স্মৃতি হারিয়ে যাওয়া রোগের প্রতিষেধক আবিষ্কারে বিজ্ঞানীদের সাফল্য
আন্তর্জাতিক
স্মৃতি হারিয়ে যাওয়া রোগের প্রতিষেধক আবিষ্কারে বিজ্ঞানীদের সাফল্য
আলঝেইমার এক ধরণের রোগ। যা মস্তিষ্কের স্নায়ুতন্ত্র কে প্রভাবিত করে। বয়স্কদের মধ্যে এই রোগ বেশি দেখা যায়। এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির স্মৃতিশক্তি খুব দুর্বল হয়ে যায় এবং তাদের মস্তিষ্ক সঠিকভাবে কাজ করতে সক্ষম হয় না। যার কারণে তাদের প্রতিদিনের রুটিন ধীরে ধীরে অবনতি হতে শুরু করে।
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
আলঝেইমার এক ধরনের ডিমেনশিয়া হিসাবেও পরিচিত। তবে এই রোগে আক্রান্তদের জন্য সুসংবাদ দিয়েছেন গবেষকরা। আলঝেইমারের প্রতিষেধক হিসেবে একটি ওষুধ আবিষ্কারের পথে বিজ্ঞানীরা। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, যুগ যুগ ধরে ব্যর্থতার পর আলঝেইমার রোগের চিকিৎসায় একটি ওষুধ বিস্ময়কর সাফল্যের ইঙ্গিত দিচ্ছে। যদিও ‘লেকানেমাব’ নামের এই ওষুধের সামান্য কার্যকারিতা রয়েছে আর মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় এর প্রভাব নিয়ে এখনও রয়ে গেছে বিতর্ক। তবে এই ওষুধ আলঝেইমার শনাক্তের প্রাথমিক পর্যায়ে বেশ কাজ করে। আর এ কারণেই অনেকে এটিকে যুগান্তকারী হিসেবে মানতে নারাজ। ‘লেকানেমাব’ মানুষের মগজের আঠালো পদার্থ বেটা এমাইলোয়েডকে আক্রমণ করে। 
ছবি: ইন্টারনেট
ছবি: ইন্টারনেট
এই আঠালো পদার্থটি আলঝেইমার রোগে আক্রান্ত মানুষের মগজে তৈরি হয়। লেকানেমাব হলো একটি এন্টিবডি যা ভাইরাস যা ব্যাকটেরিয়াকে আক্রমণ করতে শরীর থেকেই তৈরি হয় আর এ ক্ষেত্রে প্রযুক্তির মাধ্যমে শরীরের রোগ প্রতিরোধী ব্যবস্থাকে বলা হয় মগজ থেকে এমাইলোয়েড জাতীয় পদার্থকে পরিষ্কার করে ফেলতে। এমাইলোয়েড হলো এক ধরনের প্রোটিন যা অতিরিক্ত আস্তরণ হিসেবে মগজের নিউরোনে থাকে এবং এটি স্বতন্ত্রভাবে অবস্থান নিয়ে আলঝেইমার রোগটির অন্যতম বৈশিষ্ট হিসেবে প্রকাশ পায়। এ বিষয়ে ব্যাপক আকারে পরিচালিত এক গবেষণায় ১ হাজার ৭৯৫ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশ নেন যাদের মধ্যে আলঝেইমার রোগের প্রাথমিক লক্ষণগুলো ছিল। এই গবেষণায় তাদের পনের দিন পরপর একবার করে লেকানেমাব দেয়া হয়েছিল। গবেষণার ১৮ মাসের চিকিৎসায় ওষুধটি আলঝেইমার রোগে যেভাবে মানুষের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা লোপ পায় তার গতিকে চার ভাগের এক ভাগ কমিয়ে দিতে পেরেছিল।
আন্তর্জাতিকস্বাস্থ্যবিজ্ঞানগবেষণা
আরো পড়ুন