ডিমের দাম কমলেও ঊর্ধ্বমুখী মুরগি
অর্থনীতি
ডিমের দাম কমলেও ঊর্ধ্বমুখী মুরগি
অস্থির মুরগির বাজারে আবারও ঊর্ধ্বমুখী ব্রয়লারের দাম। একদিনের ব্যবধানে কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকায়। শুক্রবার (৩১ মার্চ) রাজধানীর কারওয়ানবাজার ঘুরে এমন পরিস্থিতি দেখা গেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার ২১০ টাকা কেজিতে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে।
 

এর আগে গত মঙ্গলবার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অভিযানের পর কারওয়ানবাজারে ১৯০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছে ব্রয়লার মুরগি। তবে ধীরে ধীরে আবারও সেই চিরচেনা রূপে ফিরছে এই মুরগির দাম। রমজানের শুরুতে দাম পড়তে থাকার পর আবার কেন ব্রয়লারের দাম বাড়ছে এর সঠিক কোনো কারণ জানা নেই খুচরা বিক্রেতাদের। তারা বলছেন, বিক্রি কমের বাজারে চাহিদা মতো যোগানের পরও দাম বাড়ায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বেচাকেনায়। এদিকে, চাহিদা কমায় সপ্তাহ ব্যবধানে ডজনে ১০ টাকা কমে লাল ডিম বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়। মাসের শেষে স্থিতিশীল মুদিপণ্যের বাজার দর থাকলেও দুই-তিনদিন ধরে কমে গেছে বিক্রি। কমতির দিকে রয়েছে ভোজ্যতেলের দাম। 
  
এদিকে বাজারে ফার্মের মুরগির ডিমের দাম কমেছে। ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৩০ টাকায়। গত সপ্তাহে ফার্মের মুরগির ডিমের ডজন ছিল ১৪০ টাকা। হাঁসের ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৭৫-১৮০ টাকায়। দেশি মুরগির ডিমের ডজন ২১০-২২০ টাকা। ডিম বিক্রেতারা বলছেন,  ফার্মের ডিমের দাম গত সপ্তাহের চেয়ে ডজনে ৫-১০ টাকা কমেছে। এখন ফার্মের ডিমের ডজন বিক্রি করছি ১৩০ টাকায়। কিন্তু পাড়া-মহল্লার দোকানে ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৩৭ টাকায়।
অর্থনীতি
আরো পড়ুন