Link copied.
মিয়ানমার
cover

এবার মিয়ানমারে কূটনৈতিক বিদ্রোহ

মিয়ানমারের সেনা-শাসকদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। সরকারি কর্মীরাও ধর্মঘটে নেমে পড়েছেন। এবার সেনা শাসকদের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক বিদ্রোহও হলো। চাপের মুখে পড়ে জাতিসংঘে সেনা শাসকদের নিয়োগ করা প্রতিনিধি পদত্যাগ করেছেন। তার জায়গায় ফিরে এসেছেন সেনা শাসকদের সরিয়ে দেয়া প্রতিনিধি কিয়ো মো টুন। এর আগে টুন জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সব সদস্য দেশের কাছে আবেদন করেছিলেন, সেনা অভ্যুত্থানের আগের পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার জন্য যেন তারা চেষ্টা করেন। কূটনীতিকদের বিদ্রোহের ফলে এটা সম্ভব হয়েছে। ওয়াশিংটনে মিয়ানমার দূতাবাস থেকেও বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, মিয়ানমারে বিক্ষোভের মোকাবিলায় যেন সংযম দেখানো হয়। পুলিশের গুলিতে বিক্ষোভকারীদের মৃত্যুরও নিন্দা করা হয়েছে। দূতাবাসের একজন কর্মী পদত্যাগ করেছেন। তিনজন কর্মী সামাজিক মাধ্যমে বলেছেন, তারা বিক্ষোভে যোগ দিতে চান।

cover

মিয়ানমারে গণতন্ত্রপন্থীদের মিছিলে গুলি, নিহত কমপক্ষে ১

শুক্রবারও গণতন্ত্রপন্থীদের মিছিলে গুলি চালিয়েছে মিয়ানমার পুলিশ। এতে কমপক্ষে একজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। অভ্যুত্থান ঘটিয়ে সামরিক জান্তার ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে গত ৬ই ফেব্রুয়ারি থেকে টানা বিক্ষোভ চলছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে। প্রথম দিকে শুধু মিছিলে বাঁধা ও হুঁশিয়ারিতে সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন প্রতিদিনই বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুরছে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীগুলো। এতে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫২ গণতন্ত্রপন্থী। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বেসামরিক মানুষদের এভাবে গুলি করে হত্যার নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে বিশ্বজুড়ে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রও নতুন করে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে।

cover

মিয়ানমারে অভ্যুত্থানবিরোধীদের ওপর গুলি, নিহত বেড়ে ১৮

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানবিরোধীদের ওপর নিরাপত্তা রক্ষীদের চালানো গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮ জন হয়েছে। বুধবার বিক্ষোভ চলাকালে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে বলে একটি মানবাধিকার সংস্থার বরাত দিয়ে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোও নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছে। সহিংসতায় অনেক মানুষের আহত হওয়ার কথা জানিয়েছে তারা। এএফপি বলছে, মান্দালয় ও মনুয়ায় গুলিতে আহত হয়েছেন অনেক বিক্ষোভকারী। মান্দালয়ে দুজন নিহত হয়েছেন। চারজন মারা গেছেন মনুয়ায়। এছাড়া ইয়াঙ্গুন এবং মিইয়ইগেইনে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বুধবারের সহিংসতায় প্রথমে সাতজন নিশ্চিত হওয়া গেলেও সবমিলিয়ে শেষ পর্যন্ত ১৮ জনের মৃত্যু নিশ্চিত হওয়া গেছে। সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে আন্দোলনে গিয়ে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন প্রায় ৪০ জন।

cover

আজ মিয়ানমারের সেনা সরকারের সঙ্গে আসিয়ানের বৈঠক

মিয়ানমারে সহিংসতা রোধ এবং ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক সংকট মোকাবিলায় দেশটির সামরিক বাহিনীর সঙ্গে আলোচনার জন্য দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় (আসিয়ান) দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বিশেষ বৈঠকের প্রস্তুতি নিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে এক মাস আগে সামরিক বাহিনী অপসারণের পর থেকে মিয়ানমারজুড়ে বিক্ষোভ এবং রোববার রক্তক্ষয়ী সহিংসতায় ১৮ জন নিহতের পর এই আলোচনা শুরুর ঘোষণা এলো। বড় ধরনের বিক্ষোভের ডাক দিলেও মঙ্গলবার ভোর থেকে ইয়াঙ্গুনের রাস্তা অনেকটা ফাঁকা। কিছু কিছু জায়গায় বিক্ষোভকারীদের প্রতিবাদ জানাতে দেখা গেছে। সহিংসতার কারণে শহরটির বেশ কয়েকটি শপিংমল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

coverশীর্ষ খবর

আজও মিয়ানমারে বড় বিক্ষোভের প্রস্তুতি

মিয়ানমারে গতকাল রোববার জান্তাবিরোধী ব্যাপক বিক্ষোভ ও প্রাণহানির পর আজ সোমবার আবার দেশজুড়ে বড় ধরনের বিক্ষোভের প্রস্তুতি নিচ্ছেন আন্দোলনকারীরা। গত ১ ফেব্রুয়ারির সেনা অভ্যুত্থানের পর মাত্র এক দিন আগেই সবচেয়ে রক্তাক্ত দিন দেখেছে দেশটি। গতকালের ওই সহিংসতা ও রক্তপাতের নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশ এবং জাতিসংঘের প্রতিনিধি। মিয়ানমারে বিক্ষোভ দমনে দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এদিন যে পদক্ষেপ নেয়, তাকে ‘ঘৃণ্য সহিংসতা’ বলে আখ্যায়িত করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। গতকাল মিয়ানমারের বিভিন্ন শহর-নগরে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। এদিন তাদের সঙ্গে সড়কে নেমেছিলেন সেনাবাহিনীর সদস্যরাও। গতকাল শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ১৮ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন অনেকে।

cover

বিক্ষোভে গুলি, মিয়ানমারে নিহত আরও ৪

মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি করেছে পুলিশ। এতে আজ রোববার কমপক্ষে চার বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। স্থানীয় মিডিয়াকে উদ্ধৃত করে লন্ডনভিত্তিক প্রভাবশালী অনলাইন গার্ডিয়ান বলেছে, দক্ষিণের ডাউয়ি শহরে নিহত হয়েছেন তিনজন। একজন নিহত হয়েছেন ইয়াঙ্গুনে। এ নিয়ে মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের পর মোট কমপক্ষে ৭ বিক্ষোভকারী নিহত হলেন। রোববার বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশ সরাসরি গুলি, কাঁদানে গ্যাস, স্টান গ্রেনেড ছুড়েছে। অভ্যুত্থানের পর এটাই তাদের সবচেয়ে আগ্রাসী বিক্ষোভ বিরোধী দমনপীড়ন। এর ফলে ডাউয়ি শহরে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন। বেশ কিছু মানুষ আহত হয়েছেন ইয়াঙ্গুনে। যেসব চিকিৎসক বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন, তারা ইয়াঙ্গুনে জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ফিরে গিয়েছেন আহতদের চিকিৎসা দিতে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেসব ফুটেজ ছড়িয়ে পড়েছে তাতে দেখা যায় ইয়াঙ্গুনে লোকজন রক্তাক্ত ব্যক্তিদের নিরাপদে সরিয়ে নিচ্ছে।

cover

বিক্ষোভে গুলি, মিয়ানমারে নিহত আরও ১

মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি করেছে পুলিশ। এতে আজ রোববার কমপক্ষে একজন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। এ ঘটনা ঘটেছে ডাউয়ি শহরে। সেখানে বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশ সরাসরি গুলি করে। রাজনীতিক কাইওয়া মিন হতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দক্ষিণাঞ্চলীয় ওই শহর থেকে এ তথ্য দিয়েছেন। এ ছাড়া ডাউয়ি ওয়াচ মিডিয়া আউটলেটও বলেছে, একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন এক ডজনেরও বেশি মানুষ। এ বিষয়ে পুলিশ বা ক্ষমতাসীন সামরিক কাউন্সিলের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত নেত্রী অং সান সুচিকে গ্রেপ্তার করে গত ১লা ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা কেড়ে নেয় সামরিক জান্তা। তারপর থেকে মিয়ানমার এক বিশৃংখল পরিস্থিতিতে। এর আগে বিক্ষোভে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে তিনজন। তার সঙ্গে আজ রোববার আরো একটি সংখ্যা যুক্ত হলো। ফলে এখন নিহতের সংখ্যা মোট চার।

cover

সেনাবিরোধী বক্তব্য দেওয়ায় মিয়ানমারের জাতিসংঘ দূত বরখাস্ত

মিয়ানমারে সেনাবাহিনীকে ক্ষমতা থেকে সরাতে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য জাতিসংঘকে আহ্বান জানিয়েছিলেন সংস্থাটিতে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত কিয়াও মোয়ে তুন। এর একদিন পরই তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। দেশটির সেনা শাসকরাই এ কথা জানিয়েছেন। এর আগে জাতিসংঘে এক আবেগময় বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত কিয়াও মোয়ে তুন বলেন, গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতা ফিরিয়ে না দেওয়া পর্যন্ত মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীকে কারও সহযোগিতা করা উচিত নয়। সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি। প্রায় শুরু থেকেই জনসাধারণের বিক্ষোভ চলছে। শনিবার দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী কঠোর অবস্থান নেয় বিক্ষোভের বিরুদ্ধে। রোববারও বিক্ষোভ প্রতিহত করতে অসহিংস পদক্ষেপ তাদের। শনিবার দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, এ দিন আন্দোলনকারীদের মধ্য থেকে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরমধ্যে মনোয়া শহরে এক নারী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তার শারীরিক অবস্থা এখনও অস্পষ্ট।

cover

Myanmar army fires ambassador to the UN after anti-coup speech

Myanmar’s ambassador to the United Nations has been fired, state television reported on Saturday, a day after he urged the UN to use “any means necessary” to halt a military coup. The Southeast Asian country has been mired in crisis since the military seized power on February 1 and arrested the civilian government leader Aung San Suu Kyi and much of her party, after the military alleged that elections held in November were fraudulent. The election commission found that the vote was fair.Myanmar state broadcaster MRTV said on Saturday the ambassador had “betrayed the country and spoken for an unofficial organisation which doesn’t represent the country and had abused the power and responsibilities of an ambassador”. The Myanmar generals have traditionally shrugged off diplomatic pressure.

cover

মিয়ানমারে ব্যাপক সংঘর্ষ

মিয়ানমারে এবার জান্তা সমর্থক ও জান্তা বিরোধীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। বৃহস্পতিবার সংঘর্ষে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনের রাজপথ যেন পরিণত হয় রণক্ষেত্রে। সেনাবাহিনীর পক্ষে রাজপথে নেমে, বিক্ষোভকারীদের ওপর তুমুল হামলা চালান তারা বলে অভিযোগ উঠেছে। ছুরিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জান্তাপন্থিদের এমন হামলায় হতবাক সবাই। বিক্ষোভকারীরা বলছেন, এ ঘটনাটি মিয়ানমারের পরিস্থতিকে আরও জটিল করে তুলবে। আন্দোলনকারী একটি গোষ্ঠী জানায়, প্রতিবাদের সঙ্গে সম্পর্কিত কারণে এ পর্যন্ত ৭শ' জনের বেশি মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাদের অভিযুক্ত করে সাজাও দেয়া হয়েছে। এ অবস্থায় আরও কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন জান্তারিবোধীরা। শুক্রবারও তারা মিয়ানমারের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেন। গড়ে তোলেন প্রতিরোধ।

coverশীর্ষ খবর

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ছাত্র-চিকিৎসকদের সমাবেশের প্রস্তুতি

মিয়ানমারে সেনা শাসনের বিরুদ্ধে বড় ধরনের বিক্ষোভ সমাবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ছাত্র ও চিকিৎসকরা। চলমান বিক্ষোভের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার দেশটির বাণিজ্যিক কেন্দ্র ইয়াঙ্গুনে তারা এই কর্মসূচিতে অংশ নেবেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স। গত পহেলা ফেব্রুয়ারি অং সান সু চিকে গ্রেপ্তার ও ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক জান্তার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই মাঠে নেমেছে বিভিন্ন পেশার মানুষ। রাজপথের এই আন্দোলনে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে। আদালতের আদেশ অমান্য করে বুধবার ১ হাজার ৮৬ জনকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠায় মালয়েশিয়া। এ ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তারই পরিপ্রেক্ষিতে সমাবেশের কর্মসূচি ছাত্র-চিকিৎসকদের।

cover

মিয়ানমারে আরও বড় বিক্ষোভের ডাক

মিয়ানমারে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দিন দিন আরও জোরালো হচ্ছে। সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসতে ইন্দোনেশিয়ার প্রচেষ্টায় দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলির প্রস্তাবিত কূটনৈতিক সফর বাতিল হওয়ায় আবারও ফুঁসে উঠেছে মিয়ানমারবাসী। বুধবার সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে আরও বিক্ষোভের ডাক দিয়েছেন তারা। এর আগে, মঙ্গলবার বিক্ষোভে লোকজনের উপস্থিতি একটু কম ছিল। তবে ইয়াঙ্গুনের বাণিজ্যিক কেন্দ্রে বিভিন্ন জাতিগত সংখ্যালঘু সদস্যদের একটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের বেসামরিক কর্মচারীরাও এতে যোগ দিয়েছিলেন। কাচিন সম্প্রদায়ের সদস্য ২৬ বছর বয়সী সান অং লি বলেন, আমরা আমরা সংখ্যালঘুরা অধিকার আদায়ের সুযোগ পাইনি। আমরা এখন দাবি জানাচ্ছি। টানা বিক্ষোভ ও আন্দোলনে স্থবির হয়ে পড়েছে মিয়ানমার। এ অবস্থার পরিবর্তন আনতে আলোচনা করতে চেয়েছিল ইন্দোনেশিয়া।

cover

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টিভির পেজও বন্ধ করল ফেসবুক

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলের পেজও বন্ধ করে দিয়েছে জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক। সোমবার ফেসবুকের নীতিমালা বিষয়ক পরিচালক রাফায়েল ফ্রাঙ্কেল এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির সেনাবাহিনী পরিচালিত একটি ফেসবুক পেজও বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। দেশটিতে সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে। এদিকে সেনাবাহিনীর ওই বিক্ষোভ ঠেকাতে নানা হুমকি দিয়ে আসছে শুরু থেকেই। তাদের হয়ে ওই চ্যানেলটি অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে সতর্ক করে সম্প্রতি। এ পরিস্থিতিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফেসবুক। খবরে বলা হয়েছে, এমআরটিভি নামের চ্যানেলটির রোববারের খবরে বলা হয়, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে। সংঘাত মানুষের জীবন হুমকির মুখে ফেলবে।

coverশীর্ষ খবর

ধর্মঘটে অচল মিয়ানমার

মিয়ানমারে জান্তাদের হুমকির পরও সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত। বরং যত দিন যাচ্ছে, বিক্ষোভ আরও জোরালো হচ্ছে। শাসনতান্ত্রিক সংকট কাটাতে অচলাবস্থার একেবারে দ্বারপ্রান্তে। এরইমধ্যে সোমবার দেশটিতে সাধারণ ধর্মঘটে ব্যবসা-বাণিজ্য সব বন্ধ হয়ে গেছে। তিন সপ্তাহ হয়ে গেছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থানের। সেই ১ ফেব্রুয়ারির অভ্যুত্থান গুঁড়িয়ে দিতে একইসঙ্গে অং সান সু চির মুক্তি দাবিতে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। কর্তৃপক্ষের হুমকি এড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমেছেন। এ থেকে যেকোনো সময় আরও প্রাণহারি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিক্ষোভকারীরা অতীতের শুভ দিন দেখে দেখে বিক্ষোভ করছেন। ২২ ফেব্রুয়ারির তাৎপর্য উল্লেখ করে নানা স্লোগান দিচ্ছেন। এছাড়া ১৯৮৮ সালের ৮ আগস্টের বিক্ষোভের সঙ্গে তুলনা করে হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন আন্দোলনকারীরা।

cover

Facebook shuts down Myanmar army 'True News' page

A Facebook page run by the Myanmar junta's "True News" information service was kicked off the platform on Sunday after the tech giant accused it of inciting violence. Security forces in the country have steadily increased violence against a massive and largely peaceful civil disobedience campaign demanding the return of deposed civilian leader Aung San Suu Kyi. The Nobel laureate was taken into custody along with her top political allies at the start of the month, but the new regime has insisted it took power lawfully. It has used Facebook to claim Suu Kyi's landslide election victory last November was tainted by voter fraud and issue stark warnings to the protest movement -- which is demanding that the army relinquish power.


Ridmik News is the most used news app in Bangladesh. Always stay updated with our instant news and notification. Challenge yourself with our curated quizzes and participate on polls to know where you stand.

news@ridmik.news
support@ridmik.news
© Ridmik Labs, 2018-2021