Link copied.
এক্সক্লুসিভ
cover

একই পরিবারের তিন মেয়ে ঢাবি'র শিক্ষক, গর্বিত বাবা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন আহমদ কবির। তার স্ত্রী নিলুফার বেগম ঢাকা সিটি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক। তাদের তিন মেয়ে, উপমা কবির, শৈলী কবির ও মিত্রা কবির, তিনজনই এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষক। এই পরিবারের প্রায় সকলেই জড়িয়ে আছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে। এই বিষয়ে উপমা বলেন, দেশের স্বনামধন্য শিক্ষাবিদদের খুব কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা হয়েছে সেই ছেলেবেলায়। তাদের দেখে তাদের মতো হওয়ার একটা আগ্রহ জাগত। তাই হয়তো আমাদের তিন বোনেরই শিক্ষকতায় আসা। আরেক বোন মিত্রা বলেন, ছোটবেলা থেকেই গণিত বা পদার্থবিজ্ঞানের প্রতি আমার মনোযোগ অনেক বেশি। তিন বোনই মেডিকেল বা বুয়েটে পড়ার সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু সেই সুযোগ ছেড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সিদ্ধান্ত নেন। শৈলী বলেন, ‘মেডিকেলে ভর্তি হওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট পাই। কম্পিউটার সায়েন্সে চান্স পেয়েছি দেখে ঢাবিতে চলে আসি; কারণ, মনে হয়েছে এটাই আমার আপন জায়গা।’ মিত্রা জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নির্বাচনের দিন বাবা, তিন বোন এবং দুজনের স্বামী—একসঙ্গে ৬ জন শিক্ষক হিসেবে ভোট দিতে গিয়েছিলেন। দিনটি তাদের জন্য সত্যিই অন্য রকম গর্বের ছিল।

cover

৭১ হাজার টাকার আইফোন অর্ডার দিয়ে পেলেন পাতিল ধোয়ার সাবান!

ই-কমার্স শপিং প্ল্যাটফর্ম অ্যামাজনে আইফোন ১২ অর্ডার করে হাঁড়ি পাতিল ধোয়ার সাবান পেয়েছেন এক গ্রাহক। এই খবর প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়া টুডে’সহ বেশ কয়েকটি ভারতীয় গণমাধ্যম। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভুক্তভোগী ওই গ্রাহকের নাম নুরুল আমীন। তিনি ভারতের কেরালা রাজ্যের কোচি শহরের উপকণ্ঠ আলুভারে বসবাস করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি আইফোনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন, এর জন্য তিনি হাজার হাজার টাকা খরচও করেছিলেন। কিন্তু তার পরিবর্তে তিনি পান কয়েক টাকা মূল্যের একটি সাবান। ঘটনাটি নূরুল সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করার সাথে সাথেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। সামাজিক মাধ্যমে এর একটি ছবিও ছড়িয়ে পড়ে যাতে আইফোনের পরিবর্তে সবুজ রঙের ভিম ডিশ ধোয়ার সাবান এবং ৫ টাকার মুদ্রা দেখা যাচ্ছে। নুরুল অ্যামাজনে যে ফোন অর্ডার করেছিলেন সেটার মূল্য ৭০ হাজার ৯০০ টাকা। অনলাইনে পাতিল ধোয়ার সাবান পেয়ে নুরুল পুলিশে অভিযোগ করেন। এতে বলা হয়, নুরুল ১২ অক্টোবর অ্যামাজনে পে কার্ডের মাধ্যমে অর্ডার দেন এবং ১৫ অক্টোবর আইফোনের বদলে ওই সাবান পান।

cover

নিজ হাতে তৈরি ভাস্কর্য প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দিতে চান কাঠমিস্ত্রি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি ভালোবাসা থেকেই অভাব অনটনের মাঝেও কাঠমিস্ত্রি মোহম্মাদ নাসির ধীরে ধীরে তৈরি করেছেন কাঠের দুটি ভাস্কর্য। এর একটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এবং অন্যটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। নাসির পুরান ঢাকার সূত্রাপুরের ফরাশগঞ্জ এলাকার উল্টিনগঞ্জ লেনে ভাড়া বাসায়। সোমবার (২১ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দিয়ে একটি ভ্যানে ভাস্কর্য দুইটি নিয়ে নাসির ও তার স্ত্রী মাসুদা বেগমকে যেতে দেখা যায়। তখন আশপাশের সাধারণ মানুষের আগ্রহের দৃষ্টি ছিল তাদের দিকেই। প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসার কথা উল্লেখ করে কাঠমিস্ত্রি নাসির বলেন, আমি আমার নিজ উদ্যোগে এবং নিজের খরচে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি কাঠের ভাস্কর্য বানিয়েছি, যা ৬ ফুট উচ্চতার এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যটি ৭ ফুট উচ্চতার। আমি এ দুটি প্রধানমন্ত্রীকে উপহার হিসেবে দিতে চাই। নিজের হাতে তৈরি করা ভাস্কর্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিজের হাতে তুলে দিতে চাই। তাহলে আমার পরিশ্রম স্বার্থক হবে। নাসিরের গ্রামের বাড়ি কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার হারবাং এলাকার নওয়াপাড়ায়।

cover

সোনার খনি থেকে উদ্ধার দানবীয় দুই ‘ভীমরুলের চাক’ নিয়ে যতো রহস্য!

বিস্ময়ে রয়ে গেছে ‘হর্নেট বলস’ নিয়ে। সোনার খনি থেকে এক সময় উদ্ধার হয়েছিল বিশালাকার এই বল দু’টি। খনিতে কেন এই বল দু’টি ছিল, এর কাজ কী ছিল— এ সব প্রশ্নের কোনও উত্তর এখনও জানা যায়নি। সারা বিশ্বের কাছে এই বল দু’টি আজও বিস্ময়। খনি অঞ্চল হিসাবে জনপ্রিয় আমেরিকার ভার্জিনিয়া। ১৯ শতক জুড়ে ভার্জিনিয়ায় একের পর এক সোনার খনির সন্ধান পাওয়া যায়। সেই সময় সে রকমই একটি খনি থেকে ওই দু’টি বল উদ্ধার হয়েছিল। দেখতে বড় আকারের কলসির মতো। ভিতরটি ফাঁকা। আর মুখটি লোহার জাল দিয়ে আটকানো। বলটি তৈরিও হয়েছে লোহার কাঠামোর উপর। লোহার কাঠামোর উপর সিমেন্টের আস্তরণ দিয়ে বানানো বল দু’টি সাত ফুট উঁচু। এর পরিধি প্রায় ২০ ফুট। এক একটি বলের ওজন ছয় হাজার ৩৫০ কিলোগ্রাম। ফলে শুধু আকারেই নয়, ওজনেও বল দু’টি আক্ষরিক অর্থেই দানবীয়। বলগুলি নিয়ে রহস্য এখনও কাটেনি। বলগুলির নাম রাখা হয়েছিল ‘হর্নেট’। অনেকেরই মত, দেখতে অনেকটা ভীমরুলের চাকের মতো হওয়াতেই এর নাম রাখা হয়েছে ‘হর্নেট’। ইংরাজিতে ভীমরুলকে ‘হর্নেট’ বলা হয়। কারও মতে, এর ভিতরে পাথর দিয়ে ঘোরানোর সময় খুব জোর শব্দ তৈরি হয়। ভাল ভাবে শুনলে মনে হতে পারে যেন এক ঝাঁক ভীমরুল উড়ে বেড়াচ্ছে। সে কারণেই এমন নামকরণ বলে মনে করেন অনেকে।

cover

অভাবে স্কুলছাড়া আসিফ এখন কোটি টাকার প্রযুক্তি কোম্পানির মালিক!

আর্থিক দুরাবস্থায় স্কুল ছাড়তে বাধ্য হন ভারতের জম্মু-কাশ্মিরের বাতামালু অঞ্চলে জন্ম নেয়া শেখ আসিফ। কিন্তু স্বপ্ন দেখা ছাড়াতে পারেনি। স্বপ্নের উড়ানে চেপে পাড়ি দিলেন কাশ্মীর থেকে ব্রিটেন। ছ’বছর সেখানেই কাজ করেন। তার পর ২০১৫ সালে নিজের একটি সংস্থা গড়ে তুলতে যান তিনি। কিন্তু অর্থের অভাবে সে সময় তা হয়ে ওঠেনি। দিনরাত নতুন চাকরির সন্ধান শুরু করেন তিনি। ওই বছরই লন্ডনে এক ব্যক্তি তাঁকে ডেকে পাঠান। তিনি গুগল-এ কর্মরত ছিলেন। তিনিই আসিফকে নিজের একটি অফিস গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। খুব কম খরচে কীভাবে আসিফ তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা গড়ে তুলতে পারবেন সেটিও জানিয়ে দেন তিনি। এর মাত্র তিন মাসের মধ্যেই ব্রিটেনে ওই ব্যক্তির সঙ্গে যৌথ ভাবে ব্যবসা শুরু করেন তিনি। তাঁর সংস্থা ওয়েব ডিজাইনিং, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক ডিজাইনিং, অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট এবং ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ শুরু করে। স্কুলছুট সেই ছেলেই আজ ব্রিটেনের একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার মালিক। স্বপ্নের ইমারত বানিয়ে হলেন কোটিপতি। তার অধীনে কাজ করেন বহু উচ্চশিক্ষিত কর্মী। ২০১৮ সালে তিনি কাশ্মীরে ফিরে আসেন। তরুণ প্রজন্মের মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে এগিয়ে চলার অনুপ্রেরণা জুগিয়ে চলছেন সেই দিন থেকেই। বিনামূল্যে পরামর্শ দেন তিনি। চার ভাইবোনের মধ্যে আসিফই ছিলেন বড়। দায়িত্ব পালনের ভার তাঁর কাঁধে এসেই পড়েছিল প্রথম। বরাবরই আসিফের ইচ্ছা ছিল তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে পড়াশোনা করার। সেটা আর হয়ে ওঠেনি। কিন্তু স্কুল ছাড়ার পর একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাতেই তিনি কাজে যোগ দিয়েছিলেন। টুকটাক কাজ শিখেছিলেন সেখানেই।

cover

আতশবাজি, কেক কেটে একমাত্র ছাগলের জন্মদিন পালন!

প্রিয় পোষা একমাত্র ছাগলের জন্মদিন কেক কেটে, আতশবাজি ফাটিয়ে পালন করলেন এক যুবক। জানা গেছে, শুক্রবার রাতে টেকনাফের বাহারছড়া শামলাপুর বাজারে শতশত উৎসুক জনতাকে সঙ্গে নিয়ে নিজের আদরের পোষা ছাগলের জন্মদিন পালন করেন সাইফুল। এ সময় কেক কেটে উপস্থিত সকলকে মিষ্টিমুখ করানো হয়। কেক কাটার পর আতশবাজি পুড়িয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন উপস্থিত সবাই। ছাগলের মালিক সাইফুল ইসলাম জানান, আমার পোষা ছাগলটির বয়স একবছর পূর্ণ হলো শুক্রবার। তাই নিজের ভালো লাগা থেকেই প্রিয় ছাগলটির জন্মদিন পালন করলাম।

cover

পুঁ‌জি ছাড়াই ৭ মাসে লাখপতি সাদিয়া মৌ!

এক্সক্লুসিভ
৮ দিন আগে

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক দ্বিতীয় ব‌র্ষের শিক্ষার্থী সা‌দিয়া ইসলাম মৌ। সাত মাসেই হন মিলিয়নিয়ার। সা‌দিয়া ইসলাম মৌয়ের উ‌দ্যোক্তা হওয়ার গল্পের শুরুটা সহজ ছি‌ল না। কারণ, পুঁ‌জি নেই, তার ওপর ক‌রোনাকালীন প‌রি‌স্থি‌তি‌তে বাসা থে‌কে বাই‌রে বের হওয়ার অনুম‌তি নেই। তবুও তীব্র ইচ্ছাশ‌ক্তি ছিল। বন্ধুর কাছ থে‌কে ৪ হাজার টাকা ধার নিয়ে বাবা-মা‌কে বোঝা‌লেন, তারপর শুরু কর‌লেন। তৈরি করলেন একটা অনলাইন প্ল্যাটফর্ম। ধীরে ধীরে রংপুরে পরিচিত হলেন। এরপর তার বাবার চাকরি সূত্রেই রংপুর থেকে কুমিল্লায় গে‌লেন। কুমিল্লা এসে যুক্ত হয়ে গেলেন সেখানকার সেলার হিসেবে। কুমিল্লা এসে কাজ শুরু করলেন একদম নতুনভাবে। সেখানকার ঐতিহ্যবাহী খাদি পোশাক নিয়ে। খাদি কাপড়ের পাঞ্জাবি, শাড়ি, থ্রিপিস এগুলো তার প্রধান বিক্রির পণ্য। অল্প সময়ে অবাক করার মতো সাফল্য পেলেন। হলেন লাখপ‌তি। সা‌দিয়া ইসলাম মৌ ব‌লেন, ‘সাত মাসের ব্যবসায়ী জীবনে সেল করেছি প্রায় ২০ লাখ টাকা। সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। তি‌নি আমাকে পরিশ্রম করার মতো শক্তি দিয়েছেন, সুস্থ রেখেছেন। প্র‌তিকূলতা ছা‌পি‌য়ে এমন শূন্য থে‌কেই শুরুর গল্প ছিল।’

coverফিচার

পরিবেশ বান্ধন ‘বনকাগজ’: যে কাগজ থেকে জন্ম নেবে ৮ ধরনের সবজি ও ৩ ধরনের ফুলের গাছ!

এক্সক্লুসিভ
৯ দিন আগে

পরিবেশ বাঁচানোর ভাবনা থেকেই যেহেতু বনকাগজ তৈরির উদ্যোগ, তাই পুরো প্রক্রিয়াটিতেই এর কারিগররা চেষ্টা করেছেন পুনঃপ্রক্রিয়াজাত করা যায় এমন দ্রব্য ব্যবহার করতে। বছর শেষে স্কুলের শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত অনেক বই খাতাই অপ্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। এমন অপ্রয়োজনীয় পরিত্যক্ত কাগজগুলোই সংগ্রহ করেন বনকাগজ তৈরির উদ্যোক্তারা। বনকাগজের মধ্যে ৮ ধরনের সবজি আর ৩ ধরনের ফুলের বীজ আছে। এই কাগজ মাটিতে লাগানোর জন্য বিশেষ কোনো নিয়ম নেই। কাগজটি আস্ত অথবা ছিঁড়ে টুকরো করে ফেলে দিলেই ৮ থেকে ১০ দিনের মধ্যে মাটিতে পর্যাপ্ত আর্দ্রতা থাকা সাপেক্ষে বীজের অঙ্কুরোদগম শুরু হয়। মাটি পর্যাপ্ত আর্দ্র না হলে কাগজটিকে মাটির উপর রেখে একটু ভিজিয়ে দিলেই হবে। দশ-বারো দিনের মধ্যে মাটি থেকে বেরিয়ে আসবে শাক-সবজি কিংবা ফুলের চারা গাছ।

বিস্তারিত পড়ুন
cover

একা পুরুষদের প্রবেশ নিষেধ যে রেস্টুরেন্টে!

এক্সক্লুসিভ
৯ দিন আগে

লেডিস ফার্স্ট কথাটি শুনেছেন নিশ্চয়ই। পুরুষরা নানা কারণে এ কথা বলেই থাকেন। তবে এই রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে জেন্টালম্যান মানে পুরুষদেরই লেডিজ ওনলি শর্ত মানতে হবে। মানে একা কোনো পুরুষ ঢুকতে পারবেন না এই রেস্টুরেন্টে। তবে সঙ্গে কোনো নারী থাকলে তাকে অবশ্য ফেরাবে না রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি এই আজব শর্তের জন্য নেটিজেনদের নজরে এসেছে এই রেস্টুরেন্ট। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের রাজস্থানের ওই রেস্টুরেন্টের খবর সামনে আনেন হর্ষিতা শর্মা নামের এক নেটিজেন। টুইটারে ওই রেস্টুরেন্টে বসে থাকার ছবি পোস্ট করেছেন হর্ষিতা। তার মাথার উপরে থাকা এসিতে লেখা ছিল “এখানে নারীদের সঙ্গেই কেবল পুরুষদের প্রবেশের অনুমতি রয়েছে।” ওই ছবি আপলোড করে ক্যাপশনে হর্ষিতা লিখেছেন, এই কারণেই আমাকে ডাল-রুটি খেতে এখানে আনা হয়েছে।

cover

১২০০ অতিথি নিয়ে প্রতিবন্ধী সুমনা-ইমদাদুলের ব্যতিক্রমী বিয়ে

বগুড়ায় জমকালো আয়োজনের মধ্যে সম্পন্ন হলো ইমদাদুল হক ও সুমনা খাতুন নামের দুই প্রতিবন্ধী তরুণ-তরুণীর বিয়ে। দুই পরিবারের সম্মতিতে সোমবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে তাদের বিয়ে হয়। বগুড়ার টিএমএসএস অটিজম ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী স্কুল এবং পুনর্বাসন কেন্দ্রে ধুমধাম করে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়। বিয়ের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন ১২০০ অতিথি। রোববার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানও বেশ জাঁকজমকভাবে করা হয়। সেখানে ৫০০ অতিথি উপস্থিত ছিলেন। পুনর্বাসন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সাঈদ যুবায়ের বলেন, ইমদাদ ও সুমনার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। পরে তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। উৎসবমুখর পরিবেশে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

cover

স্ত্রীকে প্রায় ৭ কোটি টাকার গাড়ি উপহার দিলেন ব্যবসায়ী

স্ত্রীকে ভালোবেসে উপহার দিতে কে না পছন্দ করেন! অনেকেই নানা সময়ে স্ত্রীর জন্য ভালোবেসে হরেক রকমের উপহার কিনেন। কিন্তু উপহার কিনে সংবাদের শিরোনাম হয়েছে এমন মানুষের সংখ্যা বিশ্বজুড়ে খুবই নগণ্য। ভারতের এক ব্যবসায়ী নিজের স্ত্রীর জন্মদিনে উপহার দিয়ে হয়েছেন সংবাদের শিরোনাম। স্ত্রীকে দেয়া তাঁর উপহারটিও যেনতেন নয়— ছয় কোটি রুপির একটি বিলাসবহুল গাড়ি। যার বাংলাদেশি মুদ্রায় মূল্য প্রায় ৭ কোটি টাকা (৬ কোটি ৮৩ লাখ টাকা)। ভারতের এই ব্যবসায়ীর নাম আমজাদ সিথারা। দুবাইয়ের বাসিন্দা আমজাদ স্ত্রী মারজানাকে বিশ্বখ্যাত গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠান রোলস রয়েসের ‘রেইথ’ মডেলের একটি গাড়ি উপহার দেন। তখন এর ভিডিও ধারণ করা হয়। পরে ভিডিওটি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেন আমজাদ। ভিডিওটি শেয়ারের পরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সাড়া ফেলে।

cover

হাকালুকি হাওরে এবার কমেছে ২০ হাজার পাখি

মৌলভীবাজারের হাকালুকি হাওরে গত দুই বছরের তুলনায় ২০ হাজার পাখি। ২৬-২৭ জানুয়ারি হাকালুকি হাওরে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব ও ও আইইউসিএন বাংলাদেশ হাকালুকির ৪০টি বিলে পাখি শুমারি করে। এতে সর্বমোট ৫১ প্রজাতির ৩৭ হাজার ৯৩১টি জলচর পাখি পাওয়া গেছে। তবে গত দুই বছরের তুলনায় পাখির সংখ্যা কমে এসেছে বলে বার্ড ক্লাব সূত্রে জানা গেছে। বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের তথ্য অনুসারে ২০১৮ ও ২০১৭ সালে হাকালুকি হাওরে পাখির সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ৪৫ হাজার ১০০ ও ৫৮ হাজার ২৮১। এ বছর সেই সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩৭ হাজার ৯৩১টিতে। শুমারির সময় হাকালুকির পরোতি, বালিজুড়ি, নাগুয়া ধলিয়া বিলে বিষটোপ দিয়ে মারা পাখি পেয়েছে শুমারিতে অংশগ্রহণকারী দল। বিষটোপ দিয়ে পাখি শিকারের বিষয়ে শুমারিতে অংশ নেয়া তারেক অনু জানান, বিষটোপ দিয়ে মারা বুনোহাঁস যারা খায়, তাদের শরীরেও বিষ প্রবেশ করে, ক্যান্সার ঘটায়।

cover

তবুও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন ওহিদুর রহমানের!

এক্সক্লুসিভ
১০ দিন আগে

রাজশাহী থেকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) 'এ' ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আসেন ওহিদুর রহমান। হাতে ভর চলা এই শারীরিক প্রতিবন্ধী হাঁটতে না পারলেও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন দেখা থামিয়ে দেননি। রোববার (১৭ অক্টোবর) ভর্তি পরীক্ষা শেষে দুপুর সোয়া ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চায়না চত্বরে দেখা যায় হুইলচেয়ার নিয়ে ওহিদুরের বাবা আমিনুর রহমান সন্তানের পরীক্ষা শেষ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছে। আমিনুর রহমান বলেন, ছোটবেলা থেকেই ওহিদুর অত্যন্ত দৃঢ় প্রত্যয়ী। সে অন্যদের মতো হাঁটাচলা না করতে পারলেও কখনো পড়ালেখা থেকে দূরে সরে যায়নি। ওহিদুর রহমান বলেন, তার স্বপ্ন ছিল ডেন্টালে পড়ার। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেখানে সুযোগ পাননি। এখন তিনি রসায়নে উচ্চশিক্ষা নিতে চান। তিনি বলেন, ‘আমি আমার ইচ্ছাশক্তির বলে এ পর্যন্ত এসেছি। আমার চারপাশে অনেককে দেখেছি প্রতিবন্ধিত্বের কারণে অকালে শিক্ষার আলো থেকে ঝরে যেতে। আমি ভবিষ্যতে এ ধরনের মানুষদের জন্য কাজ করতে চাই।’

cover

প্রধানমন্ত্রীকে উপহারের জন্য নৌকাগাড়ি বানালেন রবিউল

এক্সক্লুসিভ
১০ দিন আগে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা রেখে ব্যাটারিচালিত নৌকাগাড়ি তৈরি করলেন রংপুরের পীরগাছার পারুল ইউনিয়নের গুঞ্জুর খাঁ গ্রামের রবিউল ইসলাম। তিনি ওই গ্রামের মৃত হাফিজুল ইসলামের ছেলে। গাড়িটির কারিগর রবিউল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগ তথা বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে উত্তরবঙ্গে এই প্রথম নৌকার আদলে গাড়িটি তৈরি করেছি। এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মিলন বলেন, কেউ যদি প্রধানমন্ত্রীকে ভালোবেসে কোনো কিছু তৈরি করে বা উপহার দেয়, এটা নিঃসন্দেহে ভালো। গাড়িটি প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া পর্যন্ত কোনো সহযোগিতা করবেন কিনা- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, অবশ্যই আমি সহযোগিতা করব এবং বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এমপিকে বলে প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত নৌকাগাড়িটি পাঠানোর ব্যবস্থা করব।

cover

শিক্ষকতা ছেড়ে মাল্টা চাষে সফল আলাউদ্দিন!

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার নাগেরপাড়ার আলাউদ্দিন মিয়া (৫০) একটি কিন্ডারগার্টেনে শিক্ষকতা করতেন। শিক্ষকতার করে যে বেতন পেতো তাদিয়ে সংসার চালাতে হিমসিম খেত। এই দূরবস্থায় সোস্যাল মিডিয়ায় ইউটিউবে মাল্টা চাষ ও লেবু বাগান করার ভিডিও দেখে অনুপ্রাণিত হন তিনি। পরিবারের সদস্যদের উৎসাহে তিনি শুরু করেন মাল্টা চাষ। তিনি জানান, ২০১৮ সালে ১৩০ শতাংশ জমিতে প্রথমে ১২০টি মাল্টার চারা রোপণ করেন তিনি। এছাড়াও ১৫০টি লেবু গাছ দিয়ে একটি বাগান তৈরি করেন। বাগান নিয়মিত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি ফলের উপযোগী কাজের প্রচেষ্টা চালিয়ে যান। এতেই গাছে আসা শুরু করে ফল। তার বাগানে বর্তমানে প্রতিটি গাছ থেকে ২০০ থেকে ৩০০ মাল্টা পাচ্ছেন তিনি। এই মাল্টা বিক্রি করে তিনি সংসারের খরচ চালিয়ে অতিরিক্ত টাকা জমাতে পারছেন। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আব্দুস সাত্তার বলেন, আলাউদ্দিনের মাল্টা ও লেবু বাগানের খোঁজখবর নিয়েছি। তার উৎপাদিত মাল্টা আকারে বড় ও মিষ্টি। তাছাড়া তিনি লেবু চাষেও বেশ সফল।


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021