রোডের এই ছবিটি তোলা হয় ১৯৭৭ সালে। বর্তমানে রাস্তাটি দুবাই ক্রেকের তলদেশ থেকে পুনরুদ্ধার করার চেষ্টা চালাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। সমুদ্রে পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় দুবাইয়ের সবচেয়ে পুরোনো রাস্তাটি পানির নিচে ডুবে যায়। এই রাস্তা কেন্দ্র করেই নির্মিত হয়েছিল অনেক সুউচ্চ ভবন।
ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের ফ্লোর
ফটোগ্রাফার: জন হারিস
ফটোগ্রাফার: জন হারিস
ছবিটি তোলা হয়েছিল দুবাইয়ের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের একটি অসম্পূর্ণ ফ্লোর থেকে। ১৪৯ মিটার উঁচু ভবন থেকে দুবাইয়ের চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন ফটোগ্রাফার জন হারিস ও স্থপতি মার্ক হারিস।
নৌকায় বসে ভবন নির্মাণের ছবি
ফটোগ্রাফার: জন হারিস
ফটোগ্রাফার: জন হারিস
ছবিটি তৃতীয় বিশ্বের মানুষের প্রতিচ্ছবি তুলে ধরে। জেলে পল্লীর মানুষেরা নৌকায় বসে দেখছিলেন কিভাবে তাদের বসবাসের পরিচিত জায়গাটি সুবিশাল অট্টালিকা দ্বারা নতুনত্ব পাচ্ছে। আর এভাবেই সময়ের পরিক্রমায় জেলেদের দুবাই এখন বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ী, অভিনেতা, রাজনৈতিক নেতাদের দখলে।
দুবাই পৌর ভবন
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
ফটোগ্রাফার: স্টিফেন ফিন্চ
ছবিতে দেখানো হয়েছে দুবাইয়ের নির্মাণাধীন পৌর ভবন। ১৯৭৭ সালে ছবিটি তোলেন স্টিফেন ফিন্চ। ডিয়েরা ক্রেক সড়ককে কেন্দ্র করে নির্মাণ করা হয়েছিল এই পৌর ভবন।
আন্তর্জাতিকবিশেষ প্রতিবেদন
আরো পড়ুন