অন্যরকম ও বিশেষ সংবাদ | Exclusive News | Ridmik News
এক্সক্লুসিভ
গোলাপি হয়ে উঠলো ৫০ হাজার বছরের পুরনো লেক!
প্রায় ৫০ হাজার বছর আগে পৃথিবীতে একটি উল্কা আঘাত হেনেছিল। সেই আঘাতে ভারতের মুম্বাই থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার পূর্ব দিকে মহারাষ্ট্রে তৈরি হয়েছিল লোনার নামক লেকটি। বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম হ্রদ এটি। এর রঙ সাধারণত পান্না সবুজের মতো থাকে। কিন্তু এখন তা রহস্যজনকভাবে গোলাপি হয়ে উঠেছে! এ দৃশ্য দেখে সবাই অবাক। লোনার লেকের বদলে যাওয়া রঙের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। কী কারণে জলাশয়টি গোলাপি হয়ে উঠলো? সবার মনে এখন এই প্রশ্ন।
বিমান দেখতে না দেয়ায় নিজেই বিমান বানিয়ে ফেললেন ফাইভ পাস যুবক!
মাথার উপর দিয়ে প্রতিদিন সাঁইসাঁই করে উড়ে যেতো বিমান। সেদিকে তাকিয়ে ছেলেটি রোজ ভাবত বিমানবন্দরে গিয়ে বিমানের ওঠানামা দেখবে। সেই শখ পূরণ করতে ছুটে গিয়েছিল জয়পুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। কিন্তু বিমান ওঠানামা দেখব বললেই তো আর দেখা যায় না! বিমানবন্দরে নিজের শখ পূরণ করতেই ছুটে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে ঢুকতে বাধা দিয়েছিলেন সেখানকার নিরাপত্তারক্ষীরা। আর তাই বড় হয়ে বানিয়ে ফেললেন আস্ত একটি বিমান!
কলম্বিয়ার রংধনু নদীতে খেলা করে সাত রং
প্রকৃতি মানেই সুন্দর। প্রকৃতি মানেই নব নব সৃষ্টি। প্রকৃতি মানেই শত শত রঙের বৈচিত্র্য। তেমনই একটি অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমির কথা বলব আজ। যেখানে আছে রংধনু নদী। এমন একটি নদী যার পানির রঙ্গে রংধনুর সাত রং খেলা করে। এই নদীর পানির রং লাল, নীল, কালো, সবুজ আর হলুদ। এই নদী বয়ে গেছে কলম্বিয়ার ওপর দিয়ে। নয়নাভিরাম সমুদ্রসৈকত, পর্বতমালা এবং নিবিড় সবুজ অরণ্যের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া এই নদীর অপার সৌন্দর্য আপনাকে ভাবাতেই পারে কেন এর মাঝে এত রং খেলা করে।
রেলস্টেশনে নিজের লেখা বই নিজে বিক্রি করে জীবন চালান টিপু সুলতান
রাজধানীর বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ড ও রেল স্টেশনে এক লেখককে দেখা যায় নিজের লেখা বই নিজেই বিক্রি করছেন। চলন্ত গাড়িতেও অনেক সময় বই ফেরি করে বেড়ান তিনি। তার সাথে সাক্ষাৎ হয় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক মাহামুদুল হকের। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তিনি লিখেছেন জীবন যুদ্ধে সংগ্রামরত হার না মানা বৃদ্ধের কাহিনী। পাঠকদের জন্য হুবহু তা তুলে ধরা হলো।
যে দুই কারণে মায়ের জন্য পাত্র চেয়ে বিজ্ঞপ্তি দেন ছেলে!
মায়ের জন্য পাত্র খোঁজে ফেসবুকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ছেলে অপূর্বর পোস্টে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। পাশাপাশি জনমনে ব্যাপক সাড়াও ফেলেছে। ঢাকার কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা মোহাম্মদ অপূর্বের সঙ্গে তিন দিনে পাত্র হিসেবে যোগাযোগ করেছেন প্রায় একশ জন।
৩৫ বছরে ২০ বিলিয়ন ডলার গিলেছে সাপ ও ব্যাঙ!
প্রতি বছর বিশ্ব অর্থনীতির হাজার হাজার কোটি টাকা গিলে খাচ্ছে ব্যাঙ ও সাপ! আশ্চর্যজনক শোনালেও ব্যাপারটি সত্য বলে দাবি করেছেন গবেষকরা। সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রায় ২ পাউন্ড (০.৯ কিলো) ওজনের বাদামি-সবুজ রঙের বুলফ্রগ ব্যাঙ যা লিথোবেটস ক্যাটসবিয়ানস নামে পরিচিত ও বাদামি গেছো সাপের আক্রমণে ১৯৮৬ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বিশ্বে বিশ বিলিয়ন ডলারের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ২ লাখ কোটি টাকা।
৪১ বছর ধরে নিখোঁজ সাতক্ষীরার একলিমা এখন পাকিস্তানে!
হারিয়ে যাওয়ার ৪১ বছর পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে পাকিস্তানের শিয়ালকোটের দিলওয়ালিতে খোঁজ মিলেছে একলিমা বেগমের। কিন্তু কীভাবে তিনি সেখানে গেলেন, সে কথা বলতে পারছেন না কেউই। স্বামীর মৃত্যুর পর অনেকটা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছিলেন একলিমা বেগম। তিন ছেলে-মেয়ে রেখে ১৯৮১ সালের কোনো একদিন হারিয়ে যান তিনি।
অনার্স পড়ুয়া ২২ বছরের তানিয়া দেখতে কেন শিশুদের মতো?
শারীরিক গঠন ও কণ্ঠস্বর শিশুর মতোই। দেখে মনে হবে চতুর্থ কিংবা পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তবে তানিয়া নামের পাবনার ব্যতিক্রমী শারীরিক গঠনের মেয়েটির বয়স ২২ বছর। প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি পেরিয়ে ভর্তি হয়েছেন আটঘরিয়া সরকারি কলেজের অনার্স বর্ষের সমাজবিজ্ঞান বিভাগে।
ফেসবুকে একটি ছবি দিয়ে ৪৭ বছর পর দেখা ৪ বান্ধবীদের!
সেই ১৯৭৫ সালের কথা। তখন স্কুলে পড়ার সময় ঢাকার শেরেবাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তোলা হয়েছিল ৭ বান্ধবীর একটি ছবি। ৪৭ বছর পর সেই ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করে শৈশবের পুরনো বান্ধবীদের খুঁজে পেয়েছেন দিলখোশ বেগম পুতুল।
৯৪ লাখ টাকা বেতনে ক্যান্ডি খাওয়ার চাকরি!
ক্যান্ডি খাওয়ার কাজের বিনিময়ে মোটা অংকের বেতন দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের এক ক্যান্ডি বিপণন সংস্থা। এই বেতনের পরিমাণ বছরে ৯৪ লাখ টাকারও বেশি। অবাক লাগলেও বিষয়টি সত্য। গত ২১ জুলাই এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ফক্স২৯। সংবাদমাধ্যমটি বলছে, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকো তথা উত্তর আমেরিকার সর্ববৃহৎ অনলাইন ক্যান্ডি বিপণন সংস্থা হচ্ছে মার্কিন কোম্পানি ক্যান্ডি ফানহাউস। সম্প্রতি এই সংস্থাটি চিফ ক্যান্ডি অফিসার (সিসিও) পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। এই পদের অর্থাৎ চিফ ক্যান্ডি অফিসার (সিসিও)-র জব ডিউটি বা কাজ শুধুমাত্র ক্যান্ডি টেস্ট করা। সিসিও পদে নিযুক্তদের বার্ষিক এক লাখ মার্কিন ডলার বেতন দেবে ফানহাউস। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৯৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। চিফ ক্যান্ডি অফিসার (সিসিও) পদে নিয়োগের জন্য আবেদন করতে বয়স পাঁচ বছর বা এর বেশি হতে হবে এবং প্রার্থীকে অবশ্যই উত্তর আমেরিকার (কানাডা, মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্র) বাসিন্দা হতে হবে। তবে এই ক্যান্ডি টেস্টারের পদে পাঁচ বছরের শিশু থেকে এর বেশি বয়সীদের নিয়োগ করার বিষয়ে মুখ খুলেছেন সংস্থার সিইও জামাল হেজাজি। তিনি জানিয়েছেন, ‘ক্যান্ডির প্রতি ভালোবাসা কোনো বয়সের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। আমরা এরকম কয়েকজন নেতৃত্বের খোঁজ করছি যারা ক্যান্ডি সম্পর্কে অভাবনীয় চিন্তাভাবনার প্রতিফলন ঘটাতে পারে। আমরা সৃষ্টিশীলতার খোঁজ করছি।’
দ্য ব্লু হোল: সমুদ্রের রহস্যময় গর্তে সারি সারি মৃতদেহের সন্ধান
মধ্য আমেরিকার উত্তর-পূর্ব উপকূলের বেলিজ সিটি এলাকায় অবস্থিত ‘দ্য গ্রেট ব্লু হোল’ পর্যটনস্থলটি স্কুবা ডাইভারদের জন্য অত্যন্ত প্রিয় স্থান। আয়নার মতো স্বচ্ছ পানির নিচে বিভিন্ন প্রজাতির সামুদ্রিক প্রাণী, হাঙরের দেখা পেতে ডাইভাররা এই ডাইভিং সাইটটিতে ঘুরতে আসেন। ১৯৭১ সালে প্রথম এই জায়গাটির সন্ধান মিলে। জ্যাকুয়েস কস্টিউ নামের এক ব্যক্তি এটির সন্ধান পান। এটিকে উপর থেকে দেখলে মনে হবে যেন সমুদ্রের মাঝে ভেসে আছে একটি মানুষের চোখ।
হাসানাল বলকিয়ান: যার ১১০টি গ্যারেজে রয়েছে দামি ব্রান্ডের ৭ হাজার গাড়ি!
আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর দাবি, তিনটি বিয়ে করা ব্রুনাইয়ের সুলতানের কাছে ৩০টি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার রয়েছে। তার বিলাসবহুল বাসভবনের ঝাড়বাতিগুলোতে লাগানো হয়েছে প্রায় ৫২ হাজার বাল্ব। শুধু তাই নয়, সংবাদমাধ্যমগুলোর দাবি, ব্যতিক্রমী এই সুলতান প্রতিমাসে একবার চুল কাটেন, যাতে তিনি খরচ করেন প্রায় ১৭ লাখ টাকা।
আটলান্টিক পাড়ি দিয়ে আমেরিকায় পৌঁছালো এই পায়রা!
তিন সপ্তাহ আগে ব্রিটেনের চ্যানেল দ্বীপপুঞ্জের গার্নজ়ি থেকে দেশটির উত্তর পূর্বে উইনলাটনে পৌঁছনোর কথা ছিল ববের। লক্ষ্য ছিল বাড়ি ফেরার, কিন্তু বাস্তবে ছাঁকনির বদলে তেলবাহী জাহাজে চেপে সে পাড়ি দিল আটলান্টিক মহাসাগর। অথচ সে ‌একটি পায়রা! তার নাম বব। সে একটি 'রেসিং পিজিয়ন'। তার এই অ্যাডভেঞ্চারের তেলবাহী জাহাজের অংশটুকু তার মালিক অ্যালান টডের অনুমান হলেও ববের ৬৪৩৭ কিলোমিটার পাড়ি দেয়ার ঘটনায় বিস্মিত নেট দুনিয়া। তিন সপ্তাহ আগে ব্রিটেনের চ্যানেল দ্বীপপুঞ্জের গার্নজ়ি থেকে দেশটির উত্তর পূর্বে উইনলাটনে পৌঁছনোর কথা ছিল ববের। সময় লাগার কথা ছিল ১০ ঘণ্টা। কিন্তু রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে যায় সে। অবশেষে, ৬ জুলাই আমেরিকার অ্যালাবামা প্রদেশে খোঁজ মেলে তার। অ্যালাবামার মনরো কাউন্টির মেক্সিয়ার এক ব্যক্তি নিজের বাগানে খুঁজে পান ববকে। তিনি দেখেই বুঝতে পেরেছিলেন, পায়রাটি বহুদূর যাত্রা করে এসেছে। প্রসঙ্গত পিজিয়ন রেসিং একটি বিশেষ ধরনের খেলা। এই খেলায় একটি নির্দিষ্ট জায়গা থেকে একাধিক পায়রাকে ছেড়ে দেয়া হয়। তাদের লক্ষ্য থাকে কত কম সময়ে বাড়িতে, নিজের মালিকের কাছে ফেরা যায়।
২০০ বছর ধরে যে মসজিদে একসঙ্গে নামাজ পড়েন ভারত-বাংলাদেশের মুসলিমরা
বাংলাদেশের উত্তরের জেলা কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের বাঁশজানি সীমান্তে বাংলাদেশ ও ভারতের মানুষের জন্য রয়েছে একটি মসজিদ। সীমান্তের এই জামে মসজিদটি দুই দেশের মানুষকে একটি সমাজে আবদ্ধ করে রেখেছে। মূলত মসজিদটি বাংলাদেশের ভূখণ্ডের অভ্যন্তরে অবস্থিত। পরিচিত ঝাকুয়াটারী জামে মসজিদ নামে। মসজিদটির একদিকে বাংলাদেশের বাঁশজানি আর অপরদিকে ভারতের ঝাকুয়াটারী গ্রাম। কোনো সমস্যা ও বাধা বিপত্তি ছাড়াই দুই দেশের পাশাপাশি এ দুই গ্রামের মুসলিম অধিবাসীরা যুগ যুগ ধরে প্রতি দিন পাঁচ ওয়াক্ত এবং জুম্মার নামাজ এক সঙ্গে আদায় করছেন সেখানে। ফলে দুই দেশের মানুষের সম্প্রীতির অটুট বন্ধন হয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে মসজিদটি। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগ হলেও ভাগ হয়নি সীমান্ত ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকা ওই মসজিদটি।
চাকরি ছেড়ে সালমা এখন সফল গরুর খামারি!
মহামারী করোনার সময় চাকরি হারিয়ে দিশেহারা হয়ে গিয়েছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের খাতুন। কিন্তু অদম্য এই নারী বসে থাকার মানুষ ছিলেন না। জমানো টাকায় শুরু করেন গরুর খামার। আর তাতেই অর্থনৈতিকভাবে হয়েছেন স্বাবলম্বী। করোনার ধাক্কা কাটিয়ে হয়েছেন একজন সফল খামারী ও উদ্যোক্তা। শুধু তাই নয়, পবিত্র কোরবানি উপলক্ষ্যে সুদূর চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ১০ টি গরু নিয়ে নিজেই চলে এসেছেন চট্টগ্রামের গরুর হাটে। চট্টগ্রাম নগরের বিবিরহাটে গেলেই হাটের একমাত্র নারী ব্যবসায়ী সালমাকে দেখা যাবে। আশপাশের পুরুষ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে তিনিও নিজের গরুর দেখভাল করছেন, সঙ্গে আসা কর্মীদের বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা দিচ্ছেন। কখনও আবার হাটে কোরবানির গরু কিনতে আসা ক্রেতাদের সঙ্গে গরুর দাম নিয়ে করছেন আলোচনা করছেন। সালমা জানান, গত দুই বছর ধরে নিজের খামারে গরু পালছেন তিনি। তবে এবারই প্রথম কোরবানির পশুর হাটে গরু আনেন তিনি। নিজ এলাকায় বিক্রি না করে এতদূরে গরু নিয়ে আসার কারণ জানতে চাইলে সালমা বললেন, এখানে বেশ ভালো দামে গরু বিক্রি হয়। তার আশা ১০টি গরুই বিক্রি করে বাড়ি ফিরতে পারবেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ কলেজ থেকে দর্শনে স্নাতক শেষে রাজশাহী কলেজ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন সালমা। এরপর ২০১৬ সালে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি নেন তিনি। করোনার কারণে চাকরি চলে গেলে একটি গাভী কিনেন সালমা। প্রথমে কেবল দুধ বিক্রি করতেন। পরবর্তীতে ছয় কাঠা জমির ওপর খামার গড়ে তোলেন। বর্তমানের তার খামারে ২০টি গরু আছে।