Link copied.
চুয়াডাঙ্গা
cover

পরকীয়া প্রেমের জন্য নানার ঘাড়ে বিষ পুশ করেন নাতনি কামনা খাতুন

চুয়াডাঙ্গায় পরকীয় প্রেমের জন্য ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে বিষ প্রয়োগ করে শামসুল শেখ নামে এক বৃদ্ধকে খুন করেছে বলে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে নাতনি কামনা খাতুন। সোমবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে রোববার (৫ ডিসেম্বর) কামনা খাতুন তার প্রেমিক রাশেদকে জড়িত করে ১৬৪ ধারায় চুয়াডাঙ্গা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইদুল ইসলামের আদালতে নানা শামসুল শেখকে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। পরে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এদিকে শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় কামনাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় ডাকে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করলে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, সাবেক স্বামী জাহিদ হাসানের সঙ্গে তালাকের আগেই কামনা খাতুন (২০) রাশেদের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। সেই সম্পর্কের কথা জেনে যান নানা। পরে রাশেদের বুদ্ধিতেই ঘুমন্ত নানার ঘাড়ে কীটনাশক পুশ করেন কামনা। নানা উঠেই রাশেদকে দেখে ফেলেন।

cover

যুবকের প্যান্টের পকেটে ১২ সোনার বার

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় ১২টি স্বর্ণের বারসহ মো. শাহবুল (৪৪) নামে এক যুবককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। গতকাল সোমবার (২৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার মেদেনীপুর গ্রামের শেষ প্রান্তে খালপাড়া ব্রিজের ওপর থেকে স্বর্ণের চালানসহ ওই যুবককে আটক করা হয়। আটক মো. শাহবুল উপজেলার মেদেনীপুর গ্রামের আলী আহাম্মদের ছেলে। ৫৮ ব্যাটালিয়ন বিজিবি সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় চোরাচালানবিরোধী অভিযান চালান জীবননগর উপজেলার মেদেনীপুর বিওপির নায়েক নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে ৪ সদস্যবিশিষ্ট টহল দল। অভিযান পরিচালনা করার সময় এক ব্যক্তি মোটরসাইকেল নিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় বিজিবি সদস্যরা তাকে আটক করে। এর পর তল্লাশি করে তার পকেট থেকে কসটেপ দিয়ে মোড়ানো ১২টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়; যার ওজন এক কেজি ৩৯৭ গ্রাম। এ ব্যাপারে পলাতক আরও দুজনকে আসামি করে জীবননগর থানায় মামলা করা হয়। তারা হলো- ওয়াসিম মিয়া ও রাশেদ।

cover

মাদক মামলায় হাজিরা শেষে মাদক বিক্রি, ফের গ্রেপ্তার

মাদক মামলায় হাজিরা দিতে জয়পুরহাটে এসেছিলেন মাদক মামলার দুই আসামি বাদল শেখ ওরফে মাজেদ শেখ এবং মিদুল ওরফে সাইফুল ইসলাম। কিন্তু হাজিরা শেষে তারা আবারও ফেরেন মাদক হাতে। সেই মাদক বিক্রি করতে গিয়েই গ্রেপ্তার হলেন পুলিশের হাতে। চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার রেল স্টেশনের সামনে রেলওয়ে জামে মসজিদের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন। তিনি জানান, মাজেদ ও সাইফুল উভয়েই মাদক মামলার আসামি। একটি মামলার হাজিরা দিতে তারা গিয়েছিলেন জয়পুরহাট। হাজিরা শেষে তারা আবার চুয়াডাঙ্গা ফিরেন মাদক নিয়ে। বাড়ি ফেরার পরিবর্তে তারা আবারও মাদক বিক্রি শুরু করেন পথে। সকাল ১০ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে জামে মসজিদের সামনে মাদক বিক্রির সময় মাজেদ ও সাইফুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে এসময় আরও দুইজন পালিয়ে যায়। তাদের কাছ থেকে ১০টি বুপ্রেনরফিন ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়।

cover

নববধূকে নিয়ে ফেরার পথে চলন্ত গাড়ি থেকে বরের লাফ

চুয়াডাঙ্গায় চলন্ত মাইক্রোবাস থেকে লাফ দিয়ে বোরহান উদ্দিন (২১) নামে এক সদ্য বিবাহিত যুবক আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল রোববার (২৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়ার কিছুক্ষণ পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরিবারের সদস্যরা জানান, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ইব্রাহিমপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের মেয়ে পপি খাতুনের সঙ্গে বোরহান উদ্দিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ২৭ নভেম্বর দুই পরিবারের অগচরে তারা বিয়ে করেন। এর পর সদ্য বিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে মেহেরপুর সদর উপজেলার সিংহাটি গ্রামে বোরহান উদ্দিনের চাচাতো বোনের বাসায় গিয়ে ওঠেন তারা। পরে বিয়ে মেনে না নিয়ে তার বাবা তাকে আনতে যায় ওই বাড়িতে। স্ত্রীকে রেখে একা বাড়িয়ে যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন বোরহান। এরপর মাইক্রোবাসে নববধূ পপি খাতুনকে নিয়ে তার বাবা নতুন দরবেশপুর গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। যাওয়ার পথে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কুলপালা নামক স্থানে পৌঁছলে চলন্ত মাইক্রোবাসের জানালা থেকে লাফ দেন বর বোরহান। এ সময় সামনে থেকে আসা একটি ট্রাকের পেছনের চাকায় পিষ্ট হন তিনি।

cover

চুয়াডাঙ্গায় তিন মাসের বাছুরের মূল্য ২ লাখ টাকা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় নেপালি জাতের একটি বাছুর ২ লাখ টাকায় বিক্রি বিক্রি করে রীতিমতো সাড়া ফেলেছেন ঐ উপজেলার বয়রা গ্রামের লাল্টু মল্লিক। তরুণ উদ্যোক্তা লাল্টু মল্লিক ঐ গ্রামের জিয়ারত মল্লিকের ছেলে। এত দামে বাছুর বিক্রির ঘটনায় এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। বাছুরটি দেখতে ভিড় জমাচ্ছে উৎসুক জনতা। লাল্টু মল্লিক বলেন, ২০ বছর ধরে নেপালি জাতের একটি গাভি লালন-পালন করছি। সম্প্রতি গাভিটি একটি বাছুর প্রসব করে। বর্তমানে বাছুরের বয়স সাড়ে তিন মাস। গত শনিবার ২ লাখ টাকায় বছুরটি কেনেন পার্শ্ববর্তী চাঁদপুরের ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম। বাছুরটি এখনো লাল্টু মল্লিকের বাড়িতেই আছে। এক মাস পর সেটি নিয়ে যাবেন ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর। প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান বলেন, তরুণ উদ্যোক্তা লাল্টুর সাফল্যের কথা আমি শুনেছি। খামার উন্নয়নে তাকে সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে। তার মতো কেউ গরুর খামার করতে চাইলে সহযোগিতা করা হবে।

cover

অতিরিক্ত পানি দিয়ে গোসলে নিষেধ করায় মাকে পিটিয়ে হত্যা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনায় অতিরিক্ত পানি দিয়ে গোসল করতে নিষেধ করায় মা কদেবানু বেগমকে (৭০) পিটিয়ে হত্যা করেছে ছেলে ইদ্রিস আলী (৩৫)। আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দর্শনা পৌর এলাকার শ্যামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত কদেবানু হলেন শ্যামপুর গ্রামের জামাল মল্লিকের স্ত্রী। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার সকালে দর্শনা শ্যামপুরে নিজ বাড়ির গোসলখানার টিউবয়েলে গোসল করছিল ছেলে ইদ্রিস আলী। এ সময় তার মা কদেবানু বেগম অতিরিক্ত পানি দিয়ে গোসল করতে নিষেধ করায় ক্ষুব্ধ হয় ছেলে। একপর্যায়ে মায়ের মাথায় বাঁশের তৈরি লাঠি (বালিধারা) দিয়ে আঘাত করে ইদ্রিস। এতে মারাত্মকভাবে জখম হন কদেবানু বেগম। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি লুৎফুল কবীর জানান, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ছেলে ইদ্রিস আলীকে আটক করা হয়েছে।

coverশীর্ষ খবর

১০ মাসে চুয়াডাঙ্গায় ২৯৬ জনের আত্মহত্যা

দেশের বিভিন্ন জেলায় নানা কারণের আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ছে। মাত্র ১০ মাসে চুয়াডাঙ্গা জেলায় ২৯৬ জন আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। জানা যায়, দশম শ্রেণির এক ছাত্রকে বিয়ে করতে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে একই শ্রেণির এক ছাত্রী। চলতি মাসের ১৬ নভেম্বর চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দশমী পাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। একই মাসে ১৫ নভেম্বর স্বামীর ওপর অভিমান করে শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান এক গৃহবধূ। ১৫ অক্টোবর চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার জোয়ার্দ্দারপাড়ায় নিজ বাড়ি থেকে এক তরুণীর (১৮) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পছন্দের ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেওয়ায় তিশা আত্মহত্যা করে বলে জানায় পরিবারের সদস্যরা। জেলা পুলিশের তথ্যানুযায়ী ২০২১ সালের ১০ মাসে এখন পর্যন্ত ২৯৬ জনের বেশি মানুষ আত্মহত্যা করেছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশ কিশোর ও তরুণ বয়সের। যাদের বয়স ১৫ থেকে ২২ বছর। আর প্রেমের ঘটনায় অধিকাংশ আত্মহত্যা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

coverশীর্ষ খবর

অনলাইন জুয়ায় এক জেলাতেই দিনে ৫ কোটি টাকা লেনদেন: সিআইডি

অনলাইনে জুয়ার নামে দেশের এক জেলাতেই দিনে অন্তত তিন থেকে পাঁচ কোটি টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অবৈধভাবে লেনদেন হচ্ছে বলে তথ্য পেয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। রোববার দুপুরে সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। সিআইডির পক্ষ থেকে বলা হয়, চুয়াডাঙ্গা জেলায় ৫০ জন মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের তথ্য পাওয়া গেছে, যেসব নম্বরে অনলাইন জুয়ার টাকা লেনদেন হচ্ছে। নম্বরগুলোর মধ্যে অন্তত ১৫টিতে দিনে ১০ লাখ টাকার ওপরে লেনদেন করছে জুয়াড়ি চক্র। পরে এই টাকা হুন্ডি বা অবৈধ ব্যাংকিং চ্যানেলে পাচার হচ্ছে বলে ধারণা সিআইডির। গ্রেপ্তারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে কামরুল আহসান বলেন, একটি জেলায় ৫০ জন এজেন্টের তথ্য পাওয়া গেছে।

cover

খাওয়ার সময় তর্কাতর্কি: মাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা!

গ্রেফতারপুলিশ
২৩ দিন আগে

চুয়াডাঙ্গায় মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে মুকুল হোসেন। ঘটনার পর অভিযুক্ত ছেলে মুকুলকে আটক করেছে পুলিশ শনিবার (১৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার পদ্মবিলা ইউনিয়নের পিরোজখালী গ্রামে মা জবেদা খাতুনকে (৪৫) এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যার এ ঘটনা ঘটে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত জবেদা খাতুন পিরোজখালী কাজিপাড়া এলাকার আসান আলীর স্ত্রী। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার বিকেলে মায়ের সঙ্গে খাবার খেতে বসেন মুকুল হোসেন। এ সময় কোনো কারণে খাবার খাওয়াকে কেন্দ্র করে মায়ের সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়। এতে উত্তেজিত হয়ে মাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেন মুকুল। পরে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই তার মায়ের মৃত্যু হয়।

cover

চুয়াডাঙ্গায় দুই বান্ধবীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় সপ্তম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে আলমডাঙ্গা থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা। মামলায় মো. আশিক (১৭) ও মো. নিশান (১৭) নামের দুই কিশোরকে আসামি করা হয়েছে। ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, ৪ মাস আগে আলমডাঙ্গার প্রাগপুর গ্রামের সপ্তম শ্রেণির দুই ছাত্রীর সাথে পাশের ওসমানপুর গ্রামের ইয়াকির আলীর ছেলে আশিক ও আনারুল ইসলামের ছেলে নিশানের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। গত রবিবার রাত ৮টার দিকে নিশান দু’বান্ধবীকে মোটরসাইকেলে নিয়ে যায় মাঠের ভিতর। সেখানে পূর্ব থেকে অবস্থান করছিল আশিক। এসময় বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে দু’বন্ধু তাদের দুই প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে। পরে তাদেরকে বাড়ি পৌঁছে দিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে আশিক। ওসি আরও জানান, ভিকটিমদের ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

cover

স্কুলপ্রাঙ্গণে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে হত্যা!

চুয়াডাঙ্গায় স্কুলের বিদায় অনুষ্ঠান শেষে স্কুলপ্রাঙ্গণেই মাহবুবুব রহমান তন্ময় (১৭) নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বহিরাগত দুর্বৃত্তরা। রবিবার বেলা ১২টার দিকে শহরের আল হেলাল মাধ্যমিক ইসলামী একাডেমিতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত স্কুলছাত্র পৌর এলাকার ফার্মপাড়ার আব্দুল মজিদের ছেলে। বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রিপন আলী জানান, ‘এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষকরা অফিস কক্ষে ফিরে আসেন। পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণের প্রস্তুতি চলছিলো। অন্য শিক্ষার্থীদের আর্তচিৎকারে বাইরে গিয়ে ওই ছাত্রকে স্কুলপ্রাঙ্গণে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সাথে সাথে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয় শিক্ষকরা।’ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বহিরাগত তিন যুবক ধারালো অস্ত্র নিয়ে স্কুলের মধ্যে প্রবেশ করে। এসময় তারা তন্ময়কে অতর্কিতে কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

cover

চুয়াডাঙ্গায় ‘৪০ লাখ’ টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় প্রায় ৪০ লাখ টাকা দামের ছয়টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলার হরিহরনগর গ্রামের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এগুলো উদ্ধার করা হয় বলে জীবননগর থানার ওসি আব্দুল খালেক জানান। তিনি বলেন, গোপন খবরের ভিত্তিতে রাত ৮টার দিকে পুলিশ হরিহরনগর গ্রামের জেলেপাড়ায় শাহার আলীর ছেলে আব্দুল হান্নানের বাড়ি ঘিরে ফেলে। পরে আব্দুল হান্নানের স্ত্রী চায়না খাতুনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী পুলিশ তল্লাশি করে টেলিভিশনের নিচ থেকে ছয়টি সোনার বার উদ্ধার করে। ” এর দাম ৩৯ লাখ ৫১ হাজার ৭৫০ টাকা।” এ ব্যাপারে রাতেই থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ, জানিয়েছেন ওসি আব্দুল খালেক।

cover

গলায় মার্বেল আটকে শিশুর মৃত্যু

চুয়াডাঙ্গায় গলায় মার্বেল আটকে সোয়াইদ হোসেন (১) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সদর উপজেলার বেলগাছী গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সে বেলগাছী গ্রামের রাজমিস্ত্রি সোহাগ আলীর ছেলে।পরিবারের সদস্যরা জানান, সন্ধ্যায় মার্বেল নিয়ে খেলছিল শিশু সোয়াইদ। এ সময় সে একটি মার্বেল মুখে দিলে তা গলায় আটকে যায়। পরে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাদিয়া আক্তার বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই শিশুটি মারা গেছে।

cover

মাংস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে নববধূকে তালাকের পর ফের বিয়ে

বিয়ের অনুষ্ঠানে মাংস বেশি খাওয়ায় বরপক্ষের লোকজনকে মারধরের অভিযোগে নববধূকে তালাক দেওয়ার পর আবারও বিয়ে করেছেন বর। জানা গেছে, রোববার চুয়াডাঙ্গার সদর উপজেলার বদরগঞ্জ দশমিপাড়ার রহিম আলীর ছেলে সবুজের সঙ্গে একই এলাকার নজরুল ইসলামের মেয়ে সুমি খাতুনের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়। কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমেদ হাসানুজ্জামান বলেন, ‘বিয়েবাড়িতে বারবার মাংস চাওয়ায় কনেপক্ষের লোকজন বরপক্ষের তিন জনকে পিটিয়েছেন। ওই দিন রাতেই দুপক্ষের উপস্থিতিতে বিয়েবিচ্ছেদ ঘটে। পরদিন সোমবার সুমির সঙ্গে সবুজের আবারও বিয়ে হয়।’’ উল্লেখ্য, ঝিনাইদহের হলিধানি গ্রামের রহিম আলীর ছেলে প্রবাসী সবুজের সঙ্গে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বদরগঞ্জ দশমিপাড়ার এক তরুণীর মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

cover

বিয়েবাড়িতে মাংস বেশি খাওয়ায় মারামারি, আহত ৩

চুয়াডাঙ্গায় বিয়েবাড়িতে মাংস বেশি খাওয়াকে কেন্দ্র করে বরপক্ষ ও কনেপক্ষের মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বরপক্ষের তিনজনকে পিটিয়ে আহত করেছে কনেপক্ষের লোকজন। রোববার (২৪ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বদরগঞ্জ দশমিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। পরে সন্ধ্যায় আহতদের সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় কনেপক্ষের লোকজনের অভিযোগ করেন, বরপক্ষের লোকজন ভাত না খেয়ে শুধু মাংস খেতে থাকেন। বারবার মাংস চাওয়াতে তারা পরে দেবেন বলে জানালে বরপক্ষের লোকজন তাদের ওপর চড়াও হন। তারা তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, ‌'বিষয়টি আমার জানা নেই।'


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021