ঢাবি | Ridmik News
ঢাবি
ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করবেন যেভাবে
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা আজ সোমবার (১৬ মে) থেকে তাদের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবে। এ প্রবেশপত্র সংশ্লিষ্ট ইউনিটের পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগ পর্যন্ত ডাউনলোড করা যাবে। যেভাবে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করবেন: ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট https://admission.eis.du.ac.bd এ গিয়ে উপরের বা কোণে থাকা ড্যাশবোর্ডে ক্লিক করতে হবে। এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬ হাজার ৩৫টি আসনের বিপরীতে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন করেছে প্রায় ২ লাখ ৯০ হাজার ৩৪৮ শিক্ষার্থী। অর্থাৎ প্রতি আসনের জন্য এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪৮ জন। ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ৩ জুন থেকে।
ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড শুরু
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য আজ সোমবার (১৬ মে) থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। সোমবার থেকে প্রতি ইউনিটের পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগপর্যন্ত প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করেছেন প্রায় ২ লাখ ৯০ হাজার ৩৪৮ শিক্ষার্থী। আবেদন ফি ছিল ১ হাজার টাকা। এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে আসনসংখ্যা ৬ হাজার ৩৫টি। অর্থাৎ প্রতি আসনের জন্য এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৪৮ জন।
ঢাবি’র শিক্ষক নির্বাচনে দুই প্যানেলের মনোনয়ন জমা
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সিনেটে শিক্ষক নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল এবং বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল প্যানেলসহ মনোনয়ন জমা দিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার নির্বাচনের প্যানেল মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিনে নীল দল ও সাদা দল তাদের ৩৫ সদস্যের মনোনীত প্যানেল রেজিস্টার কার্যালয়ের নির্বাচন শাখায় জমা দিয়েছে। ১৬ মে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। আগামী ২৪ মে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ভোট গ্রহণ চলবে। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ভোটার প্রায় ২ হাজার শিক্ষক। সিনেটে সর্বশেষ শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৭ সালে। ওই নির্বাচনে আওয়ামীপন্থী নীল দলের ৩৩ জন ও বিএনপিপন্থী সাদা দলের দুই জন শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছিল।
অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষায় সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ: ঢাবি উপাচার্য
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। বৃহস্পতিবার (১২ মে) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকাস্থ আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ-এর যৌথ উদ্যোগে এক বিশেষ বক্তৃতায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। লাইব্রেরিজ উইদাউট বর্ডার্সের সভাপতি অধ্যাপক ড. প্যাট্রিক ভেইল অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা শীর্ষক বক্তৃতা দেন। ঢাকাস্থ আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ-এর পরিচালক ফ্রাঁসোয়া ম্রোজোঁ ধন্যবাদ জানান। স্বাগত বক্তব্য দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আবদুল হালিম। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ গঠনের লক্ষ্যে জাতীয় শিক্ষানীতি প্রণয়ন করেছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছে। দেশে অন্তর্ভুক্তিমূলক শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার যুবদের জন্য অনুপ্রেরণা: আরেফিন সিদ্দিকী
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ স ম আরেফিন সিদ্দিকী বলেছেন, শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার সত্যিকারে যুব সম্প্রদায়ের একজন আদর্শ শিক্ষক ছিলেন। তিনি একাধারে একজন আদর্শ শিক্ষক, রাজনীতিবিদ এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা। তরুণ প্রজন্মকে শহীদ আহসানউল্লাহ এর জীবন ও আদর্শকে মন ও মননে ধারন করে দেশসেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করতে হবে। শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার যুবদের জন্য অনুপ্রেরণার এক অনিঃশেষ উৎস। তিনি বৃহস্পতিবার (১২ মে) দুপুরে রাজধানীর যুব ভবনে যুব উন্নয়ন অধিদফতর কর্তৃক শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার এর ১৮ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন।যুব উন্নয়ন অধিদফতরের মহাপরিচালক মোঃ আজহারুল ইসলাম খান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া সচিব মেজবাহ উদ্দিন।
ঢাবিতে এক আসনের জন্য লড়বেন ৪৮ জন ভর্তিচ্ছু
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ৫টি ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা ৬ হাজার ৩৫টি। এর বিপরীতে ২ লাখ ৯০ হাজার ৩৪১ জন প্রার্থী অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন করেছেন। সে হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৪৮ জন। অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়া গতকাল মঙ্গলবার (১০ মে) শেষ হয়েছে। এর আগে, গত বুধবার (২০ এপ্রিল) থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়।
ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় ২ লাখের বেশি আবেদন
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন প্রক্রিয়া চলছে। গত ২০ এপ্রিল থেকে কোনো ঝামেলাবিহীন আবেদন করতে পারছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। ঈদের ছুটিতে হেল্প লাইন লিমিটেড করা হলেও ভর্তিচ্ছুরা আবেদন করতে পারছেন। এখন পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ১১ হাজার আবেদন পড়েছে। এর মধ্যে ‘ক’ ইউনিটে আবেদন পড়েছে প্রায় ৯১ হাজার, ‘খ’ ইউনিটে ৪১ হাজারের বেশি, ‘গ’ ইউনিটে প্রায় ২২ হাজার, ‘ঘ’ ইউনিটে প্রায় ৫২ হাজার এবং ‘চ’ ইউনিটে এখন পর্যন্ত আবেদন পড়েছে চার হাজারের বেশি। আগামী ১০ মে পর্যন্ত ভর্তি সংক্রান্ত ঢাবির ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।
ঢাবির আইন অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হলেন অধ্যাপক ড. সীমা জামান
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. সীমা জামান। গতকাল মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) রাতে অধ্যাপক ড. সীমা জামান বলেন, আমি ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে গত ২৪ এপ্রিল যোগদান করেছি। প্রসঙ্গত, আইন অনুষদের নির্বাচিত ডিন অধ্যাপক রহমত উল্লাহকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ায় ডিনের পদটি শূন্য হলে ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগ দেয়া হয়।
শিক্ষার্থীদের আসন সংখ্যা কমালো ঢাবি
সূত্রে জানায়, এবার ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ক, খ, গ, ঘ ও চ ইউনিট মিলে সর্বমোট ১১১৩টি আসন কমানো হয়েছে। বিগত বছরগুলোতে ৭ হাজার ১৪৮ আসনে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেলেও এবছর ৬০৩৫ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে- ‘ক’ ইউনিটে ১৮৫১, ‘খ’ ইউনিটে ১৭৮৮, ‘গ’ ইউনিটে ৯৩০, ‘ঘ’ ইউনিটে ১৩৩৬ ও ‘চ’ ইউনিটে ১৩০ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তি করানো হবে। ফি পরিশোধ করতে শিক্ষার্থীরা ব্যবহার করতে পারবেন অনলাইনে ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, মোবাইল ব্যাংকিং অথবা ইন্টারনেট ব্যাংকিং এবং রাষ্ট্রায়ত্ত ৪টি ব্যাংক- সোনালী, অগ্রণী, জনতা ও রূপালী ব্যাংকের মাধ্যমে।
নিজস্ব জনপদ উন্নয়নে কাজ করুন: ঢাবি উপাচার্য
যার যার জনপদের উন্নয়নে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আখতারুজ্জামান। গতকাল রোববার (২৪ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভাবনে আয়োজিত বরিশাল বিভাগীয় কল্যাণ সমিতির ইফতার মাহফিলে যোগ দিয়ে এ আহ্বান জানান তিনি। প্রধান অতিথির বক্তব্য উপাচার্য বলেন, আঞ্চলিক শ্রদ্ধাবোধের বিষয়টি ধর্মেও গুরুত্ব পেয়েছে। তাই স্ব স্ব পরিচয় কাজে লাগিয়ে নিজস্ব জনপদের উন্নয়নে কাজ করতে হবে। বিশেষ অতিথি হিসেবে ইফতার মাহফিলে যোগ দেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. অহিদুজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলেন প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাসুদুর রহমান। আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।
ঢাবিতে লেকচারার নিয়োগ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ডিজাস্টার সায়েন্স অ্যান্ড ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স বিভাগে ‘লেকচারার’ পদে তিনজনকে নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ১২ মে পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।
ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু আজ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ও ফি জমা নেয়া শুরু হবে আজ বুধবার (২০ এপ্রিল) থেকে এবং শেষ হবে আগামী ১০ মে। ১৬ মে থেকে পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগপর্যন্ত প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। আজ বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আনুষ্ঠানিকভাবে এই অনলাইন আবেদন গ্রহণ ও ফি জমা দেয়া কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে। এর আগে গত ৭ এপ্রিল নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে উপাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়।
ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতির কুশপুত্তলিকা দাহ
মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে গতকাল রোববার (১৭ এপ্রিল) আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তব্য দিতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর খুনী খন্দকার মোশতাককে শ্রদ্ধা জানান বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক রহমতুল্লাহ। তার ওই বক্তব্যের পর সর্বত্র সমালোচনা চলছে। এদিকে অধ্যাপক রহমতুল্লাহকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন। সোমবার (১৮ এপ্রিল) ঢাবির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে তারা এ কর্মসূচি পালন করে। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুন এর সঞ্চালনায় ওই কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহীন সিকদার। এসময় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন মজুমদার, মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন জালাল, ভাস্কর্য শিল্পী রাশা, ঢাবি শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম মাহিমসহ প্রমুখ আরো অনেকে। এ সময় আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে রহমতুল্লাহকে অপসারণ ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার আল্টিমেটাম দেয়া হয়। পরে রহমতুল্লাহর কুশপুত্তলিকা দাহ করে সংগঠনটির নেতা-কর্মীরা।
ক্ষমা চাইলেন অধ্যাপক রহমত উল্লাহ
খন্দকার মোশতাককে শ্রদ্ধা জানানো অসতর্কতাবশত ও অনিচ্ছাকৃত উল্লেখ করে ক্ষমা ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. রহমত উল্লাহ। সোমবার (১৮ এপ্রিল) সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই দুঃখ প্রকাশ করেন। লিখিত বক্তব্যে রহমত উল্লাহ বলেন, 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় মুজিবনগর সরকার গঠনের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট এবং সরকারে কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছিলেন তা উল্লেখ করি এবং মুজিবনগর সরকারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করি। বক্তব্যের এক পর্যায়ে মুজিবনগর সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কুলাঙ্গার এবং মুক্তিযুদ্ধকালীন ও পরবর্তীকালে জাতির সাথে বিশ্বাসঘাতকতাকারী বঙ্গবন্ধুর খুনী খন্দকার মোস্তাক আহমেদের প্রতি আমি আমার ব্যক্তিগত ঘৃণা ও ক্ষোভ প্রকাশ করি'। তিনি বলেন, গতকালের আলোচনা সভায় বক্তব্য প্রদানকালে আমি যদি অজ্ঞতাবশত কোন শব্দ/বাক্য উচ্চারণ করে থাকি তা নিতান্তই আমার অনিচ্ছাকৃত ভুল। এজন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা প্রার্থনা করছি।
খন্দকার মোশতাককে শ্রদ্ধা জানালেন ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি!
মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর খুনি খন্দকার মোশতাককে শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও আওয়ামীপন্থী নীল দলের নেতা অধ্যাপক এম রহমত উল্লাহ। রোববার (১৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে দেয়া তার ওই বক্তব্যের পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শিক্ষকদের মধ্যে নানা সমালোচনা চলছে। জানা যায়, অধ্যাপক রহমত উল্লাহ এক লিখিত বক্তব্য দিতে গিয়ে বলেন, 'আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারের জাতীয় চার নেতা এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী খন্দকার মোশতাকের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছি।' তার এ বক্তব্যের পরপরই তাৎক্ষণিক তীব্র প্রতিবাদ জানান উপ উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ। এসময় তিনি বলেন, 'ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে খন্দকার মোশতাকের মত ব্যক্তির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্রহণ করে না। অবিলম্বে বক্তব্য এক্সপাঞ্জ করার দাবি জানাচ্ছি।' পরে অধ্যাপক রহমত উল্লাহ তার বক্তব্যের ওই অংশটুকু এক্সপাঞ্জ করেন। আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো আখতারুজ্জামান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী প্রমুখ।