Link copied.
profile
তুষার হোসেন
৩৫সংবাদ
অনুসরণকারী
অনুসরণ করছেন

cover

কাঁধে বন্দুক, বুকে শিশুসন্তান নিয়ে ডিউটি পালন করছেন নারী পুলিশ সদস্য!

রাইফেল কাঁধে রেখে, আট মাসের শিশুসন্তানকে পরম মমতায় বুকে আগলে রেখে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির মধ্যে থানায় দায়িত্ব পালন করছেন এক নারী পুলিশ সদস্য। ময়মনসিংহের ভালুকা থানার এমন দৃশ্যের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করেছেন ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালমা ইসলাম। ইউএনও ভালুকা নামে ফেসবুক আইডিতে দেওয়া স্ট্যাটাসটিতে সালমা ইসলাম লেখেন, ‘সকালে এইচএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন দিতে ভালুকা মডেল থানায় গিয়ে অন্যরকম দৃশ্য চোখে পড়ল। এক নারী পুলিশ সদস্য তার আট মাসের সন্তানকে বুকে আগলে রেখেছেন। এমনিতেই শীতকাল, তার ওপর গতকাল থেকে ঝুম বৃষ্টি হচ্ছে। সেজন্য শিশুটিও মায়ের উষ্ণ কোলের মধ্যে গুটিসুটি মেরে জড়িয়ে আছে। ছবিটি ফেসবুকে দেওয়ার কারণ একটাই। সেটা হলো সবাই দেখুক যে কাঁধে অস্ত্র, হাতে ট্রেজারির চাবি আর বুকে বাচ্চা নিয়ে সমানভাবে দায়িত্ব পালন করা কেবলমাত্র একজন নারীর পক্ষেই সম্ভব।’ যেখানে নেটিজেনরা নারীদের দায়িত্ববোধের প্রশংসা ও শ্রদ্ধা জানিয়ে মন্তব্য করছেন।

cover

ব্লাউজ পছন্দ না হওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা!

আন্তর্জাতিক
১ দিন আগে

দর্জির স্বামী নিজের পছন্দমতো ব্লাউজ সেলাই করে দিতে না পারার কারণে ভারতের হায়দ্রাবাদে আত্মহত্যা করেছেন তার স্ত্রী বিজয়ালক্ষী (৩৫)। ঘটনাটি ঘটেছে হায়দ্রাবাদের আম্বারপেতে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, হায়দ্রাবাদের গোলনাকা তিরুমালা নগরে স্কুলগামী দুই সন্তান, স্বামী শ্রীনিবাসকে নিয়ে ছিল বিজয়ালক্ষীর সংসার। তার স্বামী ফেরি করে শাড়ি, ব্লাউজ ও আনুষঙ্গিক জিনিসপত্র বিক্রি করতেন ফেরি করে। আর ঘরে বসে সেলাই করতেন ব্লাউজ, বিভিন্ন পোশাক। দু'একদিন আগে তিনি নিজের স্ত্রীর জন্য একটি ব্লাউজ সেলাই করেন। কিন্তু তা পছন্দ হয়নি বিজয়লক্ষ্মীর। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তীব্র বাকবিতণ্ডা হয়। বিজয়লক্ষ্মীর দাবি ছিল আবার নতুন করে সেলাই করে দিতে হবে ব্লাউজ। কিন্তু তার সে দাবি প্রত্যাখ্যান করেন শ্রীনিবাস। পক্ষান্তরে শ্রীনিবাস জানিয়ে দেন, পছন্দ না হলে নিজের মতো করে ব্লাউজ সেলাই করে নিতে। বিষয়টি বিজয়লক্ষ্মীর কাছে প্রচণ্ড অপমানের মনে হয়েছে। ঘটনার দিন তাদের সন্তান যখন স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে দেখতে পায় ঘরের দরজা বন্ধ, একটানা দরজায় নক করতে থাকে। কিন্তু ভেতর থেকে কোনো সাড়া মেলে না। এক পর্যায়ে খবর পৌঁছে যায় শ্রীনিবাসের কাছে। তিনি দৌড়ে বাড়ি ফেরেন। দেখতে পান ঘরের দরজা ভিতর থেকে আটকানো। নক করেন দরজায়। কিন্তু কোনো সাড়া মেলে না ভিতর থেকে। অনেকক্ষণ চেষ্টার পর দরজা ভেঙে ফেলা হয়। তিনি ও অন্যরা দেখতে পান, ঘরের মধ্যে পড়ে আছে বিজয়ালক্ষীর মৃতদেহ।

cover

২ হাত নেই, তবুও প্রেমিকার হাত ছাড়েননি প্রেমিক সুব্রত

বর সুস্থ-সবল স্বাভাবিক মানুষ। কিন্তু কনের দুই হাতের কনুই পর্যন্ত নেই। সেই দুই হাত বাধা হলো না তাদের বিয়েতে। দীর্ঘ ৫ বছরের প্রেমের সম্পর্ককে বিয়েতে রূপ দিলেন তারা। এমন এক জুটির বিয়ে জাকজমকভাবে সম্পন্ন হয়েছে বরিশাল নগরীর ঐতিহ্যবাহী শঙ্করমঠ চত্বরে। আমন্ত্রিত ছাড়াও উৎসুক অসংখ্য মানুষ এ বিয়ে উপভোগ করেন। বর সুব্রত মিত্র পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলায় বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা কোডেক-এর মাঠ কর্মকর্তা। আর কনে ফাল্গুনী একটি বেসরকরী উন্নয়ন সংস্থায় মানবসম্পদ বিভাগে কর্মরত। নবদম্পতি নিজেদের  প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, তাদের বিয়েটা সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি বদলানোর উদাহরণ হয়ে থাকবে। ফাল্গনী সাহা জানান, ২০০২ সালে বিদ্যুৎপৃষ্ট হলে তার দুই হাতের কনুই পর্যন্ত কেটে ফেলতে হয়। তখন তিনি স্কুলছাত্রী। এতে তার জীবন থমকে যেতে দেননি। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করে কর্মজীবনে প্রবেশ করেছেন তিনি। স্কুলজীবন থেকে কর্মজীবন-কেউ তার হাত না থাকার বিষয়টি বুঝতে দেননি। সুব্রত সাহা বলেন, ফাল্গুনীকে তিনি ছোটবেলা থেকে চেনেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী থাকাবস্থায় তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তার হাত না থাকাটাকে কোন সমস্যা মনে করেননি তিনি। সুব্রত মিত্রর বোন শ্রাবন্তী মিত্র বলেন, বিয়ের অনুষ্ঠানে আয়োজনের কোন ঘাটতি ছিলনা। সকলের মানসিকতা তার ভাইয়ের মতো হলে সমাজটা বদলে যাবে। এই বিয়েটা একটা উদাহরণ হয়ে থাকবে।

cover

চাঁদে জমি কিনতে হিলারির স্বীকৃতির দোহাই দিয়ে ধোঁকাবাজি

প্রযুক্তি
১৫ দিন আগে

আমেরিকার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের স্বীকৃতির দোহাই দিয়ে সবাইকে বোকা বানাচ্ছেন ধোঁকাবাজিতে পটু চাঁদে জমির মালিক দাবিদার ডেনিস। তার ওয়েবসাইটে প্রচার করছেন, মার্কিন সরকার তার ছায়াপথের অনুমোদন দিয়েছে। কিন্তু হিলারির দেওয়া সনদে স্পষ্ট লেখা আছে- এসবের দায় দায়িত্ব মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের নয়। ডেনিস এম হোপ, চরম ধোঁকাবাজ এক মানুষ। যিনি নিজেকে সূর্য আর পৃথিবী ছাড়া চাঁদ-মঙ্গলসহ সব গ্রহ-উপগ্রহের মালিক দাবি করে সারা দুনিয়ায় রীতিমতো সাড়া ফেলেছেন। চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা। মানুষকে লোভনীয় ফাঁদে ফেলতে হোপ সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের একটি সনদও প্রদর্শন করেছেন, যেখানে মার্কিন সরকার তার গ্যালাকটিক বা ছায়াপথের সার্বভৌমত্ব স্বীকার করে। কিন্তু বাস্তবে তার ওয়েবসাইটে দেখা যায়, ওয়াশিংটন ডিসির লাইব্রেরি অব কংগ্রেস কপিরাইট অফিসে অনুমোদনের জন্য একটি সিল জমা দেওয়া হয়। সেই সার্টিফিকেটে সিলের বিষয়টি উল্লেখ করলেও হিলারি নিচের অংশে তারকা চিহ্নিত করে লেখেন, এর দায় দায়িত্ব তার অফিসের নয়। অর্থাৎ একটি সিল দেখিয়েই ডেনিস এম হোপ মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছেন।

cover

সন্তান জন্ম দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই পরীক্ষার হলে মা

বরিশালশিক্ষা
১৫ দিন আগে

বরিশালের বানারীপাড়ায় সন্তান জন্ম দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই পরীক্ষা হলে গিয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে এক স্কুলছাত্রী। ওই ছাত্রীর মানসিক মনোবল নিয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন স্থানীয়রা। তবে স্কুল শিক্ষার্থীর সন্তান প্রসবের ঘটনায় বাল্য বিয়ের বিষয়টি সামনে আসায় কিছুটা বিব্রত অভিভাবকরা। চাখার ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) মো. ফারুক হোসেন স্বজনদের বরাত দিয়ে জানান, প্রসূতি দোলা আক্তারের আগেই বিয়ে হয়েছিল। সে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। রোববারের (২১ নভেম্বর) আগের পরীক্ষাগুলো ঠিকভাবেই দিয়েছে সে। তবে রোববারের পরীক্ষা শুরুর কয়েকঘণ্টা আগে, সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ৭টার দিকে প্রসব বেদনা উঠলে চাখার ১০ শয্যা হাসপাতালের এক সেবিকার সঙ্গে যোগাযোগ করেন দোলার স্বজনরা। এরপর তার সহযোগিতায় ফুটফুটে এক ছেলে সন্তানের জন্ম দেয় দোলা। এর কিছুক্ষণ পর দোলা শারীরিকভাবে সুস্থ বোধ করলে সে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে চায়। পরে পরীক্ষা পরিচালনা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করে দোলা যথাসময়ে পরীক্ষায় অংশ নেয়।

cover

কোটি টাকার লটারি জিতে থানায় দিনমজুর!

টানাটানির সংসারে এক কোটি টাকার লটারির পুরস্কার জিতে রাতের ঘুম হারাম হয়েছে ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুরের কোতোয়ালির থানা এলাকার বাসিন্দা শিশির নন্দীর। পেশায় তিনি দিনমজুর। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে লটারির পুরস্কার ঘোষণা হয়েছে। তখন শিশির জানতে পারেন, ভাগ্যের শিকে ছিঁড়েছে তার। এক কোটির টাকার লটারি জিতেছেন তিনি। কিন্তু পরক্ষণেই দুশ্চিন্তা ভর করে মাথায়। এক কোটি টাকার লটারির খবর জানতে পেরে যদি বাড়িতে চোর-ডাকাত হামলা করে! এই ভয়ে মধ্যরাতেই পুলিশের কাছে ছোটেন শিশির। খবর দেন স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষকেও। তারপর পুলিশি নিরাপত্তা পেয়ে শনিবার দুপুর নাগাদ ব্যাংকে গিয়ে লটারির কাগজপত্র জমা দেন। শিশির জানান, গত ৭ বছর ধরে রাজমিস্ত্রির কাজ করেন তিনি। বাড়িতে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। কোতোয়ালি থানা এলাকার শিরোমণি অঞ্চলে বাড়ি তার। মাঝে মধ্যেই লটারির টিকিট কেনেন শিশির। বেশ কয়েকবার গ্যারান্টি পুরস্কারও জিতেছেন তিনি। পুলিশ জানিয়েছে, টিকিট জিতে পুরো পরিবারই ভয় পাচ্ছিল। তাই নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।

cover

সব বাধা উপেক্ষা করে মাঠের ভেতর দর্শক, প্রশ্নবিদ্ধ প্রটোকল

খেলাধুলা
১৭ দিন আগে

মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি চলাকালীন আবারও এক দর্শক মাঠে প্রবেশের ঘটনা ঘটেছে। ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তান ব্যাটিং চলাকালীন সময়ে নর্দান গ্যালারির লোহার শেকল টপকে হঠাৎই মাঠে ঢুকে পড়েন এক দর্শক। এসে সোজা পড়েন মুস্তাফিজের পায়ের কাছে। পরে ওই দর্শককে সরান নিরাপত্তাকর্মীরা। প্রথম ইনিংসেং টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানের দুর্দান্ত বোলিংয়ে টাইগাররা ১০৮ রান করতে সক্ষম হয়। অর্থাৎ জয়ের জন্য ১০৯ রানের প্রয়োজন পাকিস্তানের। এমন সমীকরণে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান ইনিংসের ১৩তম ওভার শেষ হওয়ার ঠিক পরের ঘটনা। নর্দান গ্যালারি থেকে বাংলাদেশের জার্সি পরা এক দর্শক লোহার শেকল টপকে মাঠে ঢুকে অদ্ভুত এক কাণ্ড করেন। দৌড়ে ছুটে গিয়ে মুস্তাফিজের পায়ের কাছে কাছে বসে ‘ভালোবাসা’ প্রকাশ করেন সেই সমর্থক। পরে নিরাপত্তাকর্মীরা দৌড়ে এসে ওই দর্শককে তুলে নেন। একটু পর তুলে নেওয়া হয় মুস্তাফিজকেও।

cover

৩৫ বছর পত্রিকা পড়ার নেশায় মগ্ন স্কুল না যাওয়া জাহাঙ্গীর!

রাজধানীর সচিবালয়ের বিপরীত দিকের রাস্তায় বসে গভীর মনোযোগ দিয়ে একটি জাতীয় পত্রিকা পড়ছিলেন এক বৃদ্ধ। বয়স ৬৫ হবে। পরনে পাঞ্জাবি, কাঁধে গামছা, লুঙ্গি ও প্লাস্টিকের স্যান্ডেল। পাশে একটি রিকশা দাঁড়ানো থাকলেও তার সামনে বসেই তিনি পত্রিকা পড়ছিলেন। কৌতূহলবশত সামনে এগিয়ে আলাপকালে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা বর্তমানে রাজধানীর ধনিয়ায় বসবাসকারী জাহাঙ্গীর হোসেন পেশায় একজন রিকশাচালক। প্রতিদিন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা পড়া তার অভ্যাস। গত ৩৫ বছর ধরে দৈনিক পত্রিকা পড়ার অভ্যাসগত কারণে রিকশা চালানোর ফাঁকে তিনি ২-৩ ঘণ্টা পত্রিকা পড়েন। অথচ তিনি সম্পূর্ণ নিরক্ষর। প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা বলতে যা বোঝায় অর্থাৎ স্কুলে যাননি। অল্প বয়স থেকেই তিনি বিভিন্ন স্থানে রাস্তাঘাটের দেয়াল লিখন, বাস ও লঞ্চ টার্মিনাল এবং ট্রেন স্টেশনে বিভিন্ন লেখা দেখে সেখানে কি লেখা রয়েছে তা জানতে চাইতেন। মানুষের কাছে প্রশ্ন করে নিজের প্রচেষ্টায় স্বরবর্ণ ও ব্যঞ্জনবর্ণ এবং পরে যুক্তাক্ষরসহ বিভিন্ন লেখা পড়ে শেখেন। একটা সময় তিনি দেখেন তিনি যে কোনো বিষয় পড়তে পারছেন। ৩৫ বছর আগে তিনি প্রথম পত্রিকা কিনে পড়াশোনা শুরু করেন। এখন তিনি দ্রুতগতিতে পত্রিকার বিভিন্ন প্রতিবেদন ও কলাম পড়তে পারেন। তিনি জানান, একটা সময় দৈনিক বাংলা, সংবাদ ও ইত্তেফাক এবং বিভিন্ন বিনোদন, ম্যাগাজিন পড়ে মজা পেতেন। কিন্তু এখন তিনি পত্রিকায় গ্রামবাংলার খবর বেশি পড়েন।

cover

১০৫ বছর বয়সে দৌড়ে রেকর্ড গড়লেন জুলিয়া হকিনস!

আন্তর্জাতিক
২১ দিন আগে

১০৫ বছর বয়সে ১০০ মিটার দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক নারী ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড অ্যাথলেটের তালিকায় নাম লেখালেন যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানা অঙ্গরাজ্যের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা জুলিয়া হকিনস। ১ মিনিট ৩ সেকেন্ডেরও কম সময়ে ফিনিশিং লাইন পাড়ি দেন জুলিয়া। প্রত্যাশিত সময়ের চেয়ে শেষ করতে একটু বেশি সময় লাগলেও তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। প্রতিযোগিতা শেষে তিনি বলেন, "পরিবারের সদস্য ও বন্ধুবান্ধবদের দেখতে পেয়ে খুব ভালো লেগেছে। তবে আমি এক মিনিটের কম সময়ে দৌড় শেষ করতে চেয়েছিলাম।" দ্বিবার্ষিক ন্যাশনাল সিনিয়র গেমসে অংশ নিতে স্টেট পর্যায়ের বাছাই প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে তিনি এই রেকর্ড গড়েন। ন্যাশনাল সিনিয়র গেমস অ্যাসোসিয়েশনের তথ্যানুসারে, ১০৫ বছর বয়সের ঊর্ধ্বে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড অ্যাথলেটের তালিকায় এর আগে পুরুষদের নাম আসলেও প্রথমবারের মতো কোনো নারী এই তালিকায় নাম লেখালেন।

cover

সন্তান উৎপাদন ক্ষমতা দ্রুত কমিয়ে দেয় যে কাজগুলো!

স্বাস্থ্য
২৬ দিন আগে

স্পার্মের পরিমাণ নিয়ে ইদানীং বেশিরভাগ পুরুষ ভুগছেন। স্পার্ম কাউন্ট কম হওয়ায় অনেক দম্পতি বাবা-মা হতে পারেন না। তবে নিজেরা একটু সচেতন থাকলে এ ধরনের সমস্যা এড়ানো সম্ভব। আমাদের প্রতিদিনের করা কিছু কাজের মাধ্যমেই আমরা সম্মুখীন হচ্ছি এই বিশাল বিপদের। আমাদের এই স্পার্ম কীভাবে কমে যায় তার বেশ কয়েকটি কারণ ব্যাখ্যা করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক এনএইচএস নামের জার্নালে। জেনে নেওয়া যাক কারণগুলো- ১) অ্যানাবলিক স্টেরয়েড পেশির শক্তি ও বৃদ্ধিকে নিয়ন্ত্রণ করে। এতে অণ্ডকোষ সংকুচিত হয়ে যায় এবং স্পার্ম কাউন্ট কমে যায়। অর্থাৎ মাদক গ্রহণে সন্তান উৎপাদন ক্ষমতা হ্রাস পায়। ২) অ্যালকোহল পান করার অভ্যাস থাকলে সাবধান। টেস্টোস্টেরনের মাত্রা কমায় অ্যালকোহল যা আপনার সন্তান উৎপাদন ক্ষমতা হ্রাস করবে। বিশেষ করে যারা অতিরিক্ত মাত্রায় অ্যালকোহল পান করেন তাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। ৩) টোবাকো মানবদেহের জন্য অনেক ক্ষতিকর। পাশাপাশি এটা স্পার্ম কাউন্টও কমিয়ে দেয়। এজন্য আপনার ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা ভেবে হলেও ধূমপান থেকে বিরত থাকুন। ৪) যদি আপনি ডিপ্রেশনের শিকার হন, অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। আপনার স্পার্ম কাউন্ট কম হওয়ার অন্যতম কারণ এটা।

cover

রিজওয়ানকে দেখে ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে কুরআন পড়ছেন কোচ হেইডেন

খেলাধুলা
২৭ দিন আগে

অস্ট্রেলিয়া দলের একসময়ের ব্যাটিং ত্রাস হিসেবে পরিচিত ছিলেন কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান ম্যাথু হেইডেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দায়িত্ব পেয়েছিলেন পাকিস্তানের ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে। এদিকে নিজে খ্রিষ্টধর্মের অনুসারী হলেও ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে নতুন করে জানার আগ্রহ তৈরি হয়েছে ম্যাথু হেইডেনের। পাকিস্তানি ওপেনার রিজওয়ানের কাছ থেকে ইসলাম ধর্মের প্রধান ধর্মগ্রন্থ পবিত্র কুরআনের একটি ইংরেজি সংস্করণ উপহার পেয়েছেন তিনি। যা নিয়ে রিজওয়ানের সাথে বসে আলোচনা করেছেন হেইডেন। এদিকে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম ‘নিউজ ক্রপ অস্ট্রেলিয়া’ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ম্যাথু হেইডেন আরও জানান, প্রতিদিন তিনি অল্প অল্প করে পবিত্র কুরআন পড়ছেন। এ প্রসঙ্গে সাবেক অজি ওপেনার বলেন, “এটি ছিল রিজি (মোহাম্মদ রিজওয়ান) এবং আমাকে বলতে হবে এটি একটি সুন্দর মুহূর্ত ছিল, যা আমি কখনই ভুলব না। আমি খ্রিস্টান হওয়া সত্ত্বেও ইসলাম সম্পর্কে আগ্রহী। একজন খ্রিস্টকে অনুসরণ করে এবং অন্যজন মুহাম্মদকে অনুসরণ করে। তাই এক অর্থে কখনই তাদের মেলানো সম্ভব নয়।”

cover

৩০ বছর ধরে হাসপাতালের টয়লেটের পানি পান করলেন স্টাফ, রোগীরা!

আন্তর্জাতিক
২৭ দিন আগে

একদিন দুদিন নয়, টানা ৩০ বছর ধরে টয়লেটের পানি পান করা হচ্ছে, অবিশ্বাস্য মনে হলেও এতাই সত্যি। ঘটনাটি ঘটেছে জাপানের বিখ্যাত ওসাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে। বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আসে গত ২০ অক্টোবর। এরপর ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় এক গণমাধ্যম ইয়োমিউরি শিম্বুনের প্রতিবেদনে উঠে আসে বিষয়টি। ওই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটি অবস্থিত জাপানের সুইতায় । জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বাথরুমের টয়লেটের সঙ্গে ভুলবশত পানির লাইনের সংযোগ ঘটে যায়। হাসপাতালের স্টাফ, রোগীরা সেই পানি খেয়েছেন, হাত ধুয়েছেন, এমনকি তাদের অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার করেছেন গত ৩০ বছর ধরে। সম্প্রতি বিষয়টি ধরা পড়ে হাসপাতালটির নতুন একটি ভবন পরিদর্শনে গিয়ে। হাসপাতালটি চালু করা হয় ১৯৯৩ সালে। এটির মেডিকেল বিভাগের প্রায় ১২০টি পানির ট্যাপে ভুল পাইপের সংযোগ ছিল। ধারণা করা হচ্ছে তখনই হয়তো ভুল হয়েছে। ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নতুন করে ওয়াটার প্ল্যান্ট তৈরি না হওয়ার পর্যন্ত ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ সেটি আমলে নেয়নি। তবে তাৎক্ষণিকভাবে বদলে ফেলা হয়েছে পাইপ।

cover

যে দায়িত্বের জন্য ৪৫ কোটি টাকা মাইনে পান শাহরুখের ম্যানেজার পূজা

বিনোদন
২৮ দিন আগে

এবার শাহরুখের ম্যানেজার পূজার সম্পর্কে বিস্ফোরক তথ্য সামনে এসেছে। ২০১২ সালে শাহরুখের খানের ম্যানেজার হিসাবে কাজে যোগ দেন তিনি। তারপর থেকে এই দীর্ঘ ন’বছর পূজা কখনও অন্য কোনও তারকার ম্যানেজার হওয়ার কথা ভাবেননি। শাহরুখের যাবতীয় কাজের দেখভাল করেন পূজা। শাহরুখের কলকাতা নাইট রাইডার্স দলেরও যাবতীয় বিষয় দেখভাল করেন। শাহরুখ বিদেশে কোনও কাজে গেলে পূজাও সঙ্গে যান। কোনও বিষয়েই বাদশাকে সমস্যায় পড়তে দেন না তিনি। শাহরুখের ছোট-বড় সমস্ত বিষয় সামলানোর জন্য মোটা পারিশ্রমিকও পান তিনি। একটি সূত্রের দাবি, বছরে ৪৫ কোটি টাকা উপার্জন তাঁর। এ ছাড়া প্রতি বছরই ধুমধাম করে পূজার জন্মদিন পালন করেন বাদশা। দামি সমস্ত উপহারে ভরিয়ে দেন তাঁকে। অনেকেই জানেন না, পূজা এবং শাহরুখের জন্ম তারিখও একই।

cover

স্থানীয় যে পাঁচ প্রকৌশলীর হাতে তৈরি ‘সুরক্ষা অ্যাপ’

প্রযুক্তি
২৮ দিন আগে

ভ্যাকসিন নিবন্ধনের জন্য তৈরি অ্যাপ 'সুরক্ষা' আমাদের দেশি তথ্য-প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের সক্ষমতার একটি ছোট নিদর্শন। ৫ জন স্থানীয় প্রকৌশলীর হাতে তৈরি এই অ্যাপটি একই সঙ্গে ৫ কোটি মানুষ ব্যবহার করতে পারেন। এটি দেশের করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। স্বল্পতম সময়ে এই প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছেন আইসিটি বিভাগের ৫ প্রকৌশলী আ স ম হোসনি মোবারক, মো. হারুন অর রশিদ, মো. আবদুল্লাহ বিন সালাম, আবদুল্লাহ আল রহমান এবং মো. গোলাম মাহবুব। এই ৫ নায়কদের কঠোর পরিশ্রমে জনগণের করের অনেক টাকা বেঁচে গেছে। কারণ সরকার গত জানুয়ারিতে ভ্যাকসিন রোলআউট ব্যবস্থাপনা সমাধানের অংশ হিসেবে নিবন্ধন প্ল্যাটফর্মকেও আউটসোর্স করার পরিকল্পনা করছিল।

cover

অদ্ভুত যে গ্রামের সব পুরুষ দুই বিয়ে করেন!

ভারতের রাজস্থানের ছোট্ট একটি গ্রাম দেরাসর। বড়জোর ৬০০ মানুষের বাস গ্রামটিতে। কিন্তু এই গ্রামের অদ্ভুত এক রীতি গোটা ভারতে পরিচিতি এনে দিয়েছে। দেরাসরের প্রতিটি পুরুষের অন্তত দু’জন করে স্ত্রী। কারণ হিসেবে ইন্ডিয়া টুডে’র প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, এ গ্রামের বাসিন্দাদের বিশ্বাস, প্রথম স্ত্রী থেকে কোনো স্বামীরই সন্তান হবে না। সন্তানের মুখ দেখতে গেলে দ্বিতীয় বিয়ে করতেই হবে। এই অদ্ভুত বিশ্বাস থেকেই দ্বিতীয় বিয়ে করেন দেরাসর গ্রামের পুরুষরা। এমন রীতির সূত্রপাত অতীতের একটি ঘটনা থেকে। গ্রামের এক লোকের নাকি কিছুতেই সন্তান হচ্ছিল না। পরে তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করতেই সন্তানলাভ করেন। এরপর যখনই গ্রামের কোনো পুরুষ এমন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতেন, তার দ্বিতীয় বিয়ে দেয়া হত। আর তাতেই নাকি মিলত ফল। এভাবে পুরুষের বহুবিবাহ গ্রামের রীতিতে পরিণত হয়। অবশ্য এটি ছাড়াও অন্য একটি কারণ রয়েছে এমন রীতির পিছনে। দেরাসর গ্রামে শুরু থেকেই তীব্র পানি সঙ্কট চলে আসছে। অন্তত পাঁচ কিলোমিটার হেঁটে পরিবারের নারীদের পানি আনতে হয় এই গ্রামে। অন্তঃসত্ত্বা হলে কোনো নারীর পক্ষেই হেঁটে এতদূর থেকে পানি আনা সম্ভব নয়। সে কারণেও দ্বিতীয় বিয়ে করে থাকেন পুরুষরা।


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021