বিএনপি | Ridmik News
বিএনপি
'আমাদের কর্মীদের গায়ে হাত তুললে খবর আছে'
আওয়ামী লীগ কর্মীদের উপর হাত তুললে 'খবর' আছে বলে সতর্ক করলেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শনিবার (১ অক্টোবর) রাজধানীর হাজারীবাগে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশে তিন এ কথা বলেন। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আমাদের কর্মীদের গায়ে হাত তুলছেন, আমাদের কর্মীদের গায়ে হাত তুললে খবর আছে। আবারও বলছি, খবর আছে। পাল্টা জবাব পাবেন। তিনি আরও বলেন, মির্জা ফখরুল রাজনীতি করেন, শিক্ষকতা করেছেন। কিন্তু জ্যোতির্বিদ্যা জানেন, এটা জানতাম না। আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ৩০টি আসনও পাবে না। তিনি জ্যোতিষী, জ্যোতিষী ফখরুল। তিনি আমাদের ৩০টি আসনও দেবেন না।
'বিএনপির ৩০ আসনের বক্তব্য তাদের বেলাতেই প্রযোজ্য'
তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির '৩০ আসনের বক্তব্য তাদের বেলাতেই প্রযোজ্য, ইতিহাস এর সাক্ষী। শনিবার (১ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ইউল্যাব প্রাঙ্গণে সাংবাদিকরা শুক্রবার গাজীপুরে বিএনপি মহাসচিবের দেয়া বক্তব্য 'তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ৩০টির বেশি আসন পাবে না' নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি এ কথা বলেন। ড. হাছান বলেন, '২০০৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন যে, সুষ্ঠু অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ৩০টি আসনও পাবে না। ২০০৮ সালে দেশের ইতিহাসে অত্যন্ত সুষ্ঠু অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়েছিল। ভাগ্যের এমনই নির্মম পরিহাস, বিএনপি ২৯টি আসন পেয়েছিল, ৩০টি পূর্ণ করতে পারেনি। সুতরাং মির্জা ফখরুল সাহেব যে কথাটি বলেছেন, সেটি বিএনপির বেলাতেই প্রযোজ্য।'
'লাঠিতে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে মাঠে নামলে বিএনপি'র খবর আছে'
মহাসমাবেশ করেন, কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু, লাঠিতে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে মাঠে নামলে, সামনের দিনে খবর আছে বিএনপির বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, 'হাঁটুভাঙ্গা বিএনপি এখন লাঠির ওপর ভর করেছে। তাদের আস্ফালন শুনছি। লাঠিবাজির জবাব দেবে আওয়ামী লীগ। এক মাস-দুই মাসের কর্মসূচি দেবেন দেন, মহাসমাবেশও করেন। কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু, লাঠিতে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে মাঠে নামলে, সামনের দিনে খবর আছে বিএনপির। আন্দোলন করুন, কিন্তু কোনো লাঠিবাজি চলবে না। রাজপথ কারো পৈতৃক সম্পত্তি নয়। জনগণের জন্য রাস্তায় নামবো আমরাও। অপেক্ষায় আছি; দেখছি। ২২ দলের জগাখিচুড়ি নিয়ে আন্দোলনে নামছে তারা।'
শাবিতে জাতীয় ছাত্রদলের নতুন সভাপতি উসমান, সম্পাদক জয়
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা জাতীয় ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে মনোনীত হয়েছেন বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী উসমান গনি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনীত হয়েছেন পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী সজীব আহমেদ জয়। শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সংগঠনটির পক্ষ থেকে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। এতে বলা হয়, গত বৃহস্পতিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটোরিয়ামে সংগঠনটির ১৬তম কাউন্সিল সভা শেষে এই কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি শিবানন্দ হাজং, মিলন বিশ্বাস, ওয়াসিম মোহাম্মদ শামস, সহ সাধারণ সম্পাদক রাকেশ চন্দ্র দাস, তুহিনুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক তুখোড় আরেং, প্রচার সম্পাদক শুভ্রদেব হাজং, অর্থ সম্পাদক সালমান শাহ, দপ্তর সম্পাদক এমং ছাইন মারমা, পাঠচক্র সম্পাদক জুয়েল চাকমা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক দিবাকর বিশ্বাস দিগন্ত এবং সম্মানিত সদস্য দ্বীনবন্ধু সরকার সৌরভ। এছাড়াও সদস্য হিসেবে রয়েছেন রনি হাজং, অন্তিক চৌধুরী, সজীব আহমেদ, হেদায়েত সাব্বির, নূর আলম এবং অশেষ চাকমা।
নৈরাজ্য-বিশৃঙ্খলার পথেই বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, 'জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি ২০১৩, ১৪, ১৫ সালে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে ২০১৮ সালেও নৈরাজ্য সৃষ্টির অপচেষ্টা চালিয়েছিল। এখনও তারা একই পথে হাঁটছে। এই পথে হেঁটে বিএনপির কোনো লাভ হবে না।' বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বসুন্ধরায় নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির শরৎকালীন পর্বের নবীনবরণ ও পরিচিতি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। বিএনপির সাম্প্রতিক মিছিল-সমাবেশ নিয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী হাছান বলেন, 'আমরা গত ক'দিন ধরে দেখছি বিএনপি বাঁশের লাঠি, কাঠের লাঠি, লোহার রড নিয়ে মিছিল করছে। তারা অতীতে জনগণ ও পুলিশের ওপর হামলা পরিচালনা করেছে, গতকালও মুন্সিগঞ্জে পুলিশের ওপর হামলা পরিচালনা করেছে। ফলে সহজেই অনুমেয় এখন তারা নিজেরা আতঙ্কিত এবং তারা আবার নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে চাচ্ছে।'
‘বিএনপিকে সমস্ত জায়গায় প্রতিহত করা হবে’
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি যখন প্রমাণ করেছে তারা স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, চেতনায় পাকিস্তানকে লালন করে এবং দেশকে আবার পাকিস্তান বানানোর স্বপ্ন দেখে, সুতরাং তাদেরকে সমস্ত জায়গায় প্রতিহত করা হবে। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত ‘বিএনপি মহাসচিবের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র ও রাষ্ট্রদ্রোহী বক্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশে’ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান। ড. হাছান বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেব তার বক্তব্যের মাধ্যমে পরিস্কার করেছেন, তারা হৃদয়ে পাকিস্তানকে লালন করে এবং সুযোগ পেলে তারা এই বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানিয়ে ফেলবে। স্বাধীনতার ৫১ বছর পর তিনি তার বসতভিটায় বসে কিভাবে বলেন যে পাকিস্তানই ভালো ছিল! তার এই বক্তব্য মুক্তিযুদ্ধের প্রতি অবমাননা, মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদদের প্রতি অবমাননা, আমাদের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন।’
'রাজপথ কোনো দলের পৈতৃক সম্পত্তি নয়'
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাজপথ কোনো রাজনৈতিক দলের পৈতৃক সম্পত্তি নয়। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজধানীর লালবাগস্থ নবাবগঞ্জ পার্কে আয়োজিত লালবাগ থানা এবং ২৩, ২৪, ২৫ ও ২৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। ‘রাজপথ এখন থেকে বিএনপির দখলে থাকবে’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আন্দোলন করতে চাইলে শান্তিপূর্ণভাবে রাজপথে আন্দোলন করুন। আন্দোলনের নামে কোনো ধরনের নৈরাজ্য সৃষ্টি করবেন না। রাজপথ কাউকে ইজারা দেয়া হয়নি। আপনারা ফাঁকা মাঠে আন্দোলন করবেন, আর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বসে বসে আঙ্গুল চুষবে তা হবে না। তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি আন্দোলন করার জন্য কিছু লোক নামিয়েছে। কারা কত দিন থাকে আমরাও দেখবো। গতবার নির্বাচনের সময়ে ২২ দলের অবস্থা ছিল জগাখিচুড়ি। এখন তাদের অবস্থা আষাঢ়ের তর্জন-গর্জন সাড়।’
খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি
আগের শর্তে ষষ্ঠবারের মতো বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ ৬ মাস বাড়ানো হয়েছে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, আগের মতো খালেদা জিয়া ঢাকার নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন এবং এই সময়ে তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। এর আগে রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আবেদনে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি প্রকাশ করেছেন। কাজেই মেয়াদ ৬ মাসের জন্য বৃদ্ধি হয়ে যাবে। আমরা জিও জারি করে দেব। তিনি বলেন, কোর্টে নির্ধারিত যে শর্ত ছিল, সে অনুযায়ী সময়কাল ৬ মাস বৃদ্ধি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সোমবার প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। গত ১১ সেপ্টেম্বর ষষ্ঠবারের মতো বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করে তার পরিবার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ আবেদন জমা দেয়া হয়।
‘মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে মামলা হওয়া উচিত'
পাকিস্তান সরকার থেকে বর্তমান সরকার আরও নিকৃষ্ট। আমরা পাকিস্তান আমলে আর্থিক ও জীবনযাত্রার দিক থেকে এর থেকে ভালো ছিলাম- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা হওয়া দরকার বলে মনে করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে 'বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে সংসদে ভাষণ' গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরকে হতাশাজনক বলে মনে করছেন। তারা এই হতাশা থেকে আন্দোলনে নামবে। এ বিষয়টি কিভাবে দেখছেন- এ প্রশ্নের জবাবে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, বিএনপির সব কিছুতেই হতাশা। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পাকিস্তানই ভালো ছিল। অতএব তাদের বাংলাদেশ নিয়েই হতাশা। মির্জা ফখরুল কিভাবে বলেন? আমিতো মনে করি এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে মামলা হওয়া দরকার।
খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ানোর প্রজ্ঞাপন সোমবার
ষষ্ঠবারের মতো বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ ৬ মাস বাড়ানো হচ্ছে। এ বিষয়ে সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। মন্ত্রী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তার যে আবেদন সেটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সম্মতি প্রকাশ করেছেন। কাজেই মেয়াদ ৬ মাসের জন্য বৃদ্ধি হয়ে যাবে। আমরা জিও জারি করে দেবো। পূর্বে যে শর্ত ছিল, কোর্টে নির্ধারিত যে শর্ত ছিল, সেটা অনুযায়ীই সময়কাল ৬ মাস বৃদ্ধি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সোমবার প্রজ্ঞাপন হবে।
'বিএনপি দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্ত করতে চায়'
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাক, সেটা বিএনপি-জামায়াত চায় না। তারা সবসময় ষড়যন্ত্র করে। তারা দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বাধাগ্রস্ত করতে চায়। কিন্তু আওয়ামী লীগ জনগণের দল বলে তারা কোনো ষড়যন্ত্র করে ঠিক থাকতে পারেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলেই উন্নয়ন হচ্ছে। উন্নয়নের যাত্রা অব্যাহত রাখতে হলে সরকারের ধারাবাহিকতা থাকা প্রয়োজন। শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে মোসলেহ উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়াম মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঢাকার বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, দুর্নীতির কারণে বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন দলে পরিণত হয়েছে। পক্ষান্তরে আওয়ামী লীগ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী একটি রাজনৈতিক দল। ওবায়দুল কাদের দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধতার প্রতীক। ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। আওয়ামী লীগের সব নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ থেকে আগামী নির্বাচনের জন্য কাজ করে যেতে হবে।
'গণতান্ত্রিক অভিযাত্রায় প্রধান প্রতিবন্ধক বিএনপি'
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের অভিযাত্রা নিরবচ্ছিন্ন করার ক্ষেত্রে প্রধান প্রতিবন্ধক হচ্ছে বিএনপি। এটিই আজ গণতন্ত্র দিবসের বাস্তবতা। তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক অভিযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য যা কিছু আজকে বিএনপিই করছে এবং গণতান্ত্রিক রীতিনীতি ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার ক্ষেত্রে তারাই প্রধান অন্তরায়। আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত জনতার সরকার ইন্টারেক্টিভ ওয়েবপোর্টাল janatarsarkar.gov.bd উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
'বিএনপি মধ্যযুগীয় কায়দায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতন করেছিল'
ক্ষমতায় থাকাকালে বিএনপি মধ্যযুগীয় কায়দায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অত্যাচার-নির্যাতন করেছিল এবং ২৬ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করেছিল বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, ২০০১ সালে একটি নীলনকশার নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপি ক্ষমতায় এসেছিল। ধর্মান্ধ, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি জামায়াতকে সাথে নিয়ে ক্ষমতায় এসেই ধর্মীয় সংখ্যালঘু ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপর বিএনপি মধ্যযুগীয় কায়দায় ঝাঁপিয়ে পড়ে। চরম নির্যাতন ও হত্যাকাণ্ড শুরু করে। আওয়ামী লীগের ২৬ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করেছিল। তাদের এই অত্যাচার-নির্যাতনের ইতিহাস আরব্য রজনীর গল্পের মতো এক হাজার এক রাতেও বলে শেষ করা যাবে না। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে রাজধানীর গ্রিন রোড স্টাফ কোয়ার্টার মাঠে ধানমন্ডি, কলাবাগান ও নিউ মার্কেট থানাধীন বিভিন্ন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
'বিএনপির সাংঘর্ষিক এবং না বলার রাজনীতির অবসান প্রয়োজন'
‘বিএনপির সবকিছুতেই না বলার যে রাজনীতি সেটি অবসান হওয়া প্রয়োজন। যেখানে না বলা দরকার অবশ্যই সেখানে না বলবে। কিন্তু সবকিছুতেই না বলা আর সবসময় সাংঘর্ষিক রাজনীতি করা দেশের উন্নয়ন অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করে, যেটি বিএনপি করছে। আমি আশা করবো সাংঘর্ষিক রাজনীতি আর না বলার রাজনীতি থেকে বিএনপি নিজেকে মুক্ত করবে।’ মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীতে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট-পিআইবি মিলনায়তনে বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদ-বিএসপি আয়োজিত বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি একথা বলেন।
দেড় লাখের বেশি বিল বাকি, গয়েশ্বরের বাড়ির গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন
দেড় লাখের বেশি বিল বাকি থাকায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গায়েশ্বর রায়ের বাড়ির গ্যাসের লাইন কেটে দেয়া হয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। গতকাল সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিতাস গ্যাসের ধানমন্ডি জোন অফিস গয়েশ্বরের শেরে বাংলা রোডের বাসায় অভিযান চালিয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিএনপির নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বাসায় সাতটি ডবল বার্নারের জন্য বকেয়া বিল ছিল ১ লাখ ৭০ হাজার ৩৬৮ টাকা। তিনি সর্বশেষ বিল জমা দিয়েছেন ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে। চলতি বছরের জুলাই পর্যন্ত দীর্ঘ ৩০ মাস কোনো বিল পরিশোধ না করলেও নিয়মিত চুলাগুলো ব্যবহার করছিলেন। বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বিষয়ে জানতে চাইলে একাধিকবার কল করেও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে পাওয়া যায়নি।