বিশেষ প্রতিবেদন | Ridmik News
বিশেষ প্রতিবেদন
যে কারণে সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডকে ন্যাটোতে দেখতে চায় না তুরস্ক
ন্যাটো জোটে নতুন কোনো দেশকে সদস্য হিসেবে নিতে হলে জোটের ৩০ সদস্য দেশকে একমত হতে হবে। প্রতিটি সদস্য দেশের অনুমোদনও প্রয়োজন হবে এতে। তুরস্ক স্পষ্টভাবে বলে আসছে সুইডেন এবং ফিনল্যান্ডকে নেয়ার প্রশ্নে তাদের চরম অস্বস্তি রয়েছে। কেন তুরস্ক নতুন দেশ দুটিকে জোটে চায় না সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।
আলোক দূষণ: প্রাণের স্বাভাবিক চক্র চরমভাবে ব্যাহত করছে রাতের কৃত্রিম আলো
অদ্ভুত শোনালেও সত্যি যে, আলোক দূষণ পরিবেশ এবং মানব স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। বৈদ্যুতিক বাতির আবিষ্কার ছিল মানবজাতির ইতিহাসে এক অনবদ্য বিপ্লব। বিজ্ঞানের এই বিস্ময়কর জাদু রাতকে দিনে পরিণত করার মধ্য দিয়ে মানব জীবনকে করে তুলেছে গতিশীল এবং আনন্দময়। কিন্তু অত্যাধুনিক শহরগুলো ঝলমলে আলোর আধিক্য এক নতুন সমস্যা সৃষ্টি করেছে। বর্তমানে পৃথিবীর ৮০% মানুষ তারাময় অন্ধকার আকাশ থেকে বঞ্চিত।
বহুল প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু: যেভাবে পাল্টে দেবে দক্ষিণবঙ্গের চেহারা!
পদ্মা সেতু নিয়ে দেশজুড়ে মানুষের মনে তৈরি হওয়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর। সেতুটির নির্মাণকাজে কেন এতো টাকা খরচ হয়েছে? এই প্রতিবেদনটিতে সে প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে। সাথে এখানে জানা যাবে পদ্মা সেতুর কাজের বর্তমান আপডেট, রেলসেতু তৈরির সর্বশেষ অবস্থা, গ্যাস এবং বিদ্যুৎ প্রকল্প কী অবস্থায় আছে এবং সর্বোপরি পদ্মা সেতুর মাধ্যমে কীভাবে দক্ষিণবঙ্গের চেহারা বদলে যেতে পারে-সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।
হেলসিঙ্কির ‘গোপন শহর’: রুশ পারমাণবিক হামলা ঠেকাতে ফিনল্যান্ডের নয়া কৌশল
মাটির নিচের ওই নিরাপত্তা শহরে সড়ক, খেলার মাঠ, সুইমিংপুল, হকি মাঠ, গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে বলেও জানিয়েছে সিভিল ডিফেন্স ডিপার্টমেন্টের একজন কর্মকর্তা। শুধু হেলসিঙ্কিতেই না, পুরো ফিনল্যান্ডে এমন পঞ্চাশ হাজার বাঙ্কার ও টানেল তৈরি করে রেখেছে তারা। আর তাই রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্রবাহী ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় খুব একটা বিচলিত নয় দেশটি।
মঙ্গলগ্রহে পিরামিডের সদৃশ দরজার সন্ধান, প্রাণের অস্তিত্ব দাবি বিজ্ঞানীদের
সম্প্রতি নাসার ক্যামেরায় একটি ছবি ধরা পড়েছে। যা দেখার পর দুনিয়াজুড়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। কিউরিওসিটি রোভারের একটি ছবিতে দেখা গেছে মঙ্গল গ্রহে পাহাড় কেটে দরজার মতো একটি দুর্গ। যা দেখতে অনেকটা মিশরের র‍্যামসেস পিরামিডের প্রবেশ পথের মতো।
ভার্জিন অব দ্য মিস্টিক রোজ: রহস্যেঘেরা যে মূর্তির চোখ দিয়ে বয়ে চলেছে রক্ত অশ্রু
'ভার্জিন অব দ্য মিস্টিক রোজ' নামে এক আশ্চর্য মূর্তির দেখা মিলবে আর্জেন্টিনার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত মেটান শহরের ফ্রিয়াস পরিবারের বাড়িতে। আর এই মূর্তি দেখতেই প্রতিদিন মানুষের উপচেপড়ে ভিড় দেখা যায় ফ্রিয়াস পরিবারে। মূর্তিটি ২০১৭ সালের গোড়ার দিকে খবরের শিরোনামে উঠে আসে। কিন্তু কী এমন বিশেষত্ব আছে এই মূর্তিতে, যা দেখতে ভিড় জমান সাধারণ মানুষ? এই মূর্তিকে সব সময়ই কাঁদতে দেখা যায়!
গবেষণায় ছয় ধরনের কর্মীর খোঁজ, আপনার পছন্দের কোনটি?
প্রবাদে আছে, 'নিজের পছন্দ মতো কাজ বাছাই করো, না হয় একদম কিছুই করো না।' কারণ যে কাজে স্বাচ্ছন্দ্য থাকে না সে কাজ জীবনকে সুখী করতে পারে না। যদিও বাস্তবতার নিরিখে প্রবাদ হিসেবেই থেকে গেছে। বর্তমান সময়ে খুব কম মানুষ নিজের পছন্দের কাজ পেশা হিসেবে বেছে নিতে পারেন। কারণ ব্যক্তি যে কাজকে সুবিধাজনক মনে করে সেটি কোনো না কোনো কারণে দুর্লভ হয়ে যায়।তবে দিনশেষে দেখা দরকার বেইন অ্যান্ড কোম্পানি যে তালিকা করেছে সেখানকার কাজগুলো কী এবং কেমন। সেই সাথে যাচাই করুন আপনি কোন দলে আছেন?
অ্যানা কাবালে: যৌনাঙ্গচ্ছেদন থেকে নারীদের রক্ষার লড়াইয়ে বিজয়ী এক বীরাঙ্গনা
বাল্যবিবাহ তো ছিলই, সেই সঙ্গে সামাজিক কিছু কুপ্রথার জন্য তাদের যৌনাঙ্গচ্ছেদন ও নির্মম নির্যাতনের মধ্যে দিয়ে যেতে হতো। আফ্রিকার চরম পিতৃতান্ত্রিক সেসব সমাজে বহুবিবাহ, বাল্যবিবাহ, ধর্ষণ তো রয়েছেই, এছাড়াও ‘ফিমেল জেনিটাল মিউটিলেশন’-এর মতো প্রথাও রয়েছে, যেখানে ছোটবেলায় কন্যা শিশুদের যৌন সুখানুভূতির প্রত্যঙ্গ বা ‘ক্লিটোরিস’ কেটে বাদ দিয়ে দেয়া হতো।
পৃথিবীর সর্বাধিক পরমাণু বোমার মজুদ সত্ত্বেও কেন ইউক্রেন দখলে অক্ষম রাশিয়া?
প্রায় ছয় হাজার পারমাণবিক অস্ত্র মজুদ থাকার পরও কেনো রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নিরীহ দেশ ইউক্রেন দখল করতে পারছে না? খাতা-কলমের হিসাবে সামরিক শক্তিতেও পিছিয়ে ইউক্রেন। পারমাণবিক অস্ত্র ছাড়াও পুতিন যদি চেচেন সরকার প্রধান রমজানের হাতে ইউক্রেন দখলের দায়িত্ব দিয়ে দেন, সর্বোচ্চ দুদিনের মধ্যেই ইউক্রেনকে দখলে নেবে চেচেন সেনা কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, ইউক্রেনকে ধুলোয় মিশিয়ে দেয়ার সব মাল-সামানা থাকার পরও কেনো এই কালক্ষেপণ? তাহলে কি এর পেছনে আরো গভীর কোনো ছক আকছেন পুতিন? কী সেই গোপন ছক?
বীর যুদ্ধনায়ক থেকে যেভাবে ভিলেন  রাজাপাকশে!
শ্রীলঙ্কার দুই কোটি ২০ লাখ মানুষের জীবন ওলট-পালট করে দিয়েছে চরম অর্থনৈতিক সংকট। দেশটির গৃহযুদ্ধে বিজয়ের পর রাজাপাকশেদের একসময় বীর হিসেবে বন্দনা করেছে অনেকে, কিন্তু এখন তারা শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে ধিক্কৃত এবং সমালোচিত রাজনীতিকে পরিণত হয়েছেন। কীভাবে এরকম ঘটলো এবং এরপর কী ঘটতে যাচ্ছে?
জেলে পল্লী দুবাইয়ের কিছু দুর্লভ ছবি
দুবাই বিশ্বের অন্যতম বিলাসবহুল শহরে পরিণত হয়েছে। এ শহরের এমন সব জিনিস রয়েছে, যা অন্যান্য শহরে দুর্লভ। দুবাইয়ের তেমন কিছু দুর্লভ ছবি তুলে ধরা হলো এই অ্যালবামে
প্রশান্ত মহাসাগরের গভীর তলদেশে ইটের পাকা রাস্তার সন্ধান
সম্প্রতি প্রশান্ত মহাসাগরের তলদেশে হলুদ রঙা ইট দিয়ে বাঁধানো একটি রাস্তার আবিস্কার করেছেন সমুদ্র গবেষণার সঙ্গে যুক্ত এক দল বিজ্ঞানী। একটি ইউটিউব ভিডিও অনুযায়ী, ‘এক্সপ্লোরেশন ভেসেল নটিলাস’ দলের সদস্যরা প্রশান্ত মহাসাগরে আমেরিকার পাপাহানাউমোকুয়াকে মেরিন ন্যাশনাল মনুমেন্টের লিলিউওকালানি রিজ নামক সামুদ্রিক অঞ্চলে গবেষণা চালানোর সময় সমুদ্রের নীচে এই রাস্তার খোঁজ পান।
হিটলারের জেল ভেঙে পালানো এই কুস্তিগির যত বিশ্ব রেকর্ডের অধিকারী
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় মাত্র ১৪ দিনের অভিযানে ফ্রান্স দখল করে নেয় হিটলারের নাৎসি বাহিনী। জার্মান বাহিনীর সামনে কোনো প্রতিরোধই দাঁড় করাতে পারেনি ফরাসি বাহিনী। জার্মানি যখন ফ্রান্সে রাজত্ব করছে, ঠিক তখনই ফ্রান্সের রাস্তায় এক নাৎসি অফিসারকে ঘুসি মেরে নাক ফাটিয়ে দেন এই কুস্তিগির। ফলে জেলে পাঠানো হয় তাকে। কিন্তু ১৯ শতকের অন্যতম শক্তিশালী মানুষ হিসেবে পরিচিত শার্ল রিগুলোতকে কি এত সহজেই আটকে রাখা যায়? কারাগারের লোহার রড বেঁকিয়ে পালিয়েছিলেন ডজন খানেক বিশ্ব রেকর্ডের অধিকারী এই কুস্তিগির। পালাতে সাহায্য করেছেন জেলের অসংখ্য বন্দীকেও। চলুন জেনে নেয়া যাক এই কুস্তিগিরের কতগুলো বিশ্বরেকর্ড সম্পর্কে।
সাংবাদিক শিরিন আবু আকলা: যুদ্ধ ও শান্তির সুপরিচিত এক কণ্ঠস্বর
ঘর-বাড়ি, মাঠ-ঘাট, ফিলিস্তিনিদের উদ্বাস্তু ক্যাম্পগুলোতে তার উপস্থিতি নতুন সংবাদ সংস্থা আল-জাজিরা নেটওয়ার্ককে ২৪ ঘণ্টার আরবি ভাষায় প্রচারিত চ্যানেলে রুপান্তরিত করে। আরব বিশ্বের বর্তমান প্রজন্মের যে নারীরা সাংবাদিকতায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন তাদের প্রেরণার বাতিঘর ছিলেন শিরিন আবু আকলা। তিনিই আরব বিশ্বের প্রথম নারী প্রতিনিধি- যাকে সরাসরি টেলিভিশনে দেখা গেছে।
পৃথিবীর ইতিহাসে সর্ববৃহৎ প্রাণীটি বাস করছে আমাদের সাথেই
পৃথিবীতে বাস্তবে এমন কিছু প্রাণী বসবাস করতো, যেগুলো আকারে রূপকথার সেই দৈত্যাকার প্রাণীদেরও হার মানাতে সক্ষম। বর্তমান পৃথিবীতে স্থলচর প্রাণীদের মধ্যে আফ্রিকান হাতি আকারে সবচেয়ে বড়। তবে পৃথিবীর ইতিহাসে বৃহত্তম স্থলচর প্রাণী হিসেবে পরিচিত ছিল সরোপড নামক ডায়নোসর। জানা যায়, একেকটি প্রাপ্ত বয়স্ক সরোপড ডায়নোসরের ওজন হতো ৮০ টনের বেশি। প্রায় সাড়ে ছয় হাজার বছর আগে এক ভয়ংকর উল্কাপাতে পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হয়ে যায় সরোপড ডায়নোসর।