ভারতের সিংহভাগ মানুষের প্রত্যাশা পুত্র সন্তান, বাড়ছে লিঙ্গ অসমতা
আন্তর্জাতিক
ভারতের সিংহভাগ মানুষের প্রত্যাশা পুত্র সন্তান, বাড়ছে লিঙ্গ অসমতা
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
১০০ বছরের বেশি সময় ধরে ভারতে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা অনেক বেশি। ২০১১ সালের এক আদমশুমারিতে দেখা গেছে, প্রতি ১০০০ পুরুষের বিপরীতে মাত্র ৯৪০ জন নারী ও শিশু রয়েছে দেশটিতে। আর যদি মেয়ে শিশুদের বাদ দিয়ে হিসাব করা হয় তাহলে নারীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৯১৮ জন। যদিও ভারত সরকার বিভিন্ন সময় আন্তর্জাতিক সম্মেলনে লিঙ্গ সমতা উন্নতি হয়েছে দাবি করেছে। কিন্তু বাস্তবতা বলছে ভিন্ন কথা। এখনও ভারতের সিংহভাগ মানুষ পুত্র সন্তান প্রত্যাশা করেন।  
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
দেশটির ন্যাশনাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভের এক জরিপে উঠে এসেছে এক ভয়াবহ তথ্য। সংস্থাটির পারিবারিক সমীক্ষায় জানা গেছে, সমাজের প্রতি ৮০ জন নাগরিক জীবদ্দশায় অন্তত একটি ছেলে চান। কন্যার চেয়ে পুত্র বেশি পছন্দের পেছনে একটি অন্ধ বিশ্বাস রয়েছে ভারতীয়দের। তারা মনে করেন, একজন পুরুষ সন্তান পরিবারের নাম উজ্জ্বল করতে পারে। সে সাথে বাবা-মাকে দেখাশোনা করতে পারে একজন ছেলে। অন্যদিকে, একজন মেয়ে বিয়ের পর পরিবার ছেড়ে যায়। আবার মেয়েদের বিয়ের সময় যৌতুকের ঝুঁকি থাকে।  
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
ভারতের মানুষ এখনও অর্থনৈতিক উন্নতি নিয়ে শঙ্কিত। তাই নারী শিক্ষার গুরুত্ব এখনও সেভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়নি সেখানে। আর ঠিক এই জায়গায় এসে ভারতের লিঙ্গ সমতার বাস্তবায়ন থমকে আছে। তবে সম্প্রতি যে উন্নতির কথা বলা হয়েছে তাতেও কিছু সমস্যা রয়েছে। ন্যাশনাল ফ্যামিলি হেলথ সার্ভে ২০১৯ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত করা এক জরিপের ফল প্রকাশ করেছে। প্রতিটি পরিবার প্রধানের মধ্যে মাত্র ১৫.৩৭ শতাংশ এখন ছেলের আশা করেন যা ২০১৫ সালেও ১৬.৬৮ শতাংশে ছিল। 
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
ভারতে লিঙ্গ সমতা যখন উন্নতির দিকে তখন ছেলের আশায় একাধিক সন্তান নেয়ার প্রবণতা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। দেশটির ১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী ৬৫ শতাংশ বিবাহিত নারীর ইতোমধ্যে দুটো কন্যা সন্তান রয়েছে। তবে তাদের কোনো পুত্র নেই। ছয় বছর আগেও এই হার ছিল ৬৫ শতাংশ। এমন পরিসংখ্যান দেখে মনে হতে পারে ভারতে নারীর সংখ্যা বাড়ছে যা তাদের লিঙ্গ সমতার দিকে এগিয়ে নিচ্ছে। তবে এখানে নতুন কিছু ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে মারা যাচ্ছেন অনেক নারী। একই সাথে শিশুমৃত্যুর হারও অনেকটা বেড়েছে। তাই বলা যায়, লিঙ্গ সমাতা আনতে গিয়ে ভারত মা ও শিশুদের নতুন সংকটে ফেলছে।
আন্তর্জাতিকভারত
আরো পড়ুন