হোটেলের ৩০ লাখ টাকা বকেয়া রেখেই প্রতারক উধাও!
আন্তর্জাতিক
হোটেলের ৩০ লাখ টাকা বকেয়া রেখেই প্রতারক উধাও!
ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির একটি ফাইট স্টার হোটেলে ২৩ লাখ রুপি বিল বকেয়া রেখে পালিয়ে গেছেন এক প্রতারক। বাংলাদেশি অর্থে যা প্রায় ৩০ লাখ টাকার সমান। মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে এনডিটিভি।

ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
জানা গেছে, ওই প্রতারক নিজেকে মোহাম্মদ শরীফ নামে পরিচয় দিয়ে দিল্লির লীলা প্যালেস হোটেলে ২০২২ সালের আগস্টে ওঠেছিলেন। তিনি আরও পরিচয় দিয়েছিলেন, তিনি আরব আমিরাতের রাজপরিবারের কাছের লোক। তার সঙ্গে শেখ ফালাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সুসম্পর্ক রয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছিলেন, ভারতে ব্যবসায়িক কাজে এসেছেন। প্রতারক মোহাম্মদ শরীফ হোটেলটিতে ১ আগস্ট থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় চার মাস অবস্থান করেন। এই সময় পর্যন্ত ৩৫ লাখ রুপির সেবা গ্রহণ করেন। এরমধ্যে পরিশোধ করেন ১১ লাখ রুপি। আর বাকি রাখেন ২৩ লাখ রুপি। এই বিপুল অর্থ বকেয়া রেখেই পালান তিনি।

এনডিটিভি আরও জানিয়েছে, কথিত মোহাম্মদ শরীফ হোটেলটির ৪২৭ নাম্বার রুমে ওঠেন। প্রায় চার মাস পর হঠাৎ একদিন পালিয়ে যান তিনি। শুধু তাই নয় রুম থেকে দামি রুপা ও মুক্তাখচিত পাত্র চুরি করে নিয়ে যান। এছাড়া যাওয়ার আগে দিয়ে যান ২০ লাখ রুপির একটি ভুয়া চেক। দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, মোহাম্মদ শরীফ হোটেলে তার একটি বিজনেজ কার্ড এবং আরব আমিরাতে থাকার কার্ড প্রদর্শন করেছিলেন। এছাড়া বিশ্বস্ততা অর্জনে হোটেলের কর্মচারীদের সঙ্গে আমিরাতের বিভিন্ন গল্প বলতেন তিনি। পুলিশ এখন বিষয়টি তদন্ত করছে। তাদের ধারণা, মোহাম্মদ শরীফ যেসব পরিচয় দিয়েছেন এগুলোর সব ভুয়া। এখন সিসিটিভির ফুটেজ দেখে ওই ব্যক্তিকে শনাক্তের চেষ্টা করছেন তারা।
আন্তর্জাতিকএক্সক্লুসিভভারত
আরো পড়ুন