বাছাই করা সেরা খবর, গবেষণা এবং তথ্য | Ridmik News
ফিচার
বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু: যেভাবে পাল্টে দেবে দক্ষিণবঙ্গের চেহারা!
পদ্মা সেতু নিয়ে দেশজুড়ে মানুষের মনে তৈরি হওয়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর। সেতুটির নির্মাণকাজে কেন এতো টাকা খরচ হয়েছে? এই প্রতিবেদনটিতে সে প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে। সাথে এখানে জানা যাবে পদ্মা সেতুর কাজের বর্তমান আপডেট, রেলসেতু তৈরির সর্বশেষ অবস্থা, গ্যাস এবং বিদ্যুৎ প্রকল্প কী অবস্থায় আছে এবং সর্বোপরি পদ্মা সেতুর মাধ্যমে কীভাবে দক্ষিণবঙ্গের চেহারা বদলে যেতে পারে-সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।
নাকবা দিবস: ১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিনে কী মহাবিপর্যয় ঘটেছিল?
ইহুদি সেনাবাহিনীর নৃশংস গণহত্যায় প্রায় ১৫,০০০ ফিলিস্তিনি খুন হয়। ১৯৪৮ সালের ৯ এপ্রিল তারিখে জেরুজালেমের পশ্চিম তীরে দেইর ইয়াসিন গ্রামে ইতিহাসের স্মরণকালের সবচেয়ে নৃশংস গণহত্যা পরিচালনা করে ইহুদি বাহিনী। ইসরাইল রাষ্ট্র গঠনের পূর্বেকার কথিত দেশ, ইরগুন ও স্ট্যান গ্যাং মিলিশিয়াদের হামলায় নারী ও শিশুসহ ১১০ জন নিহত হয়।
তৈমুর লং: মৃত্যুদূতের মতো যাকে ভয় পেতেন লৌহমানব স্ট্যালিন!
সোভিয়েত ইউনিয়নের বিপ্লবী নেতা ও দেশটির সাবেক প্রধান জোসেফ স্ট্যালিনকে কোটি কোটি মানুষের মৃত্যুর জন্য দায়ী করা হয়। সমালোচনাকারীরা তাকে ‘রুথলেস ডিক্টেটর’ বা স্বৈরাচারী একনায়ক উপাধি দিয়েছে তার নির্মমতার জন্য। কিন্তু সেই লৌহমানব স্ট্যালিনও একজনকে ভয় পেতেন। না, সেটা জার্মানির একনায়ক এডলফ হিটলার নয়। তিনি ছিলেন একজন মৃত মুসলিম শাসক- যিনি ১৪০০ শতকে বর্তমান সময়ের উজবেকিস্তান ও আশেপাশের অঞ্চলের শাসক ছিলেন। তৈমুর লং যিনি চেঙ্গিস খানের বংশধর ছিলেন এমনকি তিনি ছিলেন যুদ্ধের ময়দানে অপরাজেয়। কোনো যুদ্ধেই তার পরাজয়ের রেকর্ড নেই।
মিশরীয় সভ্যতা: দক্ষতা আর আবিষ্কারে উৎকর্ষতার শীর্ষে ।। পর্ব-২
মিশরীয়রা নিজেদের মেধা ও দক্ষতা দিয়ে জ্ঞান বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় রেখেছে অভাবনীয় অবদান। বর্তমান সময়েও প্রাচীন মিশরীয়দের এসব কীর্তি মানুষকে বিস্মিত হতে বাধ্য করে। প্রথম দিকে মিশরীয়রা পাথর ও কাঠ খোদাই করে লেখালেখি করলেও প্রয়োজনের তাগিদে তারা বিকল্প সহজলভ্য খোঁজা শুরু করে।
অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস: ইংল্যান্ডে জন্ম নেয়া বিতর্কিত এক অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি
অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৯৯৮ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ২৬টি টেস্ট ম্যাচ, ১৯৮টি ওডিআই ও ১৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার ২০০৩ ও ২০০৭ বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। ছিলেন ২০০৭ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৫-০ ব্যবধানে জিতে অ্যাশেজ পুনরুদ্ধারের সিরিজে।
তেল কম দিয়ে রান্না করবেন যেভাবে
বর্তমানে ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে আবার রান্নায় বেশি তেল ব্যবহার স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। একটু সচেতন হলেই তেলের ব্যবহার কমিয়ে আনতে পারি। প্রতিদিনের ক্যালরি চাহিদার শতকরা ২৫-৩০ শতাংশ তেল ও চর্বিজাতীয় খাদ্য থেকে গ্রহণের কথা। এই পরিমাণের পুরোটাই যে ভোজ্যতেল থেকে হতে হবে, তা কিন্তু নয়। সাধারণ খাবার যেমন- শর্করা (ভাত, রুটি) ও প্রোটিন (মাছ, মাংস, দুধ, ডিম, ডাল, বাদাম, বীজ) থেকেই দৈনিক চাহিদার অনে তেল চলে আসে।
গুনাব্রাহ্মণ: বৌদ্ধ ধর্ম প্রতিষ্ঠায় ঘরছাড়া এক কাশ্মীরি রাজপুত্র
গুনাব্রাহ্মণ ৩৬৭ খ্রিস্টাব্দে কাশ্মীরের এক রাজপরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। শৈশবেই তিনি আধ্যাত্মিকতার ব্যাপারে নিজের আগ্রহ দেখিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরিবার সেগুলো গুরুত্বের সাথে নেয়নি। হুই জিয়াং এর বইয়ে বলা হয়েছে, কাশ্মীরের বৌদ্ধভিক্ষুরা গুনাব্রাহ্মণের বুদ্ধিমত্তা বুঝতে পারেন। তার সদয় ও নিরীহ প্রকৃতির স্বভাবে মুগ্ধ হন তারা। গুনাব্রাহ্মণ ২০ বছর বয়সে বাড়ি ছাড়েন। নিযুক্ত হন বৌদ্ধ সন্ন্যাসীদের সঙ্গে।
টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট এবং 'ফিনিশার' আবিষ্কারের ইতিহাস
ক্রিকেটে যখনই 'ফিনিশার' শব্দটি নিয়ে আলোচনা হয় সর্বপ্রথম চোখের সামনে যে নামটি ভেসে উঠে সেটি মাইকেল বেভান। তারপরেই যার নামটি বর্তমান যুগের ভক্তদের জন্য কাছে সবচেয়ে প্রিয় তিনি মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু বেভান, ধোনির ফিনিশিংয়ের জাদুতে কিংবদন্তি নেইল ফেয়ারব্রাদার আর স্টিভ ওয়াহের কথা তো কোনভাবেই অস্বীকার করা যাবে না।
আমিরাতের শাসক জায়েদ আল নাহিয়ান: আরব জগতে এক ব্যতিক্রমী যুগের সমাপ্তি!
শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাতটি ডোমের মধ্যে সবচেয়ে বড় এবং ধনী ছিলেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রকাশনা ফোর্বসের দেয়া তথ্য মতে, তার নিয়ন্ত্রণে ছিল ৯৭.৮ বিলিয়ন ব্যারল তেলের ওপর। এছাড়াও তিনি পৃথিবীর সর্ববৃহৎ সার্বভৌম সম্পদ তহবিল পরিচিলনা করেছেন যার মূল্য ৮৩০ বিলিয়ন ডলার।
মিশরীয় সভ্যতা: পৃথিবীর প্রাচীন শাসনব্যবস্থা ও ধর্মীয় বিশ্বাস ।। পর্ব-১
মিশরীয় সভ্যতা পৃথিবীর প্রাচীন সভ্যতাগুলোর একটি। অর্থবিত্ত, জাকজমক, সম্পদ, শিল্প উৎপাদন, সেনাবাহিনী, প্রযুক্তি সব দিক থেকেই প্রাচীন মিশর ছিল পৃথিবীর সবচেয়ে অগ্রগামী সভ্যতা। পিরামিড আর মমি'র মত বিজ্ঞান তারা জেনেছিল খ্রিস্টের জন্মেরও কয়েক হাজার বছর পূর্বে। সেইসাথে নীল নদের উর্বর পলিমাটি তাদের বাসভূমিকে করে তুলেছিল কৃষিকাজের উপযুক্ত। ফলে, সভ্যতা হিসেবে তারা একদিকে যেমন ছিল স্বয়ংসম্পূর্ণ অন্যদিকে তেমনি অপ্রতিদ্বন্দ্বী।
ফিফা-ইএ স্পোর্টসের ৩ দশকের সম্পর্কের অবসান, নতুন নাম প্রকাশ
ফিফার সঙ্গে ভিডিও গেমস চুক্তি শেষের ঘোষণা দিয়েছে ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইএ স্পোর্টস। বিখ্যাত এই ভিডিও গেমস প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ১৯৯৩ সাল থেকে চুক্তিবদ্ধ ফিফা ফ্র্যাঞ্চাইজি। গত তিন দশকে প্রায় ১৯ হাজার অ্যাথলেট, ৭০০ টিম, ১০০ স্টেডিয়াম ও ৩০টি লিগের সঙ্গে চুক্তি করেছে ইএ স্পোর্টস। লাইসেন্সিং চুক্তি অনুযায়ী ফিফা প্রতিবছর প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে ১৫০ মিলিয়ন আয় করে। তবে ইএসপিএন এর তথ্যমতে, ২০১৯ সাল থেকে ২০২২ সালের মধ্যে ফিফা গেম বিক্রি করে ৭ বিলিয়ন ডলার আয় করেছে ইএ স্পোর্টস। লভ্যাংশ ভাগাভাগি নিয়ে ইএ স্পোর্টসের সঙ্গে ফিফার দরকষাকষি বেশ পুরনো। তবে এতদিন চুক্তির শর্ত মানতে গিয়ে সরতে পারেনি ফিফা। ফিফার সঙ্গে চুক্তি শেষে ইএ স্পোর্টস নিজেরাই ভিডিও গেমটি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। নতুন গেমের মূল নাম হবে ইএ স্পোর্টস এফসি (EA Sports FC)।
শ্রীলঙ্কা: একটি পরিবারের হাতে একটি দেশ দেউলিয়া!
শ্রীলঙ্কার মতো একটি দ্বীপরাষ্ট্রকে সামগ্রিকভাবে পঙ্গু করে দেয়া রাজাপাকসে পরিবারের ক্ষমতার নেশা অনেক পুরনো। প্রজন্মের পর প্রজন্ম দাপট দেখিয়ে আসছে এই রাজাপাকসে পরিবার। দেশটিতে এখন রাজত্ব করছে রাজাপাকসে পরিবারের তৃতীয় পুরুষ। বাবার হাত ধরে ছেলে, ভাইয়ের পিছু পিছু ভাই, কাকার দেখাদেখি ভাতিজা- এভাবেই পুরো দেশের ক্ষমতা তাদের পারিবারিক চৌহদ্দিতে।
দুর্গন্ধ ছাড়িয়ে সুগন্ধির যুগ: অতীত সভ্যসমাজে সুগন্ধি ব্যবহারের অজানা কথা
প্রাচীনকাল থেকেই মানুষ নিঃশ্বাস সতেজ রাখতে সুগন্ধি গাছের বাকলকে রাসায়নিক পরিবর্তন করেছিল। পার্থক্য হলো এই বিষয়গুলো ইউরোপে তখনও পৌঁছায়নি কিংবা ইউরোপীয়রা সেগুলো গ্রহণ করেনি। এসব গবেষণা আরো প্রমাণ করে যে, ফরাসি বিপ্লবের পূর্বে যে ফ্রান্স এবং তার ইতিহাস বিদ্যমান ছিল সেটি বিশেষ সুগন্ধি ও তাদের বিপণন নিয়ে মোটেও ভাবেনি। আমেরিকানরাও এই বিষয়ে মনোযোগ দেয়নি কারণ তাদের মূল তৎপরতা ছিল অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং যৌনজীবনকে ঘিরে।
সক্রেটিস: দার্শনিক নাকি গ্রিক ঐতিহাসিকদের সৃষ্ট কাল্পনিক কোনো চরিত্র?
সক্রেটিসের অগণিত ছাত্র থাকা স্বত্ত্বেও তিনি কখনোই তাদের একত্র করে কোনো আনুষ্ঠানিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেননি। বরঞ্চ তিনি রাস্তাঘাট, পাহাড় যখন যেখানে পারতেন মতবাদ প্রচার করতেন। আবার ঐ নাটকে সক্রেটিস এমন সব সমস্যার মোকাবেলা করেন যেগুলো প্লেটো কখনো বিবেচনা করেননি। যেমন, একটি মাছির লাফের দূরত্ব পরিমাপ করার মতো বিষয়! অ্যারিস্টোফেনসের নাটকে দেখানো সক্রেটিস কিন্তু এই কাজও করেছেন। প্লেটোর সক্রেটিসের সংস্করণ এবং অ্যারিস্টোফেনসের নাটকের চরিত্রের সঙ্গে উল্লেখযোগ্য পার্থক্যগুলো পণ্ডিতদের পরামর্শ দিতে বাধ্য করেছিল। দ্য ক্লাউডস নাটকে সক্রেটিসের যে ব্যঙ্গাত্মক রূপ দেখানো হয়েছিল তা মোটেও যথার্থ নয়।
স্কোপোলামাইন: মুহূর্তেই মানুষকে নিঃস্ব করে দেয় যে ভয়ঙ্কর ড্রাগ!
আপনি একজন জোম্বির ন্যায় আচরণ করতে শুরু করবেন। আপনি হ্যালো বলার ক্ষমতাও হারিয়ে ফেলবেন। অনুভূতি প্রকাশের ক্ষমতাও থাকবে না আপনার। " তার সাথে ঠিক কী ঘটেছিল এমন প্রশ্নে ক্যারোলিনা জানালেন , "আমি বাস ধরার জন্য হাঁটছিলাম। এক লোক আমাকে থামালো এবং এক টুকরো কাগজ আমার দিকে বাড়িয়ে দিয়ে বললো এই ঠিকানাটা কোন দিকে জানাতে। ঠিকানাটা কাছেই ছিল। তাই আমি তাকে সেখানে পৌঁছে দিলাম। আমরা একসাথে জুস খেলাম। আমার মনে হলো, জুসের মধ্যে তিনি স্কোপোলামাইন মিশিয়ে দিয়েছিলেন।