চট্টগ্রাম | Ridmik News
চট্টগ্রাম
হোটেলে নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, চট্রগ্রামে গ্রেফতার 'প্রেমিক'
রাজধানীর পান্থপথের একটি আবাসিক হোটেল থেকে জান্নাতুল নাঈম সিদ্দিক (২৭) নামের এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মূলহোতা মো. রেজাউল করিমকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।  বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) রাতে চট্টগ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক আ ন ম ইমরান খান। এর আগে বুধবার (১০ আগস্ট) রাত সাড়ে ৯টার দিকে পান্থপথের ফ্যামিলি সার্ভিস অ্যাপার্টমেন্ট নামের আবাসিক হোটেল থেকে সদ্য এমবিবিএস পাস করা চিকিৎসক জান্নাতুল নাঈম সিদ্দিকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। জান্নাতুল এমবিবিএস পাস করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে স্ত্রী ও গাইনি বিষয়ে একটি কোর্সে অধ্যয়নরত ছিলেন। ঘটনার পর পুলিশ জানায়, ওই আবাসিক হোটেলটিতে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে রেজাউল করিম রেজা নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে উঠেছিলেন জান্নাতুল। এরপর সুযোগ বুঝে স্বামী পরিচয়ধারী কথিত বয়ফ্রেন্ড রেজাউল তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যান। পুলিশ বলছে, জান্নাতুলের সঙ্গে রেজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল দীর্ঘদিন।
তেল কম দেয়ায় ৯ ফিলিং স্টেশনকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা
বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ৯টি ফিলিং স্টেশনকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমানের নেতৃত্বে তিন জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নগরীর বিভিন্ন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এতে বিভিন্ন অনিয়ম, ওজনে কম দেওয়া, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায় ৯টি ফিলিং স্টেশনকে ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক নগরীর ২ নম্বর গেট ও চান্দগাঁও এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে খান অ্যান্ড ব্রাদাসকে ১০ হাজার টাকা, ফসিল পেট্রোল পাম্পকে ১০ হাজার টাকা, কর্ণফুলী ফিলিং স্টেশনকে (বাকলিয়া) ২০ হাজার টাকা, মীর ফিলিং স্টেশনকে (বাকলিয়া) ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। অন্যদিকে চান্দগাঁও সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা নগরীর নাসিরাবাদ ও প্রবর্তক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ফয়েজ আহমেদ অ্যান্ড সন্সকে ১০ হাজার টাকা, বাদশা মিয়া ফিলিং স্টেশনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।
পুরোনো দামে তেল বেচে প্রশংসায় ভাসছেন ডিপো মালিক
জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি হওয়ার পরেও পুরনো দামেই বিক্রি করে প্রশংসায় ভাসছেন কক্সবাজারের করিম অ্যান্ড ফিলিং স্টেশনের মালিক হুমায়ূন করিম সিকদার। তার এমন কাজে সন্তুষ্টি এনে দিয়েছে ভোক্তাদের। জানা গেছে, গত শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টা থেকে জ্বালানি তেলের নতুন দাম কার্যকর হলেও পরের দিন বিকেলে পর্যন্ত ২৫ হাজার লিটার ডিজেল ও অকটেন পুরনো দামেই বিক্রি করে প্রতিষ্ঠানটি। এ প্রসঙ্গে হুমায়ূন করিম সিকদার বলেন, দেশে হঠাৎ অকটেন, ডিজেল ও পেট্রোলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেক ফিলিং স্টেশন সিন্ডিকেট করে পুরনো দামে কেনা তেল বেশি দামে বিক্রির জন্য মজুত করে রাখে। তবে আমি সেটা করিনি। কারণ, আমি কম দামে তেল কিনেছি, কম দামেই বিক্রি করব। এতে হয়তো আমার অতিরিক্ত লাভ হবে না কিন্তু ক্ষতি তো হবে না। তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন ফিলিং স্টেশনে গ্রাহকদের হয়রানি দেখে শুক্রবার রাতে সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে পুরনো দামে তেল বিক্রির ঘোষণা দিই। শনিবার বিকেল পর্যন্ত ২০ হাজার লিটার ডিজেল ও ৫ হাজার লিটার অকটেন বিক্রি করে ডিপো খালি করি।
খালাসের পরও কনডেম সেলে থাকার ঘটনা তদন্তের নির্দেশ
হাইকোর্ট থেকে খালাসের পরও চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় জানে আলম হত্যা মামলায় সাত বছর ধরে কনডেম সেলে থাকা আবুল কাশেমের বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত এক আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার (৭ আগস্ট) বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি মো. বশির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন বাপ্পী। এর আগে ওই ঘটনায় বাংলানিউজডটকম-এ একটি প্রগিবেদন প্রকাশিত হয়। এতে বলা হয়েছে, লোহাগাড়া থানার জানে আলম হত্যা মামলা থেকে বেকসুর খালাস পেয়েছেন। তার খালাস পাওয়ার আদেশ যথাসময়েই উচ্চ আদালত থেকে পৌঁছেছে অতিরিক্ত চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতে। কিন্তু আদেশ কারা কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছেনি ৭ বছর ৩ মাস ১১ দিনও। একটি মামলায় ২০১৫ সালের ১৪ এপ্রিল অতিরিক্ত চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালত হাজিরা দিতে আসলে আবুল কাশেমকে শোন এ্যারেস্ট দেখিয়ে কারাগারে পাঠায়। সেই দিন থেকে কারাগারের কনডেম সেলে আছেন আবুল কাশেম।
চট্টগ্রামে গণপরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার
বিআরটিএ-র অনুরোধে গণপরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক সমিতি। শনিবার (৬ আগস্ট) দুপুর পৌনে ২টার দিকে এ সিদ্ধান্ত নেয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে আমরা চট্টগ্রামের সকল বাস চালকদের অনুরোধ করেছি গাড়ি নিয়ে রাস্তায় নামার জন্য। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সঙ্গে বৈঠকে বসবে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। এরপর আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্তে যাবো। এর আগে শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাতে হঠাৎ করে জ্বালানি তেলের বৃদ্ধির পর গণপরিবহনের ভাড়া পুনঃনির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত নগরে বাস চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপ।
আজ চট্টগ্রামে বাস চলাচল বন্ধ
হঠাৎ জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির সংবাদে চট্টগ্রাম নগরীতে বাস চলাচল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপ। শনিবার (৬ আগস্ট) সকাল থেকে নগরীতে বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত সোয়া ১২টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন বাস মালিক সমিতির সভাপতি বেলায়েত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাতে হঠাৎ তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এরপর পাম্পগুলোতে ভিড়ের কারণে তেল পায়নি গণপরিবহনগুলো। এ জন্য আমরা শনিবার (৬ আগস্ট) সকাল থেকে গাড়ি চালানো বন্ধ রাখবো। তা ছাড়া তেলের দাম বৃদ্ধির সঙ্গে গণপরিবহন ভাড়াও সমন্বয় করতে হবে। এটি না করা পর্যন্ত গাড়ি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা।
মিরসরাইয়ের ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত শিক্ষার্থীর মৃত্যু
চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসে ট্রেনের ধাক্কার ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আয়াত হোসেন (১৬) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ১২। টানা সাতদিন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকার পর শুক্রবার (৫ আগস্ট) দুপুর সোয়া ২টার দিকে তিনি মারা যান। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে চমেক হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. এস এম নোমান খালেদ চৌধুরী বলেন, প্রথম থেকেই তাসফিরের অক্সিজেন স্যাচুরেশন কম ছিল। তাই তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। কারণ দুর্ঘটনায় তার মাথায় ও ঘাড়ে আঘাত পায়। এরপর থেকে জ্ঞান ফেরেনি। আজ সকাল থেকে অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে। দুপুরের দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।
বিরল ৪ বাঘ শাবকের নাম পদ্মা-মেঘনা-সাঙ্গু-হালদা
চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় জন্ম নেয়া চার বাঘ শাবকের নাম রাখা হয়েছে পদ্মা, মেঘনা, সাঙ্গু ও হালদা। সোমবার (১ আগস্ট) সংবাদ সম্মেলনে বাঘের নামকরণের কথা জানান চিড়িয়াখানা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। জেলা প্রশাসক বলেন, 'গত শনিবার রাজ-পরী বাঘ দম্পতির চারটি সাদা শাবক জন্ম নেয়। ২০১৮ সালে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় এই দম্পতির ঘরে জন্ম নেয়া প্রথম সাদা বাঘটি পর্যটকদের কাছে বিশেষ আকর্ষণের প্রাণী। চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বর্তমানে ষোলোটি বাঘ রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে পাঁচটি বিরল প্রজাতির সাদা বাঘ। চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর ডা. শাহাদাত হোসেন শুভ বলেন, জন্মের পর থেকে শাবকগুলো মায়ের সঙ্গে আছে। চিড়িয়াখানা বা সাফারি পার্কে জন্ম নেয়া বাচ্চাকে অনেক সময় মা দুধ খাওয়ায় না। তবে এই চার শাবককে তাদের মা পরী দুধ খাওয়াচ্ছে। খাঁচার ভেতরে থাকা সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে সেগুলোর ওপর নজর রাখা হচ্ছে। শাবকগুলোর ওজন ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম করে। এক সপ্তাহ পর এদের লিঙ্গ পরিচয় জানা যাবে।
বিয়ের খাবার খেয়ে অসুস্থ ৩ শতাধিক, হাসপাতালে বর-কনে!
চট্টগ্রামে বিয়ের খাবার খেয়ে বর-কনেসহ অন্তত ৩ শতাধিক নারী-পুরুষ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বিয়ের দাওয়াতে উপস্থিত অতিথিদের অনেকেই পেট ব্যথা, বমি ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত হয়ে চন্দনাইশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গত শুক্রবার (৩০ জুলাই) উপজেলার কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মাহাবুব চেয়ারম্যান বাড়ির মাজুল গণির ছেলে সালমান মাসুদের সাথে একই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড শাহসুফি বাড়ির কামাল উদ্দিনের মেয়ে নেহা আকতারের বিয়ে ঠিক হয়। এ উপলক্ষে গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বাদামতলস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে বরযাত্রীসহ আনুমানিক ২ হাজার অতিথির জন্য প্রীতিভোজের আয়োজন করা হয়। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বর, কনেসহ আত্মীয়-স্বজনরা চলে যান নিজ নিজ গন্তব্যে। তবে পরদিন শনিবার থেকে বিয়ের খাবার খাওয়া অনেকেই অসুস্থ হতে শুরু করেন। চিকিৎসকরা জানান, স্বাদ বৃদ্ধি ও রং সুন্দর করার জন্য অনেক সময় বাবুর্চিরা খাবারে রাসায়নিক ব্যবহার করেন যা স্বাস্থ্যসম্মত নয়। ধারণা করা হচ্ছে খাবারে এ ধরনের রাসায়নিক ব্যবহার করায় খাদ্যে বিষক্রিয়া হয়েছে। তবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বিস্তারিত জানা যাবে। চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, আমরা খোঁজখবর নিচ্ছি। অতিরিক্ত গরমের কারণে অথবা অন্য কোনো কারণেও খাদ্যে বিষক্রিয়া হয়ে থাকতে পারে।
ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষ: ভয়াবহ সেই ঘটনার বর্ণনা দিলেন চালক
চট্টগ্রামে ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে ১১ জন নিহতের ঘটনার ভয়াবহ বর্ণনা দিলেন মহানগর প্রভাতী ট্রেনটির চালক (লোকোমাস্টার) জহিরুল হক খান। তিনি জানান, মাইক্রোবাসটি অনেক দ্রুত রেল লাইন ক্রস করছিল, ট্রেনও অনেক স্পিডে ছিল। ফলে সংঘর্ষ হয়েছে বুঝতে পারলেও ওই মুহূর্তে কিছু করার ছিল না। গতকাল শনিবার (৩০ জুলাই) তিনি বলেন, গাড়িটি এত কাছাকাছি চলে এসেছে যে, ট্রেন থামানো যায়নি। সাধারণত একটি ট্রেন থামাতে হলে ৪০০ গজ (প্রায় আধা কিলোমিটার) পর্যন্ত দূরত্ব থাকতে হয়। তবুও সঙ্গে সঙ্গে ট্রেন কন্ট্রোলের চেষ্টা করি। কিন্তু এর আগেই ইঞ্জিনে উঠে যায় মাইক্রোবাসটি। তখন অবশ্য সবকিছু শেষ। জহিরুল খান বলেন, আমার ধারণা, এখানে অনেক চলাচলের পথ আছে যেগুলো বৈধ নয়। কারণ, স্বাভাবিকভাবে ব্যারিয়ার থাকলে এমন দুর্ঘটনা ঘটত না। আর ওখানে কোনো গেটম্যান ছিল কি না, আমি খেয়াল করতে পারিনি। তবে গেটম্যান থাকলে এই ঘটনা ঘটত না। এছাড়া গেটে কোনো সিগন্যালও ছিল না। তিনি আরও বলেন, এই দুর্ঘটনার পেছনে অন্যতম ভুল ছিল মাইক্রোবাসটির চালকের। তার দরকার ছিল আশপাশ দেখেই রেললাইন পার হওয়া।
হাটহাজারিতে জানাজায় মানুষের ঢল, চারিদিক শোকের মাতম
চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে নিহতদের জানাজায় মানুষের ঢল নেমেছে। শনিবার (৩০ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে জানাজার জন্য নিহতদের মধ্যে পাঁচজনের মরদেহ হাটহাজারির আমানবাজার খন্দকিয়া গ্রামে নেয়া হলে শত শত মানুষের ঢল নামে। শেষবারের জন্য চিরচেনা মুখগুলোকে দেখতে আবালবৃদ্ধবনিতার স্রোত নামে হাটহাজারির গ্রামটিতে। দুর্ঘটনায় নিহত ১১ জনের মধ্যে আজ সকালে মোস্তফা নিরু, সামিরুল ইসলাম হাছান, রিদোয়ান ও সজীবের জানাজা একসঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজায় অংশ নিতে আসা সবাই ছিল শোকে বিহ্বল। আত্মীয়স্বজন-প্রতিবেশীদের চোখে নেমে এসেছে শোকের কালো ছায়া। এর আগে শুক্রবার রাতে দুই জনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়ে। এছাড়া নিহতদের মধ্যে শান্ত শীল নামে একজনে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা গেছে।
ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষ: গেটম্যানকে আসামি করে পুলিশের মামলা
চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে ১১ যাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় গেটম্যান সাদ্দামকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। শনিবার (৩০ জুলাই) ভোরে চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশের এসআই জহিরুল ইসলাম বলেন, মিরসরাইয়ে ট্রেন-মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় ১১ জন নিহত হওয়ার পর একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অবহেলা জনিত হত্যার অভিযোগে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। দণ্ডবিধির ৩৩৮ (ক)/৩০৪ (ক)/৪২৭ ধারায় মামলাটি করা হয়েছে। শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনায় ছয় জন আহত হয়েছেন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর শুক্রবার সন্ধ্যায় গেটম্যান সাদ্দামকে আটক করে পুলিশ।
'গেটম্যান থাকলে এত বড় ক্ষতি হতো না'
ট্রেন-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে নিহত মাইক্রোবাস চালক গোলাম মোস্তফা নিরুর বাড়িতে চলছে স্বজনদের আহাজারি! ‘গেটম্যান থাকলে এত বড় ক্ষতি হতো না। এতগুলো মানুষ মারা যেত না। এই মৃত্যুর দায় কে নেবে? আমার নাতনি ও ছেলে বউকে কে দেখবে? কে খাওয়াবে?’ চার বছরের নাতনী রুহী আক্তারকে কোলে নিয়ে চিৎকার করে এসব প্রশ্ন করছিলেন আর কাঁদছিলেন হাজী মোহাম্মদ ইউসুফ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের খন্দকিয়া গ্রামের মাইক্রোবাস চালক গোলাম মোস্তফা নিরুর বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে এই চিত্র। চিকনদণ্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাসান জামান বাচ্চু বলেন, ‘একসঙ্গে এত প্রাণ হারায়নি আমরা আগে কখনও। যারা নিহত হয়েছেন তারা সবাই বয়সে তরুণ। এর মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল পাঁচজন। শিক্ষক আছে চারজন। মাইক্রোবাসের চালকও এই গ্রামের। জানি না এই শোক কীভাবে সইবো আমরা।’ শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ঝরনা এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হয়। এ ঘটনায় আহত ৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।
চট্টগ্রামে ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষ, গেটম্যান আটক
চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলায় ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষের ঘটনায় ১১ আরোহী নিহত হওয়ার ঘটনায় গেটম্যান মো. সাদ্দামকে আটক করেছে রেলওয়ে পুলিশ। শুক্রবার (২৯ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে রেলক্রসিং এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজিম উদ্দিন। তিনি বলেন, সাদ্দামকে আটক করা হয়েছে।। দুর্ঘটনার বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া ঝরনা এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হয়। এ ঘটনায় আহত ৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।
দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাস অপসারণের পর ঢাকা-চট্টগ্রাম ট্রেন চলাচল শুরু
ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষের চার ঘণ্টা পর ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলসড়কে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেল ৫টায় বড়তাকিয়া স্টেশন মাস্টার মো. শামসুদ্দোহ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করা হয়েছে। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের দুটি টিম এসে মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করে। এর আগে প্রায় ৩ ঘণ্টা চেষ্টা করেও মাইক্রেবাসটি সরাতে ব্যর্থ হয় মিরসরাই ও সীতাকুন্ড ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা। শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার খৈয়াছড়া ঝরনা এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ যাত্রী নিহত হন। এ ব্যাপারে রেলওয়ে পুলিশের চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার হাসান চৌধুরী বলেন, ঢাকা থেকে চট্টগ্রামমুখী মহানগর প্রভাতী ট্রেন একটি মাইক্রোবাসকে ধাক্কা দেয়। এতে ১১ জন নিহতের খবর শুনেছি।