Link copied.
বিজ্ঞান
cover

স্থগিত সাফ অ-১৬ নারী টুর্নামেন্ট

বিজ্ঞান
১ দিন আগে

করোনা ভাইরাসের ভালো প্রভাব পড়েছে দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবলে। মাস খানেক আগেই সাফ অ-১৯ নারী টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়েছে। এখন স্থগিত হলো সাফ অ-১৬ নারী টুর্নামেন্ট। আগস্টের শেষ সপ্তাহে হওয়ার কথা ছিল এই আসর। অ-১৯ নারী টুর্নামেন্টের স্বাগতিক বাংলাদেশ হলেও অ-১৬’র কোনো স্বাগতিক ছিল না। বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন এই স্থগিতের সিদ্ধান্তকে স্বাভাবিক হিসেবেই দেখছেন, ‘সাফের অনূর্ধ্ব পর্যায়ে আমাদের সাফল্য রয়েছে। পরিস্থিতি অনুকূলে হলে আশা করি এই টুর্নামেন্টগুলো হবে। আমরা সেই অপেক্ষায় আছি।’

coverফিচার

সুপার-এজার: সময় প্রবাহকে প্রতিহত করে যাদের মস্তিষ্ক অবিশ্বাস্যভাবে তারুণ্যের স্মৃতি ধরে রাখে!

বিজ্ঞান
১ দিন আগে

সুপার-এজার নামে পরিচিত বিরল একদল লোক আছেন, যাদের সময়ের সাথে বয়স ও বৃদ্ধি ঘটলেও তাদের মন থেকে যায় চিরযৌবন। এমনকি তাদের বয়স ৫০, ৬০ কিংবা ৭০, ৮০ বছর পেরোলেও এমন অনেক ভাগ্যবান আছেন যাদের মস্তিষ্ক অবিশ্বাস্যরকমভাবে তারুণ্যের স্মৃতি বজায় রাখে, নতুন অভিজ্ঞতা, ঘটনা এবং পরিস্থিতি এবং সেইসাথে দশকের চেয়েও কম বয়সী লোকদের মতো স্মরণশক্তি ধরে রাখে। নতুন অনেক গবেষণা এখন পরামর্শ দেয় এরকমটা ঘটার কারণ তাদের মস্তিষ্ক সময়ের পদযাত্রাকে প্রতিহত করেছে।

বিস্তারিত পড়ুন
coverফিচার

আধুনিক মানুষের প্রাচীন নিকটাত্নীয় ‘নিয়ান্ডারথাল’: বিলুপ্ত রহস্য উন্মোচনে বিজ্ঞানী মতামত

বিজ্ঞান
১৫ দিন আগে

কোন একটি কারণ নয় বরং বিভিন্ন কারণে নিয়ান্ডারথালদের বিলুপ্তি ঘটেছিল বলে ধারণা বিজ্ঞানীদের। মনে করা হয় তাদের বিলুপ্তির পেছনের সবচেয়ে বড় কারণ হল হোমো সেপিয়েন্সরা। হোমো সেপিয়েন্স এবং নিয়ান্ডারথালরা একসময় পৃথিবীতে সহাবস্থানে ছিল। শিকার এবং উন্নত অস্ত্র-শস্ত্র তৈরির ফলে সেপিয়েন্সদের সাথে প্রতিযোগিতা শুরু হয় নিয়ান্ডারথালদের। তাছাড়াও প্রজননের দিক দিয়েও হোমো সেপিয়েন্সরা ছিল এগিয়ে যার ফলে ধীরে ধীরে তাদের সংখ্যা বাড়তে থাকে এবং নিয়ান্ডারথালদের বাসস্থান সংকট দেখা দেয়। এমনকি জেনেটিক্যালিও নিয়ান্ডারথালরা ছিল হোমো সেপিয়েন্সদের থেকে দূর্বল। মোটা দাগে বিলুপ্তির অন্যতম আরেকটি কারণ রয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন
cover

সাইবার অপরাধের শিকার ৭২ ভাগ প্রতিকার পান না: গবেষণা

দেশে সাইবার অপরাধের শিকার ব্যক্তিদের মাত্র ২২ শতাংশ ভুক্তভোগী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীতে অভিযোগ করে আশানুরূপ ফল পেয়ে থাকেন। ৭২ শতাংশ ভুক্তভোগী অভিযোগ করেও কোনো ফল পান না। অবশ্য সাইবার অপরাধের শিকার হয়েও মাত্র ২১ দশমিক ৪৩ শতাংশ ব্যক্তি আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ করে থাকেন। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশনের (সিসিএ ফাউন্ডেশন) 'বাংলাদেশে সাইবার অপরাধ প্রবণতা-২০২১' শীর্ষক গবেষণা প্রতিবেদনে এ চিত্র উঠে আসে। সংগঠনটি গতকাল শুক্রবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ১৬৮ জনের ওপর চালানো জরিপের ভিত্তিতে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। তাদের সবাই ২০১৯-২০ সালে সাইবার অপরাধের শিকার হয়েছিলেন। শুক্রবার সংগঠনটির ষষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আয়োজিত এক ওয়েবিনারে সিসিএ ফাউন্ডেশনের রিসার্চ সেলের আহ্বায়ক ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সিনিয়র প্রভাষক মনিরা নাজমি জাহান এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন।

cover

যে প্রাণীর ২৪ বছর পর ঘুম ভাঙায় হতবাক বিজ্ঞানীরা!

এক ধরনের কচ্ছপ ৩-৪ বছর ঘুমিয়ে কাটায়। শীতকালে সাপ-ব্যাঙের ঘুমের কথা তো সকলেরই জানা। তেমন কিছু মাছও না খেয়ে ঘুমিয়ে কাটাতে পারে বহু দিন। কিন্তু তাই বলে টানা ২৪ হাজার বছর! গবেষকদের চমকে দিয়ে এই ক্ষুদ্রাকার প্রাণীর ঘুম ভাঙল ২৪ হাজার বছর পর। এত দিন জীবন-মৃত্যুর মধ্যবর্তী দশায় ছিল সেটি। সম্প্রতি সুদূর উত্তরে সাইবেরিয়ার আলাজেয়া নদীর কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে এই প্রাণীর হদিস পান বিজ্ঞানীরা। এই জীবটি রটিফার প্রজাতির। এক ধরনের আনুবীক্ষণিক জীব। বহুকোষী এই জীবটির ব্যতিক্রমী ক্ষমতা রয়েছে। এই জীবটি ১৬৯৬ সালে প্রথম খুঁজে পান জন হ্যারিস। জীবটি সর্বোচ্চ অর্ধ মিলিমিটার দীর্ঘ হতে পারে। মূলত স্বাদু পানিতেই এদের দেখা মেলে। এদের মুখের কাছে চাকার মতো অংশ থাকায় হুইল জীবও বলা হয়।

coverফিচার

খাবারে উচ্চ মাত্রার কীটনাশক ব্যবহারে স্বাস্থ্যগত যে ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করে!

বিজ্ঞান
১ মাস আগে

সমীক্ষায় দেখা গেছে, আর্নোফসফেটের সংক্রমণের উল্লেখযোগ্য পরিমাণের জন্য হরমোনজনিত ক্যান্সার যেমন স্তন, থাইরয়েড এবং ডিম্বাশয়ের ক্যান্সারের উচ্চ ঝুঁকি ছিল। মানুষ, প্রাণী এবং টেস্ট-টিউব স্টাডির আরেকটি পর্যালোচনার অনুরূপ অনুসন্ধানে দেখা গেছে যে ম্যালাথিয়ন, টার্বুফোস এবং ক্লোরপাইরিফোসের মতো অর্গানোফসফেট কীটনাশকগুলির সংস্পর্শে সময়ের সাথে সাথে স্তন ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি বাড়তে পারে। কিছু গবেষণায় আরও দেখা গেছে যে কীটনাশক ব্যবহার প্রস্টেট, ফুসফুস এবং যকৃতের ক্যান্সার সহ বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সারের ঝুঁকির সাথে যুক্ত।

বিস্তারিত পড়ুন
cover

কেনো স্বপ্ন মনে থাকে না?

বিজ্ঞান
১ মাস আগে

আমরা ভুলে যাই গতকাল রাতে দেখা স্বপ্নগুলো। কেন এমনটা হয়? কেন মনে থাকে না রাতের দেখা স্বপ্ন? বিশেষজ্ঞরা যা বলছেন, আমরা আমাদের জীবনের এক তৃতীয়াংশ সময় ঘুমিয়ে থাকি। আর সেই ঘুমন্ত সময়ের ২৫ শতাংশ আমরা স্বপ্ন দেখি। মূলত আমরা ঘুমের REM বা Rapid Eye Movement স্টেজে স্বপ্ন দেখি। এই পর্যায়ে আমাদের অক্ষিগোলক শুধু নড়াচড়া করে, শরীরের বাকি অংশ স্থির থাকে। শরীরের বাকি অংশ স্থির থাকে বলেই আমরা যখন স্বপ্ন দেখি তখন আমাদের শরীর রিঅ্যাক্ট করে না। এমনটা না হলে ঘুমের মধ্যেই হয়ত আমরা বিছানা থেকে ঝাঁপ মারতাম অথবা ছুটে চলে যেতে চাইতাম সূর্যের দিকে। তবে আমরা যে সবসময় REM স্টেজেই স্বপ্ন দেখি তা নয়। REM স্টেজের মনে রাখার ক্ষমতা কম থাকে তাই আমরা এই সময়ে দেখা স্বপ্ন ভুলে যাই। মানুষের মাথা কম্পিউটারের মতোই কাজ করে। তা নিজেই বেছে নেয় কোন তথ্য মনে রাখতে হবে আর কোন তথ্য ডিলিট করে দিলে চলবে। স্বপ্নের ক্ষেত্রেও এমনটা হয়।

cover

নোবেলজয়ী রসায়নবিদ নেগিশি আর নেই

বিজ্ঞান
১ মাস আগে

ওষুধ ও ইলেকট্রনিক্স উৎপাদনে যৌগিক রাসায়নিক পদার্থ তৈরির একটি পদ্ধতি আবিষ্কারের জন্য ২০১০ সালে নোবেল পুরস্কার পাওয়া জাপানের রসায়নবিদ ই-আইচি নেগিশি আর নেই। তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর। শুক্রবার ইন্ডিয়ানা অঙ্গরাজ্যের পারডু বিশ্ববিদ্যালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, তিনি গত রোববার মারা গেছেন। খবর এনডিটিভির। পারডু বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন নেগিশি। ১৯৭৯ সাল থেকে তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগে অধ্যাপনা করছিলেন। ২০১০ সালে জাপানি আকিরা সুজুকি ও মার্কিন রিচার্ড হেকের সঙ্গে যৌথভাবে রসায়নবিজ্ঞানে নোবেল পান ই-আইচি নেগিশি। আকিরা সুজুকি জাপানের হোক্কাইদো বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়নের অধ্যাপক। আর যুক্তরাষ্ট্রের ডেলওয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়নবিজ্ঞানের অধ্যাপক রিচার্ড হেক। ১৯৩৫ সালের ১৪ জুলাই চীনের মাঞ্চুরিয়ায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন ই-আইচি নেগিশি।

cover

মহাকাশে শুক্রাণু থেকে ইঁদুর ছানার জন্ম!

শুক্রাণুতে মহাকাশের বিকিরণের কোনো প্রভাব পরে কিনা জানার জন্য ৬ বছর মহাকাশে সংরক্ষণ করা হয়েছিল ইঁদুরের শুক্রাণু। সুস্থ স্ত্রী ইঁদুরের ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করতে ব্যবহার করা হয় মহাকাশ ফেরত ওই শুক্রাণু। দেখা যায়, মহাকাশ ফেরত শুক্রাণু থেকে ১৬৮টি সম্পূর্ণ সুস্থ ইঁদুর ছানার জন্ম হয়েছে। সায়েন্স অ্যাডভান্সেস জার্নালে শুক্রবার এই গবেষণার প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। হিন্দুস্থান টাইমস শনিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২০১৩ সালে ইঁদুরের শুক্রাণু সংরক্ষণ করে পাঠানো হয় আন্তর্জাতিক মহাকাশ কেন্দ্রে। সেখানে ৬ বছর রাখার পর তা স্পেস-এক্স এর যানে পৃথিবীতে ফিরে আসে। এ ব্যাপারে এই গবেষণার প্রধান গবেষক তেরুহইকো ওয়াকাইয়ামা জানান, জাপানের ইয়ামানাশি ইউনিভার্সিটির তরফ থেকে মোট ৩ বাক্স ইঁদুরের শুক্রাণু মহাকাশে প্রেরণ করেন তারা। তাতে মোট ৪৮টি অ্যাম্পুল ছিল। গবেষক জানান, ভবিষ্যতে আরও দূরে, বহু সময় ধরে মহাকাশযাত্রা করবে মানুষ।

coverফিচার

বিরল এক রোগ ‘অটো-ব্রিউরি সিন্ড্রোম’: জেনে নিন রোগটির লক্ষণ ও প্রতিকারের উপায়

ঘন ঘন বা দীর্ঘমেয়াদে অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার অন্ত্রের মাইক্রোবায়োমে পরিবর্তন আনতে পারে, ফলে ছত্রাকের ঘনত্ব বৃদ্ধি পায়। ডায়েটে উচ্চমাত্রার কার্বোহাইড্রেট এবং প্রক্রিয়াজাত খাবার গ্রহণের ফলেও গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সমস্যা হতে পারে। গবেষণার বিশ্বস্ত সূত্র দেখায় যে অটো-ব্রিউরি সিন্ড্রোমযুক্ত লোকেরা প্রায়শই "উচ্চমাত্রার চিনি, উচ্চ শর্করাযুক্ত খাদ্য" গ্রহণ করেন বলে জানান।

বিস্তারিত পড়ুন
cover

কর্মক্ষেত্রে পরকীয়ায় অধিকাংশ নারীর পরিণতি হয় ভয়ঙ্কর: গবেষণা

কর্মক্ষেত্রে পরকীয়া কিংবা সম্পর্কে জড়ালে সেটা প্রত্যেকের জন্যই খারাপ ফল বয়ে আনে, তবে নারীদের জন্য এটা আরও খারাপ ফল বয়ে আনে। পুরুষদের জন্য চাকরি টিকিয়ে রাখা তুলনামূলক সহজ, তারা স্ত্রী এবং পরকীয়া প্রেমিকের মধ্যে পার্থক্য রাখেন। পুরুষ যৌন মিলনকে শুধুমাত্র যৌন মিলন বলেই মনে রাখতে পারে কিন্তু নারীরা মানসিকভাবে বেশি জড়িয়ে পড়েন। কর্মক্ষেত্রে পরকীয়ায় জড়ালে আপনার সম্মানের সঙ্গে চাকরি এবং আপনার বৈবাহিক জীবনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সাম্প্রতিক এক গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতি চারজন কর্মীর একজন তার সহকর্মীর সঙ্গে জীবনের কোনো এক সময় সম্পর্কে জড়ান এবং প্রতি ১০ জনের একজন কর্মক্ষেত্রে যৌন মিলনও করেন। তবে এমন সম্পর্কে যারা জড়িয়ে পড়েন বিশেষ করে নারীদের ক্ষেত্রে এর ফলাফল খুবই খারাপ হয়।

coverফিচার

বজ্রপাতে কীভাবে বিশ্বে প্রতি বছর ২৪ হাজার মানুষের মৃত্যু ঘটে?

বিজ্ঞান
১ মাস আগে

প্রতি বছর গড়ে বিশ্বে প্রায় ১.৪ বিলিয়ন বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। মৃত্যু হয় প্রায় ২৪ হাজার মানুষের৷ বজ্রপাত আবহাওয়ার একটি সাধারণ ঘটনা হলেও সাম্প্রতিক সময়ে বজ্রপাতে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্ট স্টেট ইউনিভার্সিটির ডিপার্টমেন্ট অব জিওগ্রাফির অধ্যাপক ড. টমাস ডাব্লিউ স্মিডলিনের ‘রিস্কফ্যাক্টরস অ্যান্ড সোশ্যাল ভালনারেবিলিটি’ নামের এক গবেষণা থেকে পাওয়া তথ্য বলছে, ‘বজ্রপাতে বছরে বাংলাদেশে দেড়’শ এর মতো লোকের মৃত্যুর খবর সংবাদমাধ্যম প্রকাশ করলেও প্রকৃতপক্ষে এই সংখ্যা ৫০০ থেকে ১ হাজার৷’ কিন্তু কীভাবে বজ্রপাতে এতো মানুষের মৃত্যু ঘটে?

বিস্তারিত পড়ুন
cover

স্যালাইন দিয়েই করোনা পরীক্ষা তিন ঘণ্টায় ফল

স্যালাইন দিয়ে আরো সহজে করা যাবে করোনা পরীক্ষা। বর্তমানে যে আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা পরীক্ষা করা হয়, তার চেয়ে নতুন উদ্ভাবিত এই পদ্ধতি অনেক সহজ। কোনো প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীর প্রয়োজন পড়বে না এতে। বর্তমান পদ্ধতিতে নাক ও গলা থেকে নমুনা সংগ্রহের সময় অনেকেরই সমস্যা হয়। নতুন পদ্ধতিতে এই সমস্যাও হবে না। মুখে নিয়ে কুলি করা স্যালাইনের পানি থেকেই তিন ঘণ্টার মধ্যে করোনা পরীক্ষার ফল পাওয়া সম্ভব। নতুন এই পদ্ধতির উদ্ভাবক নাগপুরের এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানী কৃষ্ণ খৈরনারের নেতৃত্বাধীন একদল বিজ্ঞানী। নতুন পদ্ধতিকে অনুমোদনও দিয়েছে আইসিএমআর।

cover

বিজ্ঞানীদের নতুন প্রজাতির “চকলেট ব্যাঙ” আবিষ্কার

এক বিরলধর্মী নতুন প্রজাতির “চকলেট ব্যাঙ” আবিষ্কার করেছে অস্ট্রেলিয়ার এক বিজ্ঞানী দল। নিউ গিনির নিম্নভূমির একটি গাছের শাখায় ব্যাঙটি আবিষ্কার করেন তারা। সাধারণত গাছের ব্যাঙগুলো সবুজ ত্বকের জন্য পরিচিত তবে এই ব্যাঙটি বাদামী বর্ণের কারণে গবেষকরা এর নাম দিয়েছেন "চকোলেট ব্যাঙ"। অস্ট্রেলিয়ান জার্নাল অফ জিওলজি জার্নালের একটি গবেষণাপত্রে এই আবিষ্কারের বর্ণনা দিয়েছে  প্ল্যানেটারি হেলথ অ্যান্ড ফুড সিকিউরিটির সেন্টার পল অলিভার এবং কুইন্সল্যান্ড জাদুঘর। ২.৬ মিলিয়ন বছর আগে একসময় বেশিরভাগ সময়জুড়ে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউ গিনি স্থলভাগের সাথে যুক্ত ছিল তবে এখন, নিউ গিনি রেইন ফরেস্টের আধিপত্য বজায় রয়েছে। উত্তর এবং পূর্ব অস্ট্রেলিয়া এবং নিউ গিনি জুড়ে সবুজ গাছের ব্যাঙ পাওয়া যায়। তবে নতুন প্রজাতির ব্যাঙটির গা জুড়ে রয়েছে চকলেট রং।

cover

করোনাভাইরাস শনাক্ত করা যাবে এক মিনিটে!

করোনাভাইরাস শনাক্ত করা যাবে মাত্র এক মিনিটে। সিঙ্গাপুরের এক স্টার্টঅ্যাপ প্রতিষ্ঠান দ্রুত করোনা শনাক্ত করার এ নতুন প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে। এমনকি সাময়িকভাবে এ পরীক্ষার অনুমোদনও দিয়েছে দেশটি। কোনো ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কি-না, শ্বাসযন্ত্রের মাধ্যমে পরীক্ষায় সেটি শনাক্ত করা সম্ভব হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুরের (এনইউসি) অধীনে ব্রিদোনিক্স নামে একটি স্টার্টঅ্যাপ প্রতিষ্ঠান এ প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে। মালয়েশিয়া সীমান্তের কাছের একটি শহরে এ প্রযুক্তি পরীক্ষা করে দেখা হবে। এ ব্যাপারে সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কাজ করছে ব্রিদোনিক্স। করোনা শনাক্তে সিঙ্গাপুরে অ্যান্টিজেন র্যা পিড টেস্ট অনুসরণ করা হয়। এর পাশাপাশি শ্বাসযন্ত্রের মাধ্যমে নতুন করোনা পরীক্ষা পদ্ধতিও ব্যবহার করা হবে। করোনার এ নতুন পরীক্ষার অনুমোদনের বিষয়টি সিঙ্গাপুরের দ্য হেলথ সায়েন্সেস অথরিটির ওয়েবসাইটে নিশ্চিত করা হয়েছে।


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021