Link copied.
রাষ্ট্রপতি
coverশীর্ষ খবর

বেগম রোকেয়া ছিলেন একজন নিবেদিতপ্রাণ সমাজকর্মী: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বেগম রোকেয়া শুধু নারী শিক্ষার অগ্রদূতই ছিলেন না, তিনি ছিলেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী নিবেদিতপ্রাণ একজন সমাজকর্মী। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ‘বেগম রোকেয়া দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘‘বিংশ শতাব্দীর প্রথম দশকে বেগম রোকেয়া তার শানিত অন্তর্দৃষ্টি দিয়ে উপলব্ধি করেছিলেন যে, সমাজে নারীর অধঃস্তন অবস্থা নারী উন্নয়নের পথে প্রধান অন্তরায়। তাই তার চিন্তা-ভাবনা-উদ্বেগ সর্বক্ষণ আবর্তিত ছিল নারী জাগরণ ও সমঅধিকার প্রতিষ্ঠাকে কেন্দ্র করে। নারীকে অবরোধবাসিনী করে বিকলাঙ্গ করার প্রথা উচ্ছেদসহ নারী মুক্তি, নারীর অগ্রযাত্রা ও নারী শিক্ষা প্রবর্তনে তার ত্যাগী ভূমিকা তাকে মহীয়সী করেছে। ‘কন্যাগুলোকে সুশিক্ষিত করিয়া কার্যক্ষেত্রে ছাড়িয়া দাও, নিজের অন্নবস্ত্র উপার্জন করুক’ শতবর্ষ আগে এভাবেই বেগম রোকেয়া তার ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে নারীদের শিক্ষিত তথা আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেছিলেন। বেগম রোকেয়ার চিন্তার গভীরতায় এবং দৃষ্টির প্রসারতায় রচিত সাহিত্য আমাদের জাতীয় জীবনে সুদূরপ্রসারী প্রভাব ফেলেছে।’’

cover

ডা. মুরাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন রাষ্ট্রপতি

সরকারঢাকা
১ দিন আগে

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আজ মঙ্গলবার (০৭ ডিসেম্বর) রাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। বিতর্কিত মন্তব্য ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির সঙ্গে ফোনালাপ ফাঁস হওয়ার পর তুমুল সমালোচনার মধ্যে সোমবার সকালে ঢাকা ছেড়ে চট্টগ্রাম গিয়েছিলেন ডা. মুরাদ। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মঙ্গলবার ইমেইলে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য পদত্যাগপত্র পাঠান তিনি। তবে অনলাইনে পাঠানো পদত্যাগপত্রটি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে গৃহীত হয়নি। এরপর ডা. মুরাদ চট্রগাম থেকে ঢাকায় এসে পদত্যাগপত্রে নিজ হাতে সই করে পাঠান। তবে ঢাকায় তিনি কোথায় আছেন এ তথ্য জানা যায়নি। এই পদত্যাগ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে জানা গেছে।

coverশীর্ষ খবর

বিভাজনের পথ ছেড়ে সবাইকে একসঙ্গে চলার ডাক রাষ্ট্রপতির

বিভাজনের পথ পরিহার করে, হাতে হাত রেখে শান্তির পথে একসঙ্গে চলার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ‘ওয়ার্ল্ড পিস কনফারেন্স-২০২১’ উদ্বোধনকালে রাষ্ট্রপতি একটি শান্তিপূর্ণ, ন্যায়-সঙ্গত, অধিকার-ভিত্তিক, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও সমৃদ্ধ জাতি গঠনে বাংলাদেশের ‘অক্লান্ত প্রচেষ্টার’ কথা তুলে ধরেন রাষ্ট্রপতি। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) বিকালে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এই শান্তি সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমরা শান্তি বজায় রাখতে অত্যন্ত আন্তরিক এবং যে কোনো মূল্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা, বজায় রাখা ও জোরদার করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।’ আবদুল হামিদ বলেন, ‘দেশের সংবিধানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে, বাংলাদেশ বিশ্বাস করে যে, বিশ্বব্যাপী শান্তি বজায় থাকাই জাতীয় নিরাপত্তার জন্য সর্বোত্তম সুরক্ষা এবং আমরা শান্তিপূর্ণ উপায়ে সংঘাতগুলোর সমাধান করতে এবং বিশ্বব্যাপী শান্তি বজায় রাখতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখব।’

coverশীর্ষ খবর

বস্ত্রশিল্প দেশের অর্থনীতির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চালিকা শক্তি: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বস্ত্র মানুষের অন্যতম মৌলিক চাহিদা। বস্ত্রশিল্প বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চালিকা শক্তি। আগামীকাল শনিবার (৪ ডিসেম্বর) ‘জাতীয় বস্ত্র দিবস-২০২১’ উপলক্ষে শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) দেওয়া এক বাণীতে তিনি এসব কথা বলেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে এ খাতকে সুসংহত ও গতিশীল করার উদ্যোগ নেন। বর্তমানে দেশের মোট রফতানি আয়ের সিংহভাগ বস্ত্রশিল্প থেকে অর্জিত হচ্ছে। গ্রামীণ দারিদ্র্য বিমোচন, নারীর ক্ষমতায়ন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিতে বস্ত্র খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।’ রাষ্ট্রপতি বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় কর্তৃক ‘জাতীয় বস্ত্র দিবস ২০২১’ উদযাপনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, এবারের জাতীয় বস্ত্র দিবসের প্রতিপাদ্য ‘বস্ত্র খাতের বিশ্বায়ন, বাংলাদেশের উন্নয়ন’ বর্তমান প্রেক্ষাপটে যথাযথ হয়েছে।

coverশীর্ষ খবর

প্রতিবন্ধীরাও জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হবেন: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ‘সব ধরনের শারীরিক, মানসিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধিতা মানব বৈচিত্র্যেরই অংশ। প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে তাদের উন্নয়নের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করা খুবই জরুরি।’ রাষ্ট্রপতি শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) ‘৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস’ ও ‘২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘সমাজের অবিচ্ছেদ্য এ অংশকে সব নাগরিক সুযোগ-সুবিধা দিয়ে যথাযথ প্রশিক্ষণ ও তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞানের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারলে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরাও জাতীয় উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হবেন।’ রাষ্ট্রপতি বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ‘৩০তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস’ ও ‘২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস’ পালনের উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। দিবসটি উপলক্ষে আমি দেশের সব প্রতিবন্ধী ব্যক্তি, তাদের পরিবার এবং তাদের কল্যাণে নিবেদিত সংস্থা সংগঠনসমূহকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।

coverশীর্ষ খবর

ডিগ্রি যথেষ্ট নয়, আন্তজার্তিক মান অর্জন করতে হবে: রাষ্ট্রপতি

প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে একাডেমিক ডিগ্রির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মান অর্জনের আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি এম আবদুল হামিদ। বুধবার (১ ডিসেম্বর) রাষ্ট্রপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবার্ষিকী উদযাপনে ১৬ দিনব্যাপী আয়োজনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যেমন বেড়েছে, তেমনি এর পরিকাঠামো এবং শিক্ষা কার্যক্রমের পরিধিও বেড়েছে।” তিনি বলেন, “আধুনিক বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তির সুবিধার জন্য প্রতিযোগিতাকেও আন্তর্জাতিকীকরণ করা হয়েছে। তাই প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ডিগ্রির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মান অর্জন করতে হবে।” রাষ্ট্রপতি বলেন, “অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের উচ্চ আশা ও আকাঙ্খা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠান। দেশ ও জনগণ তাদের শিক্ষিত করার জন্য বিনিয়োগ করে। শিক্ষার্থীদের পরিবার, দেশ ও জনগণের আশা-আকাঙ্খা পূরণের ক্ষমতা অর্জন করতে হবে।”

cover

ঢাবির শতবর্ষ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করলেন রাষ্ট্রপতি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ। আজ বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে বঙ্গভবন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এদিকে বিশাল এ আয়োজন উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। চারদিনব্যাপী এ অনুষ্ঠান নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে আগামী ৪ ডিসেম্বর।

cover

করদাতাদের সময়মতো আয়কর প্রদানের আহ্বান রাষ্ট্রপতির

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে করদাতাদের সময়মতো আয়কর প্রদানের আহ্বান জানিয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ‘জাতীয় আয়কর দিবস-২০২১’ উপলক্ষে সোমবার (২৯ নভেম্বর) এক বাণীতে তিনি এ আহ্বান জানান। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উদ্যোগে ৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস পালিত হচ্ছে জেনে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন। এ উপলক্ষে তিনি সকল সম্মানিত করদাতা এবং কর বিভাগের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। এ বছর জাতীয় আয়কর দিবসের প্রতিপাদ্য— ‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, সবাই মিলে দেবো কর’ যথার্থ হয়েছে বলে রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘‘আয়কর কেবল রাজস্ব আহরণের প্রধান খাত নয়, এটি অর্থনৈতিক ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার একটি অন্যতম মাধ্যম। প্রত্যক্ষ কর বা আয়করকে পৃথিবীর সকল উন্নত রাষ্ট্রের প্রধান কর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। দেশ ‘রূপকল্প ২০২১’ বাস্তবায়নে সফলতার পথ ধরে ‘রূপকল্প ২০৪১’ বাস্তবায়নের মাধ্যমে সুখী-সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার পথে অগ্রসর হচ্ছে। ‘রূপকল্প ২০৪১’ বাস্তবায়নে অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণ বৃদ্ধির বিকল্প নেই।’’

cover

বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। শনিবার (২৭ নভেম্বর) ‘শহীদ ডা. মিলন দিবস’ উপলক্ষে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘আগামীকাল ২৭ নভেম্বর। শহীদ ডা. মিলন দিবস। ১৯৯০ সালের এই দিনে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে পুরোভাগে থাকা শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলন পুলিশের গুলিতে শাহাদতবরণ করেন।’ তিনি শহীদ ডা. মিলনসহ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে আত্মোৎসর্গকারী সকল শহীদকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতাবিরোধী ঘাতকচক্রের হাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের নৃশংসভাবে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশে স্বৈরশাসনের উত্থান ঘটে। শহীদ ডা. মিলনের মতো আরও অনেকের আত্মত্যাগের বিনিময়ে ১৯৯০ সালে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা লাভ করে। দেশের প্রতিটি গণতন্ত্রকামী মানুষ এসব বীর শহীদের অবদান চিরদিন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।’

coverশীর্ষ খবর

রাজনৈতিক দলগুলোকে পরমতসহিষ্ণু হতে হবে: রাষ্ট্রপতি

রাজনৈতিক দলগুলোকে সাম্প্রদায়িকতা, অগণতান্ত্রিকতা ও সহিংসতার বিরুদ্ধে ঐক্য গড়ে তোলার পাশাপাশি পরমতসহিষ্ণু ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের সংস্কৃতি গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিশেষ আলোচনার শুরুতে দেওয়া স্মারক ভাষণে রাষ্ট্রপতি এ আহ্বান জানান। রাষ্ট্রপতি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে প্রয়োজন ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে সবার মধ্যে ঐক্য। ঐক্য গড়ে তুলতে হবে সাম্প্রদায়িকতা, অগণতান্ত্রিকতা ও সহিংসতার বিরুদ্ধে। রাজনৈতিক দলসমূহকে পরমতসহিষ্ণুতা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের সংস্কৃতি গড়ে তুলতে হবে। তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের রক্তের ঋণ শোধ করতে দলমতের পার্থক্য ভুলে উন্নয়নের যাত্রায় শামিল হওয়ার আহ্বান জানাই। আসুন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমরা দল-মত-পথের পার্থক্য ভুলে, ধর্ম-বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে জাতির গণতান্ত্রিক অভিযাত্রা ও দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার মধ্য দিয়ে লাখো শহীদের রক্তের ঋণ পরিশোধ করি।

cover

ভাষণ দিচ্ছেন রাষ্ট্রপতি

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাধীনতার স্মারক ভাষণ দিচ্ছেন। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) বিকেল ৩টায় জাতীয় সংসদের অধিবেশন শুরুর পর তিনি ভাষণ শুরু করেন। রাষ্ট্রপতি সংসদ অধিবেশন কক্ষে প্রবেশের সময় বিউগলে আগমনী সুর বেজে ওঠে। সংসদ সদস্যরা দাঁড়িয়ে রাষ্ট্রপতিকে সম্মান জানান। এ সময় জাতীয় সংগীতের সুর বেজে ওঠে। পরে রাষ্ট্রপতি তার জন্য নির্ধারিত আসনে বসে স্মারক ভাষণ শুরু করেন। রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর সংসদে বিশেষ আলোচনার জন্য সংসদের ১৪৭ বিধিতে প্রস্তাব উপস্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংসদে ১৪৭ বিধিতে প্রস্তাবের ওপর সংসদ সদস্যরা দুই দিনব্যাপী বিশেষ আলোচনা শেষে বৃহস্পতিবার তা গ্রহণ করা হবে।

cover

সংসদের মুলতবি অধিবেশন বিকালে, স্মারক বক্তৃতা দেবেন রাষ্ট্রপতি

সংসদের মুলতবি অধিবেশন বসছে বিকালে। বুধবার বিকাল ৩টায় অধিবেশন শুরু হবে।স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে দুদিনব্যাপী এই অধিবেশনে আজ স্বারক বক্তৃতা দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। পরে সাধারণ প্রস্তাব উত্থাপন ও দুদিনের আলোচনা শেষে এ প্রস্তাব গ্রহণ করা হবে। গত বৃহস্পতিবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এ তথ্য জানান। স্পিকার বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ২০২১ সাল আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছি। বর্ণাঢ্য ও যথাযথ মর্যাদায় সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের জন্য বছরব্যাপী জাতীয়ভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ২৪ ও ২৫ নভেম্বর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে জাতীয় সংসদে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাষ্ট্রপতির বক্তৃতার পর প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা নিজে সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি ১৪৭ বিধির আওতায় প্রস্তাব উত্থাপন করবেন। এরপর বিশেষ আলোচনা হবে। যা ২৫ নভেম্বরও চলবে। দুদিনের এই আলোচনা শেষে প্রস্তাব গ্রহণ করা হবে।

cover

খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন

সংবিধানের ৪৯ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা বাতিল করে তাকে মুক্তি দিয়ে বিদেশে উন্নত চিকিৎসা গ্রহণের আদেশ দিতে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের কাছে আবেদন করেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের একাংশ। সোমবার পাঠানো আবেদনের বিষয়টি আজ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মির্জা আল মাহমুদ ও অ্যাডভোকেট এস এম জুলফিকার আলী জুনু। আবেদনে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্রপতি হিসেবে সাবেক একজন প্রধানমন্ত্রীকে নিঃশর্ত মুক্তি দিয়ে বিদেশে উন্নত চিকিৎসা গ্রহণের আদেশ দেওয়ার ক্ষমতা আপনার আছে। যে ক্ষমতা সংবিধান আপনাকে দিয়েছে। দেশের একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর জীবন রক্ষায় সংবিধানের ৪৯ অনুচ্ছেদ প্রয়োগ করে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সাজা বাতিল করে, বিদেশে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা গ্রহণ করে বাঁচার সুযোগ দিন।’

coverশীর্ষ খবর

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ-মালদ্বীপ একসঙ্গে কাজ করতে পারে: রাষ্ট্রপতি

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশ ও মালদ্বীপ একসঙ্গে কাজ করতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। বাংলাদেশ সফররত মালদ্বীপের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ফয়সাল নাসিম আজ মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে সাক্ষাৎ করতে গেলে রাষ্ট্রপতি এ আশা ব্যক্ত করেন। রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন গণমাধ্যমকে বলেন, বঙ্গভবনে মালদ্বীপের ভাইস-প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশ ও মালদ্বীপ এর মধ্যে চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বিদ্যমান এবং ক্রমান্বয়ে বাণিজ্য-বিনিয়োগসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তা সম্প্রসারিত হচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফরের উল্লেখ রাষ্ট্রপতি বলেন, এর মাধ্যমে দুদেশের সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। রাষ্ট্রপতি আশা করেন, মালদ্বীপের উপরাষ্ট্রপতির এ সফরের মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আগামীতে আরও সম্প্রসারিত হবে।

cover

বাংলাদেশের ইতিহাসে ২১ নভেম্বর একটি স্মরণীয় দিন: রাষ্ট্রপতি

বাংলাদেশের ইতিহাসে ২১ নভেম্বর একটি স্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে তিনবাহিনী সম্মিলিতভাবে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ওপর সর্বাত্মক আক্রমণ পরিচালনা করে। আজ রবিবার (২১ নভেম্বর) ‘সশস্ত্র বাহিনী দিবস’ উপলক্ষে দেওয়া এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে আমি বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সব সদস্যকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। সশস্ত্র বাহিনী দিবসে আমি পরম শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যার নেতৃত্বে দীর্ঘ ৯ মাস সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর আমরা চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করি। আমি গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছি সাতজন বীরশ্রেষ্ঠকে, যারা মাতৃভূমির জন্য জীবন উৎসর্গ করেছেন। আমি গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি মহান মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন সময়ে দেশ ও দেশের বাইরে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে আত্মোৎসর্গকারী সশস্ত্র বাহিনীর বীর সদস্যদের। আমি তাদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করি।


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021