মুন্সিগঞ্জ | Ridmik News
মুন্সিগঞ্জ
পদ্মা পাড়ে গ্রামীণ মেলা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষ করে ঢাকার উদ্দেশে চলে যাওয়ার পর নেতাকর্মীরাও কাঁঠালবাড়ীর জনসভাস্থল ছাড়তে শুরু করেন। কিন্তু সেখানে থেকে যান উৎসবপাগল মানুষেরা। দুপুরে আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেও বিকেল পর্যন্ত চলছিল নাচ-গান, ঢাকঢোলের বাদ্য। এমনকি শেষ বিকেলে পদ্মার পাড় থেকে শুরু করে সভাস্থল পর্যন্ত বসেছিল হরেক রকম খেলনাসহ নানা পণ্যের মেলা। পদ্মার পাড়ে খোলা আকাশে ভিড় করেন আশপাশের এলাকার নারী, পুরুষ ও শিশুরা। বাবা-মায়ের কোলে চড়ে আসে ছোট্ট শিশুও। শেষ বিকেলে পদ্মা সেতুর দুই পাড়ে শত শত লোক ভিড় করেন। অনেকেই নিরাপত্তা চোখ ফাঁকি দিয়ে টোলপ্লাজা পর্যন্ত চলে যান। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে হিমশিম খেতে হয় দুই পাড়ের দুই থানার পুলিশকেও।
শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌপথে ফেরি চলাচল বন্ধ
পদ্মা নদীর শিমুলিয়া ও মাঝিকান্দি ফেরি রুটে তীব্র স্রোতের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) মাঝিকান্দি ঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাউদ্দিন। রোববার (১৯ জুন) রাত ১০টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। এই নৌপথে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানান মো. সালাউদ্দিন। তিনি বলেন, নদীতে পানি বৃদ্ধি ও তীব্র স্রোতের কারণে ফেরি চলতে বিঘ্ন ঘটে। এতে করে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। নদীর পানি ও স্রোত কমলে ফেরি চলাচল আবার পুনরায় শুরু করবে। বিআইডব্লিউটিসির সূত্রে জানা যায়, রাতে শিমুলিয়া ও কাওড়াকান্দি ঘাটের ফেরি চলাচল বন্ধ থাকে। এতে করে এই রুটে যানবাহন পারাপার হয়। দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি জেলার যানবাহন ঢাকায় যেতে এই নদীপথটি ব্যবহার করে। রোববার সন্ধ্যার পর থেকে নৌপথের বিভিন্ন স্থানে স্রোত ও ঢেউয়ের কারণে চালকদের ফেরি চালাতে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছিল। ফলে সন্ধ্যায় যেসব ফেরি জাজিরা প্রান্তের সাত্তার মাদবর–মঙ্গলমাঝির ঘাটে গিয়েছিল, সেগুলো শিমুলিয়ায় ফেরার পর থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।
টাঙ্গাইল, মুন্সীগঞ্জ ও শরীয়তপুরে এবার বন্যার শঙ্কা
আগামী ২৪ ঘণ্টায় টাঙ্গাইল, মুন্সীগঞ্জ ও শরীয়তপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা হওয়ার সম্ভাবনা রয়রছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড। রোববার (১৯ জুন) পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়ার সই করা এ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের প্রধান প্রধান নদ-নদীতে পানি (পানির সমতল বা উচ্চতা) বৃদ্ধি পাচ্ছে। আবহাওয়া অফিসের গাণিতিক মডেলভিত্তিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের আসাম, মেঘালয় ও হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গে মাঝারি থেকে ভারী এবং কোথাও কোথাও অতিভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে। ফলে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, গঙ্গা-পদ্মা, সুরমা, কুশিয়ারা, তিস্তা, ধরলা ও দুধকুমারসহ সব প্রধান নদ-নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে। পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় লালমনিরহাট, নীলফামারী, রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ ও জামালপুর জেলার বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে। এছাড়া দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোণা জেলার বন্যা পরিস্থিতিরও অবনতি হতে পারে।
সন্তানদের জামিনে ছাড়িয়ে আনলেন গোয়ালঘরে বন্দী সেই মা!
মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রাম ইউনিয়নে বৃদ্ধ মাকে গোয়ালঘরে রাখায় দুই ছেলে ও এক পুত্রবধূ গ্রেফতার হয়েছিল। পরে গ্রেফতার হওয়া সন্তাদের জামিনে ছাড়িয়ে আনলেন সেই বৃদ্ধা আয়েশা বেগম। জানা গেছে, চারিগ্রামের মৃত হজরত আলীর স্ত্রী আয়েশা বেগম। বয়স ৮৫ বছর। তিন ছেলে মো. কলম, মোস্তফা ও চানু মিয়া। চানু মিয়া প্রবাসী। অন্য দুই ভাই কৃষিকাজ করেন। পৈতৃক বাড়িতে স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে থাকেন।
গোয়ালঘরে ঠাঁই হলো বৃদ্ধা মায়ের
মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার চারিগ্রাম ইউনিয়নে বৃদ্ধ মায়ের ঠাঁই হয়েছে গোয়ালঘরে! এমনই ঘটনার অভিযোগে দুই ছেলে ও এক পুত্রবধূকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার (১৩ জুন) বিকেলে আয়েশা বেগম ( ৮৫ ) নামে ওই বৃদ্ধাকে গোয়ালঘর থেকে পুলিশ উদ্ধার করেন। অসহায় বৃদ্ধা উপজেলার চারিগ্রাম ইউনিয়নের মধ্য চারিগ্রাম এলাকার মৃত হযরত আলী ওরফে আজারির স্ত্রী। আটকরা হলেন- বৃদ্ধার সন্তান কলম (৫৫), মোস্তফা কামাল (৪৫) ও গৃহবধূ মর্জিনা (৩২)। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,এ বছরের শুরুতে আয়েশা বেগমকে নিজ ঘর থেকে বের করে দিয়ে বাড়ির উঠানে গোয়ালঘরে থাকতে দেন ছেলের বৌ। অপরিষ্কার-অপরিছন্ন স্থানে দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। আবার তাকে তিন বেলা খেতে দেয়াও হতো না। এই মানবিক অবস্থা দেখে মাঝে মাঝে প্রতিবেশীরা সহায়তার হাত বাড়ালে গৃহবধূরা খারাপ আচরণ করতেন। বিষয়টি থানা পুলিশের নজরে এলে অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিক বৃদ্ধাকে উদ্ধারসহ তার দুই ছেলে কলম ও মোস্তফা কামাল এবং গৃহবধূ মর্জিনাকে আটক করেন। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম মোল্যা।
পদ্মা সেতু চালু হলেও শিমুলিয়া নৌবন্দর থাকবে: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
পদ্মা সেতু চালু হলেও শিমুলিয়া ঘাট থাকবে। এই ফেরি সার্ভিসের চাহিদা আছে। দূরপাল্লার যানবাহনগুলো এই রুটটি বেছে নেবে। কারণ ফেরিতে তাদের একটি বিশ্রাম হবে। পণ্যবাহী যানবাহনের জন্যও এর চাহিদা থাকবে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। শনিবার (১১ জুন) সকালে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়াঘাট এলাকা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা জানান তিনি। এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘিরে দু’পাড়েই উৎসবের আয়োজন হবে। ৫০ বছরের ইতিহাসে সবচাইতে জমকালো একটি উৎসব হতে যাচ্ছে এটি। বাংলাদেশের প্রত্যেকটি মানুষ এর সঙ্গে যুক্ত থাকবে। পর্যটন ও ইকোজোন করার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, নদীকে থামিয়ে রাখা যাবে না, নদী বহমান। নদীকে ঘিরেই আমাদের জীবন জীবিকা। নদীর সঙ্গে আমাদের যে সম্পর্ক সেটা বন্ধ করা যাবে না। এসব অব্যাহত থাকবে।
পদ্মায় ফেরিতে আগুন
মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাট থেকে যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে যাওয়ার সময় ফেরিতে আগুন লেগেছে। শনিবার (১১ জুন) সকাল সোয়া পাঁচটার দিকে পদ্মা নদীর মাঝিরকান্দি চ্যানেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ফেরির একটি কক্ষের বিছানা, আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। দুর্ঘটনা কবলিত ফেরিটির নাম ফেরি রোকেয়া। ফেরিটি শরীয়তপুরের মাঝিরকান্দি ঘাটে যাচ্ছিল। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহমেদ জানান, মাঝিরকান্দি চ্যানেলে প্রবেশের পর ফেরির ক্যান্টিনের পাশের একটি তালাবদ্ধ কক্ষে আগুন লাগে। ঐ সময় ফেরিতে থাকা যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
বাংলাবাজার-শিমুলিয়া ঘাটে নৌযান চলাচল বন্ধ
বৈরী আবহাওয়ার কারণে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রয়েছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) বাংলাবাজার ঘাটের পক্ষ থেকে বিষয়টি জানানো হয়। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে নৌরুটে সব ধরণের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়। বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বেলা ১১ টার দিকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতে শুরু করে। সাড়ে ১১টার দিকে বৃষ্টির সঙ্গে বাতাস শুরু হলে দুর্ঘটনা এড়াতে নৌরুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঝড়ো বাতাসের কারণে উত্তাল হয়ে উঠে পদ্মা নদী। তাই নৌযান চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ঢাকাগামী যাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন শিবচরের বাংলাবাজার ঘাটে। বিআইডব্লিউটিএ’র বাংলাবাজার লঞ্চ ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, আবহাওয়া বৈরী হওয়ার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে সব লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রাখা হয়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে নৌযান চলাচল শুরু করবে।
১৬ ফুট বালির নিচ থেকে স্বর্ণ ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪
ব্যবসা করার জন্য নয়ন মন্ডলকে (২৬) রিপন মন্ডলের মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা ধার দিয়েছিলেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী অনুপ বাউল (৩৪)।  সেই টাকাই যেন কাল হয়ে দাঁড়ালো তার জীবনের জন্যহ। পাওনা টাকা নিয়ে নয়ন মন্ডলের সাথে বিরোধের সৃষ্টি হলে অনুপ বাউলকে হত্যার পরিকল্পনা করেন নয়ন। গত জানুয়ারি মাসের ৪ তারিখ অর্থাৎ ,পাঁচ মাস আগে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদী খাঁন এলাকা থেকে শ্বশুরবাড়ি মাদারীপুর যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন স্বর্ণ ব্যবসায়ী নিহত অনুপ বাউল। পরিকল্পনা অনুযায়ী রিপনসহ চারজন অনুপ বাউলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন। হত্যার পর অনুপ বাউলের মরদেহ মাটি কাটার ভেকু দিয়ে ৪ ফিট গভীর করে বালির নিচে পুঁতে রাখেন রিপন মন্ডল। এ ঘটনার পাঁচ মাস পর নিখোঁজ স্বর্ণ ব্যবসায়ী নিহত অনুপ বাউলের মরদেহ ১৬ ফুট বালির নিচ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলেন- ভেকুর মালিক রিপন মন্ডল (২৬), নয়ন মন্ডল (২৬), পিযুষ করাতি (২৫) ও দিলীপ চন্দ্র রায়। বৃহস্পতিবার (২ জুন) ধানমন্ডির পিবিআই সদর দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন সংস্থাটির প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি বনজ কুমার মজুমদার।
ট্রাক্টর খাদে পড়ে ২ জনের মৃত্যু
মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় ট্রাক্টর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের একটি খাদে পড়ে ২ জন মারা গেছেন। রোববার (২৯ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে হাটিপাড়া ইউনিয়নে বালিটেক-বেড়িবাঁধ আঞ্চলিক সড়কের হাটিপাড়া বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- টাঙ্গাইলের ছোট বাসালিয়া গ্রামের সামাদ মিয়ার ছেলে আয়নাল (৩৫) ও একই জেলার বায়টা গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে মিরাজ (৩৩)। তারা দুজনই ওই ট্রাক্টরের লেবার ছিল বলে জানান সদর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সোহেল রানা। মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা খাঁনে আলম জানান, খুঁটিবোঝাই ট্রাক্টরটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এ সময় খুঁটির নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই দুজন মারা গেছে। খবর পেয়ে আহতদের উদ্ধার করে হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনায় চালকসহ তিনজন আহত হয়েছেন। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ সরকার। তিনি জানান, মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতদের স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে।
শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে টানা ৪ দিন ফেরি চলাচল বন্ধ
তীব্র স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে টানা ৪ দিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। হঠাৎ তীব্র স্রোত ও ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হওয়ায় গত বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এদিকে, রোববার (২৯ মে) সকালে স্রোতের তোড়ে নৌপথের টার্নিং পয়েন্ট থেকে ভেসে যাওয়া মার্কিং বয়া পুনরায় স্থাপন করা হয়েছে। তবে স্রোতের গতি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ফেরি চলাচল শুরু করা যাচ্ছে না বলে জানান শিমুলিয়া ঘাটের বিআইডব্লিউটিসির উপ-মহাব্যবস্থাপক (মেরিন) আহমদ আলী। তিনি জানান, ফেরি চলাচল অব্যাহত রয়েছে শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌরুটে। এই পথে ৭টি ফেরি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। শিমুলিয়া নদী বন্দরের নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী পরিচালক এবং সহকারী বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) শাহাদাত হোসেন জানান, রোববার বেলা ১২টায় শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে হাজরা চ্যানেলে একটি লাল লাইটের বয়া স্থাপন করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া আসার পথে ফেরিগুলো নিরাপদে পদ্মা সেতু অতিক্রম করতে পারবে। বয়াটি পুনরায় স্থাপন করায় ফেরি চলাচলে আর অসুবিধা নেই।
শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ
তীব্র স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে আজও ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। জানা গেছে, পদ্মায় হঠাৎ তীব্র স্রোত ও ঘূর্ণাবর্তের তোড়ে নৌপথের টার্নিং পয়েন্ট থেকে মার্কিং বয়া ভেসে গেছে। এ কারণে ফেরি চলাচলে দিক নির্ণয় করতে সমস্যা হচ্ছে। দুর্ঘটনা এড়াতে বৃহস্পতিবার থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ। তবে শিমুলিয়া-মাঝিকান্দি নৌপথে ফেরি চলাচল অব্যাহত রয়েছে। এই নৌরুটে আটটি ফেরি দিয়ে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথের ফেরিগুলো পদ্মা সেতুর নিচ দিয়ে চলাচল করে। এ কারণে তীব্র স্রোতে দুর্ঘটনার শঙ্কায় ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
একসঙ্গে ৩ সন্তান জন্ম দেয়ায় আজীবন প্রসূতি মায়ের চিকিৎসা ফ্রি
মুন্সীগঞ্জের গজারিয়াতে তিন সন্তান একসঙ্গে জম্ম দেয়ায় আজীবন ফ্রি চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে বলে জানিয়েছে হাসাপাতাল কতৃপহ্ম। বুধবার (২৫ মে) রাশিদা বেগম নামের এক নারী সিজারের মাধ্যমে তিন কন্যা জন্ম দেয়ার পর হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরেন। একসঙ্গে ৩ সন্তানের জন্ম হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা সবার মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করেছেন।
ফ্রান্সে সন্ত্রাসীদের হাতে বাংলাদেশি খুন
ফ্রান্সে সন্ত্রাসীদের হাতে নির্মমভাবে খুন হয়েছেন এক প্রবাসী বাংলাদেশি। গত শনিবার (২১ মে) আক্রমণে আহত হওয়ার পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বুধবার (২৫ মে) ভোরে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। নিহতের নাম সোহেল রানা (৪৩)। তিনি মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখানের লতব্দী ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামের আজিজুল হক সরকারে পুত্র। নিহতের বাবা আজিজুল হক সরকার জানান, ‘আমার ছেলে সোহল রানা রাজধানী প্যারিসের একটি রেস্টুরেন্টে রাতের বেলা কাজ করতেন। ছেলে কর্মচারী হলেও মালিকসহ সবাই আমার ছেলেকে খুব আদর করত। প্রতিদিনের মতো গেল শনিবার ভোর ৫টার দিকে রেস্টুরেন্টে কাজ শেষ করে সবাই বাসার উদ্দেশে বের হয়ে গেলে আমার ছেলে বের হয় ১০ মিনিট পর। রেস্টুরেন্টের কাছের একটি গলিতে ৪ সন্ত্রাসী মিলে আমার ছেলেকে মারধর করে পালিয়ে যায় তবে মাথার আঘাতটা ছিল খুব বেশি। পরে পুলিশ এসে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে সিরাজদীখান থানার ওসি (তদন্ত) মো. আজগর হোসেন জানান, মেসেজটা আমরা পেয়ে নিহতের বাড়িতে খোঁজখবর নিয়েছি। তবে নিহতের বাবা-মা ঢাকায় শান্তিনগরে বসবাস করেন তাই তাদের সঙ্গে মোবাইলে খোঁজখবর আমরা নিচ্ছি।
বৈরী আবহাওয়া: শিমুলিয়ায় স্পিডবোট চলাচল বন্ধ
বৈরী আবহাওয়ার কারণে শনিবার (২১ মে) ভোর ৬ টা থেকে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে বাংলাবাজার নৌপথে বন্ধ ছিল লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল। তবে আবহাওয়া কিছুটা স্বাভাবিক হলে দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর সকাল ৮টা থেকে লঞ্চ চলাচল শুরু করেছে। স্পিডবোট চলাচল এখনও বন্ধ রয়েছে। শনিবার সকাল ৮ টার দিকেও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। আবহাওয়া খারাপ হয়ে উঠলে ফের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হতে পারে। বিআইডব্লিউটিএ'র বাংলাবাজার লঞ্চঘাট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে সূত্রটি জানায়, শনিবার ভোর থেকে বৃষ্টির সঙ্গে প্রচণ্ড ঝড়োবাতাস বইতে থাকে। এ সময় দুর্ঘটনা এড়াতে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রাখা হয়। সকাল ৮টার দিকে বাতাস ও বৃষ্টি কমে এলে অপেক্ষাকৃত বড় লঞ্চগুলো স্বল্পসংখ্যক যাত্রী নিয়ে বাংলাবাজার ঘাট ছেড়ে যায়। তবে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন ও হালকা বাতাস থাকায় মাঝ পদ্মা উত্তাল রয়েছে। একারণে স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিএ'র বাংলাবাজার ঘাটের সহকারী ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মো.ফরিদ হোসেন। তিনি বলেন, আবহাওয়া কিছুটা স্বাভাবিক হলে সকাল ৮টা থেকে সীমিত যাত্রী নিয়ে লঞ্চ ছাড়া হচ্ছে। স্পিডবোট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আবহাওয়া পুরোপুরি স্বাভাবিক হলে স্পিডবোটও চলবে।