আইপিএল | Ridmik News
আইপিএল
আমাদের কাজে নাক গলিয়ো না: আইপিএল নিয়ে গাভাস্কার
সম্প্রতি আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো দক্ষিণ আফ্রিকা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের টি-টোয়েন্টি লিগের দলগুলো কিনে নেয়ায় আইপিএলের সমালোচনা শুরু হয়েছে। ভারতের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের প্রতি আসরেই ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার প্রচুর ক্রিকেটার খেলে থাকেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ ও ইংল্যান্ডের দ্য হানড্রেডের সূচির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হয়ে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের টি-টোয়েন্টি লিগের সূচি। তাই সমালোচনা হচ্ছে। তবে এসব সমালোচনা মোটেও ভালো লাগছে না ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটার সুনিল গাভাস্কারের। ভারতীয় এ ওপেনার 'স্পোর্টস্টারে' এক কলামে লিখেছেন, যেভাবেই হোক আগে নিজেদের স্বার্থের দিকে নজর দাও। কিন্তু দয়া করে আমাদের কাজে নাক গলিয়ো না এবং আমাদের কী করা উচিত, সেটা বলতে এসো না। যখনই দক্ষিণ আফ্রিকা আর আমিরাতের টি-টোয়েন্টি লিগের খবর আসতে শুরু করেছে, তখনই পুরনো পরাশক্তিগুলোর (ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া) গলার জোর বেড়ে গেছে।
জুয়াড়িদের অর্থ হাতিয়ে নিতে ভারতে ভুয়া আইপিল!
আধুনিক এই তথ্য প্রযুক্তির যুগেও যে এভাবে প্রতারণা সম্ভব তা হয়তো অনেকের ভাবনাতেও আসবে না। কিন্তু ভারতের গুজরাটে ঠিক এরকম একটা ঘটনাই ঘটেছে। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ আইপিএলের আদলে ভুয়া আইপিলের আয়োজন করেছে প্রতারকরা। আর এর মাধ্যমেই রুশ বাজিকরদের থেকে হাতিয়ে নিয়েছে বিপুল পরিমাণ অর্থ। অবশ্য শেষ পর্যন্ত পুলিশের হাতে ধরা খেয়েছে প্রতারক চক্র।
লা-লিগা ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগকে টপকে গেল আইপিএল
স্পন্সরশিপের ভিত্তিতে ভারতের জনপ্রিয় ফ্রঞ্চাইজি লিগ আইপিএল স্পেনের লা-লিগা ও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগকেও ছাড়িয়ে গেল। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী খবরটি নিশ্চিত করে বলেন, আইপিএল বিশ্বের চতুর্থতম ধনী টুর্নামেন্ট। এর আগে প্রথম তিনটি স্থানে আছে আমেরিকার জাতীয় রাগবি লিগ এবং আমেরিকার দুইটি বাস্কেটবল লিগ। ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসেবে লা-লিগা সপ্তম এবং ইপিএল ষষ্ঠ স্থান পেয়েছে। সৌরভ জানান, আইপিএলের এই এগিয়ে থাকা সম্ভব হয়েছে ভারতীয় দর্শকদের জন্যে। তিনি অভিনন্দন জানান ভারতীয় দর্শক ও স্পন্সরদের। আইপিএল ৪৩ হাজার ৮৮৬ কোটি টাকার স্পন্সরশিপ পেয়েছে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের স্পন্সরশিপ ৪১ হাজার ৪১১ কোটি টাকার এবং লা-লিগা তুলেছে ৩৫ হাজার ৪৬১ কোটি টাকা। উয়েফা লিগ তালিকায় দশম স্থান পেয়েছে। রোববার থেকে আইপিএলের মিডিয়া রাইট বিক্রির নিলাম শুরু হয়েছে। সর্বশেষ নিলাম অনুযায়ী, ম্যাচ প্রতি নিলামে দর উঠেছে ১০৫ কোটি রুপি।
বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি প্রতিযোগিতা হচ্ছে আইপিএল
আইপিএল হচ্ছে বিশ্বের সর্বাধিক দেখা ক্রিকেট লিগ। এই খেলা সম্প্রচার সত্ত্বের জন্য দৌড় শুরু হয়ে গেছে। ক্রিকেট বিশ্বে সবচেয়ে লোভনীয় প্রতিযোগিতার সঙ্গে জড়িত থাকার দুটি উপায় রয়েছে। এক নম্বর সরাসরি সম্প্রচার সত্ত্ব কেনা, দুই নম্বর হলো অনলাইন স্ট্রিমিং সত্ত্ব কেনা। শুধু স্ট্রিমিং সত্ত্বের জন্যই লড়াই করবে ওয়াল্ট ডিজনি, রিলায়েন্স ও সনির মতো প্রতিষ্ঠান। পাঁচ বছরের জন্য আইপিএলের সম্প্রচার সত্ত্ব বুঝে পাওয়া মানে যে আগামী পাঁচ বছর আয় নিয়ে নির্ভার থাকা। ওদিকে নতুন পাঁচ বছরের চুক্তি থেকে বিসিসিআই যা আয় করার আশা করছে, তাতে দামের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয়ের টুর্নামেন্ট হয়ে যাবে আইপিএল। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ বলেন, ‘বর্তমানে একটি এনএফএল ম্যাচে সম্প্রচারকের খরচ হয় ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার, যেটা যেকোনো ক্রীড়া লিগে সর্বোচ্চ। এরপর আছে ইপিএল, সেখানে ব্যয় হয় ১ কোটি ১০ লাখ। এমবিএলের খরচও এর কাছাকাছি। গত পাঁচ বছরের চক্রে আমরা এক আইপিএল ম্যাচ থেকে ৯০ লাখ ডলার পেয়েছি। এবার ন্যূনতম ভিত্তি মূল্য অনুযায়ী প্রতি আইপিএল ম্যাচের জন্য বিসিসিআই ১ কোটি ২০ লাখ ডলার পাবে। এটা বিশ্বমঞ্চে ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য বড় এক লাফ। আমরা তখন শুধু এনএফএলের পেছনে থাকব।’
আইপিএলের অধিকাংশ পুরস্কারই বাটলারের দখলে
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৫তম আসরে শিরোপা না জিতলেও অর্ধেকের মতো পুরস্কার একাই জিতেছেন জস বাটলার। ১৭ ম্যাচ খেলে ৮৬৩ রান করে হয়েছেন সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ৫৭.৫৩ গড় ও ১৪৯.০৫ স্ট্রাইক রেট! ৫টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি অর্ধশত রয়েছে আরও ৪টি। সবচেয়ে বেশি ছক্কা (৪৫) হাঁকিয়েছেন বাটলার। সবচেয়ে বেশি চার (৮৩টি), সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি (৫টি)। এছাড়া মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার, পাওয়ারপ্লেয়ার অব দ্য সিজন ও গেমচেঞ্জার অব দ্য সিজনের পুরস্কারও জিতেছেন জস বাটলার। এর বাইরে অন্যান্য পুরস্কারের মধ্যে সর্বোচ্চ উইকেট যুজবেন্দ্র চাহাল (রাজস্থান রয়্যালস। ১৭ ম্যাচ খেলে ২৭ উইকেট শিকার করেছেন এই লেগ স্পিনার। সবচেয়ে দ্রুতগতির বল লকি ফার্গুসন (গুজরাট টাইটান্স)। ফাইনালে একটি ডেলিভারি ঘণ্টায় ১৫৭.৩ কিলোমিটার বেগে ছুড়েন তিনি। সেরা ক্যাচ এভিন লুইস (লখনউ সুপার জয়ান্ট), ইমার্জিং প্লেয়ার অব দ্য সিজন উমরান মালিক (সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ)।
জার্সি দিয়ে গিনেস বুকে আইপিএল
আইপিএলের ১৫তম আসরের ফাইনালের আগে নতুন একটি বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক এই ক্রিকেট লিগ। এদিন বিশ্বের সবচেয়ে বড় আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট জার্সি উপস্থাপন করে ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই)। জার্সিটি লম্বায় ৬৬ মিটার। আর প্রস্থে ৪২ মিটার। জার্সিটিতে আইপিএলে অংশ নেয়া দশটি দলের লোগো আছে। তার উপরে আছে ‘আইপিএল এর লোগো। সেটার ভেতরে লেখা ১৫ বছর পূর্তি’। এখন পর্যন্ত এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট জার্সি। এমন দৈত্যাকৃতির জার্সিটিকে বিশ্ব রেকর্ডের স্বীকৃতি দিয়েছে গিনেস কর্তৃপক্ষ।
অভিষেকেই বাজিমাত, আইপিএলের নতুন চ্যাম্পিয়ন গুজরাট
প্রথমবারের মতো ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) অংশ নিয়েই ফাইনালে উঠে চমকে দিয়েছিল গুজরাট টাইটান্স। আর ফাইনালে তারা রাজস্থান রয়্যালসের মতো পুরনো ও অভিজ্ঞ দলকে হারিয়ে জিতে নিল শিরোপাও। অর্থাৎ প্রথমবারেই বাজিমাত করলো গুজরাট। আর দলটির এই সাফল্যে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলেন অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। পঞ্চদশ আইপিএলের গ্র্যান্ড ফাইনালে রোববার (২৯ মে) রাজস্থানকে ৭ উইকেট হারিয়ে চ্যাম্পিয়নের তকমা জিতেছে গুজরাট। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৩১ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছিল রাজস্থান, যা ৩ উইকেট হারিয়ে ১১ বল হাতে রেখেই পেরিয়ে যায় গুজরাট।
ফাইনালে গুজরাটকে ১৩১ রানের লক্ষ্য দিল রাজস্থান
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম পর্বে থেকে অভিজাতদের ঘোল খাইয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান অধিকার করেছিল হার্দিক পান্ডিয়ার দল গুজরাট টাইটানস। সবার আগে প্লে-অফ নিশ্চিতের পর প্রথম কোয়ালিফায়ারে রাজস্থান রয়্যালসকে পিছু ঠেলে পৌঁছে গেছে ফাইনালে। আর ফাইনালেও অব্যাহত আছে তাদের সেই 'চমক'। পান্ডিয়া, সাই কিশোরদের বোলিং তোপে লড়াকু সংগ্রহও গড়তে পারেনি টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নামা রাজস্থান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৩০ রানেই আটকে গেছে তাদের ইনিংস। ম্যাচের শুরু থেকে রাজস্থান ব্যাটারদের টুটি চেপে ধরেছিলেন গুজরাটের বোলাররা। চতুর্থ ওভারের শেষ বলে রাজস্থান ওপেনার যশস্বী জয়সোয়ালকে (১৬ বলে ২২) ফিরিয়ে শুরুটা করেছিলেন যশ দয়াল। অপর প্রান্তে বাটলার যথারীতি ধীরস্থির শুরু করেছিলেন, তবে আজ আর ঝড় তুলতে পারেননি এবারের আসরে রেকর্ড চার সেঞ্চুরি করা এই ইংলিশ ব্যাটার। ইনিংসের ১৩ ওভারে পান্ডিয়ার বলে ফিরে গেছেন দলীয় সর্বোচ্চ ৩৫ বলে ৩৯ রান করে। ৪ ওভার করে মাত্র ১৭ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নেয়া পান্ডিয়ার অপর দুই শিকার রাজস্থান অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন (১১ বলে ১৪) এবং শিমরন হেটমায়ার (১২ বলে ১১)।
আইপিএলের ফাইনাল শুরু, টস জিতে ব্যাটিংয়ে রাজস্থান
আইপিএল ১৫তম আসরের ফাইনাল শুরু। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ফাইনালে রাজস্থান রয়েলসের মুখোমুখি হয়েছে চলতি আসরের নতুন দল গুরজরাট টাইটান্স। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজস্থান রয়েলস। এই ম্যাচেই ঠিক হবে কে হচ্ছে চ্যাম্পিয়ন? ফাইনালের মতো টানটান উত্তেজনাকর ম্যাচে নিজেদের সেরা একাদশকে মাঠে নামাতে চাইবে গুজরাট ও রাজস্থান। এবারের আইপিএলে পয়েন্ট টেবিলের এক নম্বরে ছিল গুজরাট টাইটানস। অন্যদিকে রাজস্থান রয়েলস টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে বিরাট কোহলিদের রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে।
আইপিএল ফাইনালে রাজস্থান ও গুজরাটের মহারণ আজ
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)-এর ফাইনাল আজ মুখোমুখি হচ্ছে ২০০৮ সালের চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান রয়েলস ও নবাগত গুজরাট টাইটান্স। রোববার (২৯ মে) আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আইপিএলের ১৫তম আসরের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ২০০৮ সালে আইপিএলের প্রথম আসরের শিরোপা জিতেছিল রাজস্থান। আসরে রাজস্থানের অধিনায়ক ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রয়াত কিংবদন্তি স্পিনার শেন ওয়ার্ন। ওয়ার্নারের হতাশাজনক মৃত্যুর এক সপ্তাহ পরই আইপিএল মিশন শুরু করে রাজস্থান। দীর্ঘ দিন পর দ্বিতীয় বার শিরোপা জিততে চায় দুর্দান্ত ফর্মে থাকা রাজস্থান। অন্যদিকে প্রথমবারের মতো আইপিএল খেলতে নেমেই বাজিমাত করেছে গুজরাট। ফাইনালে রাজস্থানকে হারিয়ে অভিষেক আইপিএলেই শিরোপা ঘরে তুলতে চায় হার্দিক পাণ্ডিয়ারা। বাংলাদেশ সময় রাত আটটা তিরিশ মিনিটে মাঠে নামবে দুই দল।
'আইপিএলের ইতিহাসে বাটলারের মতো ব্যাটিং কেউ করেনি'
দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন রাজস্থান রয়্যালসের ইংলিশ তারকা জস বাটলার। গতকাল তার ব্যাটে চড়ে ২০০৮ সালের পর এই প্রথম ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফাইনালে উঠে গেছে রাজস্থান রয়্যালস। পুরো টুর্নামেন্টে আলো ছড়ানো বাটলার গতকাল খেলেছেন ৬০ বলে অপরাজিত ১০৬ রানের ইনিংস। তার ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ রাজস্থানের ক্রিকেট পরিচালক কুমার সাঙ্গাকারা। সাঙ্গাকারা বলেন, আমার মনে পড়ে না আইপিএল ইতিহাসে কেউ এমন ব্যাটিং করেছে কি না। আমি মনে করি, তার পুরো খেলাটাই শক্তির জায়গা। ছন্দে থাকলে বাটলারকে আর থামানোর কোনো পথ নেই। যেকোনো সময় রানের গতি বাড়িয়ে ফেলতে পারে সে। ফাইনালের আগপর্যন্ত ১৬ ম্যাচে ১৫১ স্ট্রাইকরেট ও ৫৯ গড়ে ৮২৪ রান করে ফেলেছেন বাটলার। এই আসরে চার সেঞ্চুরির সঙ্গে হাঁকিয়েছেন চারটি ফিফটিও। আগামীকাল রোববার (২৯ মে) ফাইনালে মুখোমুখি গুজরাট টাইটান্সের মুখোমুখি হবে রাজস্থান রয়্যালস। সেই ম্যাচে বাটলার আরো একটি বিস্ফোরক ইনিংস খেলতে পারেন কিনা সেটিই দেখার বিষয়।
বাটলারের রেকর্ড শতকে ফাইনালে রাজস্থান
বিরাট কোহলির সেঞ্চুরির রেকর্ডে ভাগ বসিয়ে তারই দলকে বিদায় করে রাজস্থান রয়্যালসকে আইপিএলের ফাইনালে তুললেন জস বাটলার। ফাইনালে বাটলারদের প্রতিপক্ষ গুজরাট টাইটান্স। ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে আহমেদাবাদে টসে হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৫৭ রান তোলে কোহলির বেঙ্গালুরু। জবাবে বাটলারে চলতি আইপিএলের চতুর্থ শতকে ১১ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটের বড় জয় তুলে নেয় রাজস্থান। শিরোপার লড়াইয়ে আগামী ২৯ মে একই ভেন্যুতে হার্দিক পান্ডিয়ার গুজরাট টাইটান্সের বিপক্ষে লড়বে সাঞ্জু স্যামসন-বাটলারের রাজস্থান। গুজরাট প্রথমবারের মতো আইপিএলের ফাইনালে উঠলেও রাজস্থান নিজেদের দ্বিতীয় শিরোপার জন্য লড়াই করবে। সর্বশেষ ২০০৮ সালে শেন ওয়ার্নের নেতৃত্বে শিরোপা জিতেছিল দলটি। এবার শিরোপা জিতলে নিজেদের সেই সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তিকে দারুণ উপহারও দেয়া হবে।
প্লে অফে উঠতে ব্যর্থ পাঞ্জাব, শিখর ধাওয়ানকে পেটালেন বাবা!
চলতি আইপিএলে পাঞ্জাব কিংসের হয়ে ব্যাট হাতে দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন ভারতের তারকা ওপেনার শিখর ধাওয়ান। ৩৮.৩ গড়ে ১৪ ম্যাচে ৪৬০ রান করেছেন তিনি। কিন্তু তবুও প্লে অফে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে পাঞ্জাব। আর তাতেই বাবার মারধোরের শিকার হয়েছেন তিনি। সেই ভিডিও ইনস্টাগ্রামে ধাওয়ান নিজেই পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যায়, বাবার থাপ্পড় খেয়ে মাটিতে পড়ে যান ধাওয়ান। তারপর তার বাবা তাকে অনাবরত লাথি-গুঁতো দিয়ে চলেছেন। পরিবারের অন্য সদস্যরা তার বাবাকে থামানোর চেষ্টা করছেন। ধাওয়ানের ক্যাপশনে লেখা, ‘নকআউটে উঠতে না পারায় আমার বাবার কাছে নকআউট হলাম।’ তবে ঘটনার পুরোটাই ছিল নাটক। ভারতীয় ব্যাটারের এই ভিডিও বেশ হাসির খোরাক জুগিয়েছে নেটিজেনদের। সাবেক ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিং লিখেছেন, ‘বাবা তোমার চেয়ে ভালো অভিনেতা, কী চমৎকার!’ ধাওয়ানের পাঞ্জাব সতীর্থ হারপ্রীত ব্রার পোস্টে কমেন্ট করেছেন, ‘হা হা, আংকেল তো রেগে আগুন।’
লখনৌকে বিদায় করে কোয়ালিফায়ারে ব্যাঙ্গালুরু
আইপিএলের এলিমিনেটর ম্যাচে লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসকে ১৪ রানে হারিয়ে কোয়ালিফায়ারে উঠেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু (আরসিবি)। বুধবার (২৫ মে) রাতে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে বেঙ্গালুরু আগে ব্যাট করে রজত পতিদারের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে ভর করে ৪ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রান করে। এরপর শেষ দিকে নিয়ন্ত্রিত বোলিং করে লক্ষ্ণৌকে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৩ রানের বেশি করতে দেয়নি। তাতে ১৪ রানের দুর্দান্ত জয়ে ফাইনালে যাওয়ার আশা বেঁচে থাকে আরসিবি’র। শুক্রবার আইপিএল ২০২২-এর দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে রাজস্থান রয়্যালসের মুখোমুখি হবে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।
শেষ ওভারে তিন ছক্কায় আইপিএল ফাইনালে গুজরাট
প্রথমবার আইপিএলে অংশ নিয়েই ফাইনালে উঠেছে গুজরাট টাইটান্স। মঙ্গলবার (২৪ মে) রাতে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে রাজস্থন আগে ব্যাট করে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রানের লড়াকু সংগ্রহ দাঁড় করে। জবাবে ৩ বল ও ৭ উইকেট হাতে রেখে জিতে যায় গুজরাট। তবে হার্দিক পান্ডিয়া আর ডেভিড মিলারের অপরাজিত শতরানের জুটিতে সব চাপকে তুড়িতেই উড়িয়ে দিয়েছে গুজরাট। শেষ ওভারে মিলার মেরেছেন তিন ছক্কা, তাতে ৭ উইকেটের জয় পায় গুজরাট। চতুর্থ উইকেট জুটিতে তারা দুজন ১০ ওভারে ১০.৬ গড়ে ১০৬ রান তুলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। মিলার ৩৮ বলে ৩টি চার ৫ ছক্কায় ৬৮ রানে অপরাজিত থাকেন। তার সঙ্গে ২৭ বলে ৫ চারে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন পান্ডিয়া। লিগপর্বে ১৪ ম্যাচ থেকে সর্বোচ্চ ২০ পয়েন্ট সংগ্রহ করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ছিল তারা। এবার প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ জিতে ফাইনালে পৌঁছে গেল আইপিএলের নবাগত ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।